PDA

View Full Version : মালিক ইবনে দিনার এর কথোপকথন হুরুল ইন সম্পর্কে একটি হুরের ঘটনা



rana
03-20-2016, 09:10 PM
হুরুল ইন সম্পর্কে কথোপকথন

বর্ণিত আছে মালিক ইবনে দিনার একদিন বসরার রাস্তায় হাটছিলেন । সে সময় তিনি কোন এক ধনী ব্যাক্তির একটি দাসী দেখতে পেলেন যে আরহি অবস্থায় ছিল এবং তার সেবা করার জন্য সাথে কিছু খাদেমও ছিল । তাকে দেখামাত্র মালিক ইবনে দিনার উচুসরে বললেন
ওহে দাসী তোমাকে কি তোমার মালিক বিক্রয় করবে ?
দাসীটি বললঃ আপনি কি বলেন ?
মালিক আবার বললেনঃ তোমাকে কি তোমার মনিব বিক্রয় করবে ?
দাসীটি এবার বললঃ যদি তিনি বিক্রয় করেনই তবু কি আপনার মত আমাকে কেহ কিনতে পারবে ?
মালিক বলিলেনঃ হ্যাঁ । আমী তা পারি । তোমার চেয়ে উত্তম দাসিও কিনতে পারি ।
এ কথা শুনে দাসীটি হাঁসল । এবং(তার সাথে থাকা কাউকে) মালিককে তার বাস স্থলে নিয়ে আসতে বলল । বাসায় ফিরে তার মনিবের সাথে সবকিছু খুলে বলল সেও হাসল এবং মালিককে তার সামনে হাজির করতে বলল । মালিক যখন ঘরে প্রবেশ করলেন দাসিটির মনিবের মনে মালিকের প্রতি শ্রদ্ধা সৃষ্টি হল । সে বলল
আপনি কি চান ?
মালিক বললেনঃ আপনার দাসীটি আমার নিকট বিক্রয় করুন ।
সে বললঃ আপনি কি তার দাম দিতে পারবেন ।
মালিক বললেনঃ আমার কাছে দাসীটির দাম চুষে ফেলে দেওয়া হয়েছে এমন দুটি খেজুরের আটিটির সমান ।
তার কথা শুনে উপস্থিত সকলে হাসল । ধনী লোকটি বলল ।
-কিভাবে আপনার নিকট এই দাসিটির মূল্য এরকম হতে পারে ?
তিনি বলিলেনঃ কারন দাসিটির ভিতর অগনিত ত্রুটি রয়েছে ।
লোকটি বললঃ-তার বিতর কি কি ত্রুটি রয়েছে ?
মালিক এবার বলতে আরম্ভ করলেনঃ সে সুগন্দি ব্যাবহার না করলে তার শরির দুর্গন্ধময় হয়ে যায়, মিসয়াক না করলে গন্ধ হয়ে যায়, চিরুনি ও তেল ব্যাবহার না করলে মাথায় উকুন হয় এবং এলোমেলো হয়ে যায় । কিছুকাল বয়স হলেই বৃদ্ধ হয়ে যায় । তার হায়েজ হয়, তার ভিতর প্রস্রাব পায়খানার মত ময়লা আবর্জনা রয়েছে । তার মন খারাপ হয়, সে দুশ্চিন্তাগ্রস্থ হয় ও বিষণ্ণ হয় । সম্ভবত সে আপনাকে কেবল নিজ স্বার্থেই ভালবাসে এবং আপনি তাকে সুখে রেখেছেন বলেই আপনাকে পছন্দ করে । আপনি তার নিকট যা কিছু চান সে আপনার সব চাহিদা পরা করতে অক্ষম । যতটুকু প্রেম সে প্রকাশ করে তার পুরোটা সত্য নই । আপনার পর যে কোন পুরুষই তার জিবনে আসবে তাকে সে আপনার মতই ভালবাসবে ও পছন্দ করবে । আপনি আপনার দাসিটির জন্য যে মূল্য চেয়েছেন তার তুলনায় অনেক কম মূল্যে আমি এমন এক দাসী ক্রয় করব যা কাফুর, মিশক এবং রত্ন দিয়ে তৈরি । তার লালা সমুদ্রের পানিতে মিশ্রিত করলে সমুদ্রের লবনাক্ত পানি মিষ্টি হয়ে যাবে । তার মিষ্টি কন্ঠের ডাক শুনলে মৃতও সাড়া দেবে । যদি তার হাতের কব্জি প্রকাশ হয়ে পড়ে তবে সূর্য অন্ধকারচ্ছন্ন হয়ে যাবে, তাতে গ্রহন লেগে যাবে । আধার আলোকিত ও উজ্জ্বল হয়ে উঠবে । যদি সে তার পোশাক ও অলংকারসহ দিগন্তে দৃশ্যমান হয় তবে অসিম ও অনন্ত দিগন্ত সুগন্ধ ও অলংকৃত হয়ে উঠবে । সে বেড়ে উঠেছে মিশক জাফরানের বাগানে, ইয়াকুতের তৈরি ঘরে । নিয়ামতের তাবুর অভ্যন্তরেই সে কেবল বিচরন করেছে এবং তাসনিম নামক ঝর্নার পানি দারা তার তৃষ্ণা নিবারন করেছে । সে তার ওয়াদার খেলাফ করে না তার ভালবাসা পরিবর্তন হয় না । তাহলে এদুজন দাসীর মধ্যে কে বেশি মুল্য পাওয়ার যোগ্য ।
ধনী ব্যক্তিটি বললঃ আপনি যে মেয়েটির কথা বলেছেন সেই বেশি মুল্যের যোগ্য ।
মালিক ইবনে দিনার বললেনঃ এমন মেয়ে বিদ্যমান এবং সহজলভ্য । তা ক্রয়ের জন্য যে কোন মুহুর্তে প্রস্তাব করা যেতে পারে । লোকটি বলল, আল্লাহ্* আপনাকে রহম করুন তার মূল্য কি ?
তিনি বুললেনঃ পছন্দনিয় কিছু পাওয়ার জন্যে সবচেয়ে কম যা ব্যয় করা হয় তাই তার মূল্য । শুধু এতটুকু যে তুমি তোমার রাতের একটি অংশে সকল বেস্ততা থেকে অবসর নিয়ে ইখলাছের সহিত দুরাকা সালাত পড়বে । তোমার খাবার সামনে হাজির হলে নিজে অভুক্ত থেকেও ক্ষুধার্ত ব্যক্তিকে খাওয়াবে । অথবা পথ হতে পাথর বা আবর্জনা সরিয়ে ফেলবে। কম এবং প্রয়োজনীয় পরিমানে সন্তুষ্ট থেকেই এই দুনিয়ার জীবন অতিবাহিত করবে । এই ধুকা ও প্রতারনাময় জিন্দিগী যেন তোমার মনোযোগ আকর্ষণ না করে । তুমি এখানে অল্পে তুষ্ট হলে আগামিকাল কিয়ামতের দিন নিরাপদে সম্মানিত অবস্থানে অধিষ্ঠিত হতে পার্বে । এবং মহা সম্মনিত প্রভুর সান্নিধ্যে সুখময় স্থানে চিরস্থায়ী হতে পারবে ।

TawhidWahid
03-20-2016, 09:29 PM
Subhan Allah

qasim
03-21-2016, 06:23 AM
জাযাকাল্লাহ খাইর