PDA

View Full Version : একটি জরুরী সংবাদ



musafir2
11-07-2015, 09:13 PM
একটি জরুরী সংবাদ
http://www.esamakal.net/2015/11/05/images/01_103.jpg

http://www.esamakal.net/2015/11/05/images/15_102.jpg

আল্লাহ আমাদের ভাইদের হেফাজত করুন। আমিন

musafir2
11-07-2015, 09:16 PM
ছয় সন্দেহভাজনকে শনাক্ত করলেন ব্যবসায়ীরা
http://www.samakal.net/template/samakal_organ/images/samakal_beta_logo.jpg
জাগৃতি প্রকাশনীর কর্ণধার ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যায় জড়িত থাকতে পারে এমন সন্দেহভাজন ছয়জনের ছবি পুলিশকে দেখিয়েছেন আজিজ সুপার মার্কেটের ব্যবসায়ীরা। মার্কেটের সামনে অংশের একটি সিসিটিভির ফুটেজ থেকে সন্দেহভাজন এসব আততায়ীর ছবি চিহ্নিত করা হয়। ব্যবসায়ীরা বলছেন, সিসিটিভিতে দেখা গেছে, গত শনিবার ঘটনার দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টিকারযুক্ত একটি প্রাইভেটকারে ২টা ১০ মিনিটে আজিজ সুপার মার্কেটে যান দীপন। গাড়ি থেকে নেমে তিনি মার্কেটে প্রবেশ করেন। পরে দীপনের প্রাইভেটকারের আশপাশে সন্দেহভাজন ছয়জনকে ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায়। তারা গাড়ির নম্বর লিখছিল এবং মোবাইলে কথা বলছিল। ছয়জনের মধ্যে দু'জনের কাঁধে ছিল ব্যাগ। তাদের বয়স ২০-২৫ বছরের মধ্যে। এদিকে কে বা কারা গতকাল বুধবার সকালে টেলিফোনে নিহত দীপনের বাবা অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হকের বাসায় 'হুমকি' দিয়েছে। শুদ্ধস্বরের কর্ণধার আহমেদুর রশীদ চৌধুরী টুটুলসহ তিনজনের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের এখনও শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। চার দিন পার হলেও দুই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।

--

আজিজ সুপার মার্কেটের ব্যবসায়ী ও শ্রাবণ প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী রবিন আহসান গতকাল সমকালকে বলেন, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে বসে আজিজ সুপার মার্কেটের সামনের অংশ থেকে নেওয়া সিসিটিভির ফুটেজ বিশ্লেষণ করা হয়। এতে শনাক্ত করা হয়েছে সন্দেহভাজন ছয়জনকে। তাদের পরনে ছিল জিন্সের প্যান্ট ও শার্ট। কারও পায়ে ছিল স্যান্ডেল। কারও চুল ছোট করে কাটা। দীপন প্রাইভেটকার থেকে নামার পরপরই উঁকি দিয়ে গাড়ির ভেতরে কেউ দেখছিল। আবার কেউ গাড়ির নম্বর লিখে রাখে। একজনকে আজিজ সুপার মার্কেটের ভেতরে যেতে দেখা যায়। ভিন্ন ভিন্ন সময় তারা আজিজ সুপার মার্কেটের সামনে গেলেও ৩টার দিকে ওই ছয়জনকে একসঙ্গে ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে দেখা যায়। যারা দীপন কিলিং মিশনে সরাসরি অংশ নিয়েছে, হয়তো তাদের সহযোগী টিমের সদস্য ছিল এই সন্দেহভাজন ছয়জন। তারা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে কিলিং মিশনের সদস্যদের তথ্য সরবরাহ করছিল।
দীপন হত্যা মামলার তদন্ত তদারক কর্মকর্তা ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের ডিসি (দক্ষিণ) মাশরুকুর রহমান খালেদ সমকালকে বলেন, ব্যবসায়ীরা যাদের সন্দেহ করছেন, তাদের ব্যাপারে আরও বিস্তারিত খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। এর বাইরেও অনেকে সন্দেহের তালিকায় আছে। ঘটনার দিন বেলা ৩টার দিকে দীপনকে হত্যা করা হয়েছে। পৌনে ৩টা পর্যন্ত তার অ্যাক্টিভিটি ছিল। পৌনে ৩টার দিকে দীপনকে খাবার খেতে দেখা যায়। এই হত্যা ঘটনায় জড়িত সন্দেহের তালিকায় আনসারুল্লাহ বাংলা টিমকেই রাখা হচ্ছে।

পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের ডিসি বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, শুদ্ধস্বরের কার্যালয়ের আশপাশের বাসা বা প্রতিষ্ঠানে কোনো সিসিটিভি পাওয়া যায়নি।
শাহবাগ থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক সমকালকে বলেন, হুমকির বিষয়টি জানার পরপরই গতকাল দীপনের বাবা অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হকের সঙ্গে পুলিশ কথা বলেছে। তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, দীপন হত্যার সঙ্গে হুমকি দেওয়ার ঘটনার কোনো সম্পর্ক নেই।

সূত্র জানায়, প্রযুক্তিগত তদন্তে দেখা যায়, দীপনকে হত্যার পরপরই সন্দেহভাজনরা দ্রুত এলাকা ত্যাগ করে। এর পর ঢাকার আশপাশের জেলায় তাদের ইলেকট্রনিক ডিভাইসের নেটওয়ার্ক শনাক্ত করা হয়। আগামী বইমেলায় অভিজিৎ রায়ের বই প্রকাশের উদ্যোগ নেওয়ার তথ্য আগাম জানতে পেরেই দীপন ও টুটুলকে টার্গেট করা হয়। বিভিন্ন সময় উগ্রপন্থিরা হুমকিও দিয়েছিল_ 'যারা ইসলামকে কটাক্ষ করে, তাদের বই প্রকাশ করলে (প্রকাশকদের) ছাড় দেওয়া হবে না।' আলামত হিসেবে দীপনের পরনের কাপড়, চশমা, স্যান্ডেল ও রক্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটে জাগৃতি প্রকাশনীর কার্যালয়ে দীপনকে কুপিয়ে হত্যা করে দরজা তালাবদ্ধ করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। একই সময়ে লালমাটিয়ায় শুদ্ধস্বর প্রকাশনীর কার্যালয়ে প্রকাশক টুটুল ও দুই লেখককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালানো হয়। তারা বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জাগৃতি ও শুদ্ধস্বর_ এ দুই প্রকাশনা সংস্থা থেকেই ব্লগার ও মুক্তমনা লেখক নিহত অভিজিৎ রায়ের বই প্রকাশিত হয়েছিল।

Abu Waqas
11-08-2015, 12:06 AM
আলহামদুলিল্লাহ, ভাই। একটা বিষয় বলতে চাচ্ছিলাম।
আমরা অনেকেই বিদেশের জিহাদ পরিস্থিতি নিয়ে অনেক আলোচনা, বিশ্লেষণ করেছি। কিন্তু এখন আমাদের দেশেই জিহাদ শুরু হয়েছে, তাই গ্লোবাল জিহাদের পাশাপাশি এভাবে দেশের পরিস্থিতি বেশী বেশী করে সকলকে অবগত করুন, বিশ্লেষণ করুন।
অনেকেই হয়তো ব্যস্ত থাকি ফলে, দেশের এই বিষয়ের সকল নিউজ সকলে পাই না।
তাই কোন ভাই যদি দেশের জিহাদ, উম্মাহ, ইসলাম সংক্রান্ত খবর গুলো নিয়মিত পোস্ট করে সকলকে অবগত করতেন তবে সেটা উত্তম হত।

বিষয়টা ভেবে দেখবেন,
জাযাকআল্লাহ !

কাল পতাকা
11-08-2015, 06:08 AM
Abu Waqas ভাই আপনার সাথে আমিও একমত।

তাই এখন সবাই আইডিয়া দেন। কেউ যদি কাজ হাতে নেয় তাহলে ভাল ভাবে কিভাবে সম্পন্ন করবে।