PDA

View Full Version : ইসরাইলের বর্তমান অবস্থা নাৎসি জার্মানির মতো : ইসরাইলি জেনারেল



ABU SALAMAH
05-09-2016, 09:33 AM
hbv
http://www.bd2day.net/records/news/201605/211771_1.jpg

সামরিক বাহিনীর উপ-প্রধান মেজর জেনারেল ইয়াইর গোলান নাৎসি জার্মানির সাথে বর্তমান ইসরাইলি সমাজের তুলনা করেছেন।


বার্ষিক হলোকাস্ট ডে বা ইহুদি নিধনযজ্ঞ স্মরণ দিবস পালনের প্রাক্কালে এই জেনারেল বলেন, ১৯৩০ এর দশকে নাৎসি জার্মানিতে অসহিষ্ণুতার যে ঘৃণ্য প্রকাশ ঘটেছিলো সে রকম কিছু প্রবণতা তিনি এখনকার ইসরাইলি সমাজে দেখতে পাচ্ছেন।


তার এই বক্তব্যের পর ইসরাইলে তাকে ঘিরে বড় রকমের আলোচনা শুরু হয়েছে।

অনেকে তাকে বরখাস্ত করারও দাবি জানিয়েছেন।


প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু এই জেনারেলের তীব্র সমালোচনা করতে গিয়ে তাকে ভর্ৎসনা করে বলেছেন, এধরনের বক্তব্য ক্ষোভের জন্ম দিয়েছে। এসব কথাবার্তায় হলোকাস্টকে সস্তা করে ফেলা হয়েছে এবং এসবের মাধ্যমে ইসরাইলের ক্ষতি করা হয়েছে।

তিনি বলেছেন, ৮০ বছর আগে নাৎসি জার্মানিতে যা ঘটেছিলো তার সাথে তুলনা দিয়ে ইসরাইলি সমাজের সাথে অন্যায় করা হয়েছে।

তার মতে এধরনের বক্তব্য কিছুতেই গ্রহণযোগ্য নয়।


ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, জেনারেল ইয়াইর গোলান মন্তব্য করেছেন, মানুষের প্রকৃত স্বভাব কী সেটা আমাদের দেখা উচিত। এমন কি সেটা যদি আমরা নিজেরাও হই তাহলেও সেটা দেখা উচিত।


তিনি বলেন, যদি কোনোকিছু আমাকে ভীত-সন্ত্রস্ত করে থাকে সেটা হলো হলোকাস্টের স্মৃতি, ইউরোপে যা ঘটেছিলো, বিশেষ করে ৭০,৮০ এবং ৯০ বছর আগের জার্মানিতে। এবং আজকের দিনে, ২০১৬ সালে, আমাদের মধ্যে সেই একই জিনিসও দেখতে পাওয়াটাও খুব ভয়ের।

বিদেশিদের ঘৃণা করার চেয়ে সহজ আর কিছু নেই...যা ভয়ের জন্ম দেয়। বলেন এই ইসরাইলি জেনারেল।


ইসরায়েলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী মোশে ইয়ালন, সামরিক প্রধান এবং আরো কিছু কর্মকর্তা জেনারেল গোলানের বক্তব্যকে সমর্থন করেছেন।

তারা বলছেন, জেনারেল গোলানের এই বক্তব্যে ইসরাইলি সমাজের বর্তমান কিছু সমস্যা উঠে এসেছে।



উৎসঃ নয়া দিগন্ত

ABU SALAMAH
05-09-2016, 09:35 AM
লন্ডন নগরীর সাবেক মেয়র কেন লিভিংস্টোন বলেছেন, ইসরাইল সৃষ্টি ছিল একটি বড় দুর্যোগ বা বিপর্যয় এবং তা বিশ্বকে একটি সম্ভাব্য পরমাণু যুদ্ধের দিকে নিয়ে যেতে পারে। ফিলিস্তিনকে জবরদখল করে সেখানে ইসরাইল গঠনের কাজটি একটি মৌলিক ভুল ছিল বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন।



লিভিংস্টোন এর আগে বলেছিলেন, হিটলার ছিলেন ইহুদিবাদী। লেবার দলে তার এক সহকর্মী ইসরাইলকে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে যাওয়া উচিত বলে যে মন্তব্য করেছেন-তার প্রতিও তিনি সমর্থন দিয়েছেন। আর এসবের পরিণতিতে লেবার দলে লিভিংস্টোনের সদস্যপদ স্থগিত রাখা হয় গত সপ্তায়।


আরবি টেলিভিশন আল গ্বাদ আল আরবি-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে লন্ডনের সাবেক মেয়র বলেছেন, ফিলিস্তিনকে জবরদখল করে সেখানে ইসরাইল গঠনের কাজটি একটি মৌলিক ভুল ছিল, কারণ ফিলিস্তিনি জাতি এ অঞ্চলে বসবাস করে আসছে দুই হাজার বছর ধরে।

লিভিংস্টোনের এই সাক্ষাতকারের অনুবাদ প্রকাশ করেছে মিডলইস্ট মিডিয়া রিসার্চ ইন্সটিটিউট। সাক্ষাতকারের একাংশে তিনি বলেছেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ব্রিটেন ও আমেরিকায় ইহুদিদের পুনর্বাসন করে কিছু উত্তেজনা নিরসন করা যেত।


লন্ডনের সাবেক মেয়র বলেছেন, তাদের অর্থাৎ সব ইহুদিকেই পুনর্বাসন করা যেত, অথচ ৭০ বছর পর আজও পরিস্থিতি উত্তেজনাপূর্ণ রয়ে গেছে এবং পরমাণু যুদ্ধসহ আরও অনেক যুদ্ধ হতে পারে এই কারণে।


ইসরাইল-বিরোধী বক্তব্য রাখার দায়ে গত দুই মাসে ব্রিটেনের প্রধান বিরোধী দল লেবারের অন্তত ৫০ জনের সদস্যপদ স্থগিত রাখা হয়েছে। এসব বক্তব্যকে সেমিটিক-বিরোধী বলে উল্লেখ করছে ইসরাইলপন্থী ও ইহুদিবাদী মহল।
অথচ সেমিটিক বলতে আরবদেরও বোঝায়। সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএল বা দায়েশ সৃষ্টিতেও ইসরাইলের হাত ছিল এবং ইসরাইল দায়েশকে মদদ যুগিয়ে যাচ্ছে বলেও লেবার দলের কোনো কোনো সদস্য মন্তব্য করেছেন।

আইআরআইবি