PDA

View Full Version : জিহাদি কাফেলায় আইম্মায়ে দ্বীন: ২০. আবু বকর আলমারওয়াযি রহ. (২৭৫ হি.)



ইলম ও জিহাদ
12-01-2019, 10:29 PM
বিশ.
আবু বকর আলমারওয়াযি রহ. (২৭৫ হি.)


ইমাম আহমাদ ইবনু হাম্বল রহ. এর সবচেয়ে যোগ্য ও প্রিয় শাগরেদ। আহমাদ রহ. তাকে সবার উপর প্রাধান্য দিতেন। মৃত্যুর পর তিনিই আহমাদ ইবনু হাম্বল রহ. এর চক্ষু বন্ধ করেছেন এবং তিনিই গোসল দিয়েছেন। আহমাদ রহ. থেকে তিনি অসংখ্য মাসআলা বর্ণনা করেছেন, যেগুলোর উপর হাম্বলী মাযহাবের একটা বড় অংশের ভিত্তি।


মারওয়াযি রহ. এর যোগ্য শাগরেদ আবু বকর খাল্লাল (৩১১ হি.), যিনি আহমাদ রহ. থেকে বর্ণিত বিক্ষিপ্ত মাসআলাসমূহ একত্রিত করে সর্বপ্রথম হাম্বলী মাযহাবকে সুবিন্যস্ত করেছেন।


খাল্লাল রহ. (৩১১ হি.) বলেন,
خرج أبو بكر إلى الغزو فشيعوه إلى سامراء، فجعل يردهم فلا يرجعون. قال: فحزروا فإذا هم بسامراء، سوى من رجع، نحو خمسين ألفا. اهـ

একবার আবু বকর (মারওয়াযি) রহ. জিহাদে রওয়ানা হলেন। তাকে বিদায় জানাতে বাগদাদ থেকে সামেরা পর্যন্ত অগণিত লোকের ভিড় হল। তিনি ফিরে যেতে বললেও লোকজন ফিরে আসছিল না। সামেরায় গিয়ে আন্দাজ করা হল, এখনো যারা যারা রয়ে গেছে, তাদের সংখ্যাও পঞ্চাশ হাজারের মতো। সিয়ারু আলামিন নুবালা ১০/৩১৫

***

ইবনে মুজিব
12-02-2019, 12:24 AM
মাশা'আল্লাহ কতইনা উত্তম পোষ্ট!
আল্লাহ তায়ালা আপনাকে উত্তম জাযা দান করুন।

salahuddin aiubi
12-02-2019, 06:13 PM
বিশ.
আবু বকর আলমারওয়াযি রহ. (২৭৫ হি.)


ইমাম আহমাদ ইবনু হাম্বল রহ. এর সবচেয়ে যোগ্য ও প্রিয় শাগরেদ। আহমাদ রহ. তাকে সবার উপর প্রাধান্য দিতেন। মৃত্যুর পর তিনিই আহমাদ ইবনু হাম্বল রহ. এর চক্ষু বন্ধ করেছেন এবং তিনিই গোসল দিয়েছেন। আহমাদ রহ. থেকে তিনি অসংখ্য মাসআলা বর্ণনা করেছেন, যেগুলোর উপর হাম্বলী মাযহাবের একটা বড় অংশের ভিত্তি।


মারওয়াযি রহ. এর যোগ্য শাগরেদ আবু বকর খাল্লাল (৩১১ হি.), যিনি আহমাদ রহ. থেকে বর্ণিত বিক্ষিপ্ত মাসআলাসমূহ একত্রিত করে সর্বপ্রথম হাম্বলী মাযহাবকে সুবিন্যস্ত করেছেন।


খাল্লাল রহ. (৩১১ হি.) বলেন,
خرج أبو بكر إلى الغزو فشيعوه إلى سامراء، فجعل يردهم فلا يرجعون. قال: فحزروا فإذا هم بسامراء، سوى من رجع، نحو خمسين ألفا. اهـ

একবার আবু বকর (মারওয়াযি) রহ. জিহাদে রওয়ানা হলেন। তাকে বিদায় জানাতে বাগদাদ থেকে সামেরা পর্যন্ত অগণিত লোকের ভিড় হল। তিনি ফিরে যেতে বললেও লোকজন ফিরে আসছিল না। সামেরায় গিয়ে আন্দাজ করা হল, এখনো যারা যারা রয়ে গেছে, তাদের সংখ্যাও পঞ্চাশ হাজারের মতো। সিয়ারু আলামিন নুবালা ১০/৩১৫

***






সুবহানাল্লাহ!! এত মানুষ একজন আলেমকে শুধু বিদায় জানানোর সেচ্ছায় পিছু পিছু চলেছে!!! তার মানে ওই সময় একটা অঞ্চলের সকল মানুষই তার পিছে পিছে চলেছে। আর এখন এদের অবস্থা কোন পর্যায়ে গিয়েছে!!! আহ!!