PDA

View Full Version : কালের কন্ঠ পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ। সত্যতা সম্পর্কে ভাইদের নিকট জানতে চাচ্ছি.......



سيف الرحمن
01-29-2019, 01:52 PM
গতকাল ২৮ জানুয়ারি কালের কন্ঠ পত্রিকায় নিন্মোক্ত সংবাদ টি প্রকাশ করা হয়। এধরণের আরো সংবাদ গণমাধ্যম্র প্রচার হচ্ছে। কোন ভাই যদি এর সঠিক সংবাদ জেনে থাকেন তাহলে বিস্তারিত জানালে কৃতজ্ঞ হবো।
সংবাদ টি এরূপ -
১৭ বছর ধরে চলমান আফগানযুদ্ধের ইতি টানতে একমত হয়েছেযুক্তরাষ্ট্র ও তালেবান আলোচকরা।শান্তি চুক্তির একটি খসড়া কাঠামোর বিষয়ে একমত হয়েছে দুপক্ষ।
কাতারে যুক্তরাষ্ট্র এবং জঙ্গি গোষ্ঠী তালেবানের মধ্যে ৬ দিনের আলোচনার পর বিশেষ মার্কিন দূত জালমে খলিলজাদ একথা জানান। দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকা খলিলজাদকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে।
আফগান বিষয়ক বিশেষ দূত খলিলজাদ আলোচনার বিষয়ে আফগানিস্তান সরকারকে ব্রিফিং দিতে কাবুলে যান। দীর্ঘ আফগান যুদ্ধের ইতি টানতে আলোচনায় অগ্রগতি হয়েছে বলে জানিয়েছে দুই পক্ষই।
সে কথাই তুলে ধরে সোমবার কাবুলে এক সাক্ষাৎকারে নিউ ইয়র্ক টাইমসকে খলিলজাদ বলেন, আমরা একটি খসড়া কাঠামো প্রস্তুত করেছি। পাকা চুক্তি হওয়ার আগে এটি নিয়ে আরো বিস্তৃত পরিসরে কাজ করতে হবে।
মার্কিন পররাষ্ট্রবিভাগও বিবিসির কাছে কথাটি ঠিক বলে নিশ্চিত করেছে। শান্তি চুক্তির ওই খসড়া কাঠামোয় তালেবান গোষ্ঠী আল কায়েদার মতো জঙ্গিদেরকে সন্ত্রাসী তৎপরতা চালানোর জন্য আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার না করতে দিতে রাজি হয়েছে।
ওদিকে, যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধবিরতিসহ আফগান সরকারের সঙ্গে তালেবানের সরাসরি আলোচনায় বসার প্রতিশ্রুতির বিনিময়ে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা পুরোপুরি প্রত্যাহার করে নিতে রাজি আছে।
তবে তালেবান বলছে, মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের একটি পাকা দিন নির্ধারণ হওয়ার পরই কেবল তারা আফগান সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসতে পারে।
আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি সোমবার নতুন করে তালেবানকে সরকারের সঙ্গে সরাসরি আলোচনায় বসার নতুন আবেদন জানিয়েছেন।
তালেবান গোষ্ঠী এ পর্যন্ত আফগান সরকারকে পুতুল সরকার আখ্যা দিয়ে তাদের সঙ্গে আলোচনা নাকচ করে এসেছে।
এবার যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তালেবানের আলোচনায় খলিলজাদ আফগানিস্তান সরকারকে অগ্রগতি হওয়ার কথা জানালেও বাস্তবিকই একটি শান্তি চুক্তি হতে বছরের পর বছর লেগে যেতে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিশ্লেষকরা।

Khalid Mansur
01-29-2019, 09:01 PM
ভাই,
এমন সংবাদ যে সত্য নয় এ ব্যাপারে তালিবান মুখপাত্র মোল্লাহ যাবীহুল্লাহ মুজাহিদ হাফিজাহুল্লাহ এর বিবৃতি এসেছে সেটা দেখুন।
লিংকঃ

http://alemarahenglish.com/?p=40854

বিবৃতিটি এমনঃ

Remarks by spokesman of Islamic Emirate regarding negotiations with US in Doha

The meetings taking place for the past six consecutive days in the Qatari capital of Doha between the negotiation team of Islamic Emirate and the United States finally came to an end today.

In accordance with the agenda, this round of negotiations revolving around the withdrawal of foreign troops from Afghanistan and other vital issues saw progress; but since issues are of critical nature and need comprehensive discussions therefore it was decided that talks about unresolved matters will resume in similar future meetings in order to find an appropriate and effective solution and also to share details of the meetings and receive guidance from their respective leaderships.

The policy of the Islamic Emirate during talks was very clear – until the issue of withdrawal of foreign forces from Afghanistan is agreed upon, progress in other issues is impossible.

In the end the delegation of the Islamic Emirate thanked Qatar for their facilitation role.

Reports by some media outlets about agreement on a ceasefire and talks with the Kabul administration are not true.

Spokesman of Islamic Emirate of Afghanistan

Zabihullah Mujahid

26/05/1440 Hijri Lunar

06/11/1397 Hijri Solar 26/01/2018 Gregorian

tsoi
01-30-2019, 12:31 AM
ভাইয়েরা
এইসব আলোচনা নিয়ে বিভ্রান্তিতে পরবেন না ইনশাআল্লাহ
কারন বর্তমান সময়টা কোন ভাবেই আলোচনার সময় নয়
জাযাকাল্লাহ ।
দুআর দরখাস্ত থাকল

tsoi
01-30-2019, 12:41 AM
ভাই এইখান থেকেও জানতে পারবেন কিছুটা ইন শা আল্লাহ
অবশেষে শেষ হলো দোহায় তালেবান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার বৈঠক!!!

লিঙ্ক ঃ http://gazwah.net/?p=17370

কালো পতাকাবাহী
01-30-2019, 07:22 AM
ভাই,
এমন সংবাদ যে সত্য নয় এ ব্যাপারে তালিবান মুখপাত্র মোল্লাহ যাবীহুল্লাহ মুজাহিদ হাফিজাহুল্লাহ এর বিবৃতি এসেছে সেটা দেখুন।
লিংকঃ

http://alemarahenglish.com/?p=40854

বিবৃতিটি এমনঃ

Remarks by spokesman of Islamic Emirate regarding negotiations with US in Doha

The meetings taking place for the past six consecutive days in the Qatari capital of Doha between the negotiation team of Islamic Emirate and the United States finally came to an end today.

In accordance with the agenda, this round of negotiations revolving around the withdrawal of foreign troops from Afghanistan and other vital issues saw progress; but since issues are of critical nature and need comprehensive discussions therefore it was decided that talks about unresolved matters will resume in similar future meetings in order to find an appropriate and effective solution and also to share details of the meetings and receive guidance from their respective leaderships.

The policy of the Islamic Emirate during talks was very clear until the issue of withdrawal of foreign forces from Afghanistan is agreed upon, progress in other issues is impossible.

In the end the delegation of the Islamic Emirate thanked Qatar for their facilitation role.

Reports by some media outlets about agreement on a ceasefire and talks with the Kabul administration are not true.

Spokesman of Islamic Emirate of Afghanistan

Zabihullah Mujahid

26/05/1440 Hijri Lunar

06/11/1397 Hijri Solar 26/01/2018 Gregorian

কোন মুহতারাম ভাই যদি বাংলায় অনুবাদ করে দিতেন....তাহলে অনেক ফায়দা হতো।
আল্লাহ সুবঃ ভাইদের মেহনতগুলোকে কবুল করুন,
আমীন ইয়া রব্বাশ-শুহাদায়ী ওয়াল মুজাহিদীন।

Khalid Mansur
01-30-2019, 08:37 PM
কোন মুহতারাম ভাই যদি বাংলায় অনুবাদ করে দিতেন....তাহলে অনেক ফায়দা হতো।
আল্লাহ সুবঃ ভাইদের মেহনতগুলোকে কবুল করুন,
আমীন ইয়া রব্বাশ-শুহাদায়ী ওয়াল মুজাহিদীন।


দোহাতে আমেরিকান প্রতিনিধি দলের সাথে আলোচনা সম্পর্কে ইমারাতে ইসলামিয়াহ আফগানিস্তান এর মুখপাত্রের বক্তব্য


কাতারের রাজধানী দোহাতে ইমারাতে ইসলামিয়াহ আফগানিস্তানের প্রতিনিধি দল ও আমেরিকার প্রতিনিধি দলের মধ্যে সম্প্রতি একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ছয় দিন ধরে চলা এই বৈঠক আজ শেষ হয়েছে।
এজেন্ডা অনুযায়ী, আফগানে অবস্থানরত মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছে; কিন্তু বিষয়গুলো অত্যন্ত জটিল প্রকৃতির এবং এজন্য আরও ব্যাপক আলোচনা প্রয়োজন। তাই বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে যে, উভয় পক্ষ তাদের নেতৃবৃন্দকে বৈঠকের বিস্তারিত জানাবে এবং তাদের পক্ষ্য থেকে দিক-নির্দেশনা নিয়ে অমীমাংসিত বিষয়গুলোতে গ্রহণযোগ্য এবং কার্যকর সমাধান খুজে পেতে পরবর্তী বৈঠকে আবার আলোচনা চলবে।
ইসলামিক ইমারাহ মনে করে যে আফগান থেকে মার্কিন সৈন্যদের সম্পূর্ণ অপসারণ ব্যতিত অন্যান্য সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়। তাই বৈঠকে আলোচনা চলাকালীন ইসলামিক ইমারাহ এর প্রতিনিধিদল এ বিষয়ে তাদের অবস্থান খুব স্পষ্টভাবে তুলে ধরেছে।
সম্বেলন শেষে ইসলামিক ইমারাহ কাতার প্রশাসনকে তাদের দেশে এ বৈঠক আয়োজন করায় ধন্যবাদ জানিয়েছে।
কিছু কিছু মিডিয়াতে এমন সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে যে ইসলামিক ইমারাহ কাবুল প্রশাসনের সাথে অস্ত্রবিরতি ও আলোচনার জন্য সম্মতি জানিয়েছে। ইসলামিক ইমারাহ এর পক্ষ থেকে জানানো হচ্ছে যে এই তথ্য সত্য নয়।


ইমারাতে ইসলামিয়াহ আফগানিস্তানের মুখপাত্র
জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ
২৬.০৫.১৪৪০ হিজরি লুনার
০৬.১১.১৩৯৭ হিজরি সোলার,
২৬.০১.২০১৯ ইংরেজি ।

কালো পতাকাবাহী
01-31-2019, 07:59 AM
মুহতারাম খালেদ মানসুর ভাইকে আল্লাহ সুবঃ উত্যম যাঝা দান করুন,আমীন।

سيف الرحمن
01-31-2019, 09:32 AM
ভাইদেরকে অনেক অনেক ধন্যবাদ! জাযাকাল্লাহ!