PDA

View Full Version : আল্লাহর পথে লড়াইরত মুজাহিদদের প্রতি রাসূ



Osama
07-31-2015, 08:57 PM
আল্লাহর পথে লড়াইরত মুজাহিদদের প্রতি রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর উপদেশ
লিখেছেন: ভাই আবু হাসান আলী আল আ’রজানি আল কুয়েতি (মহান আল্লাহ তাকে রক্ষা করুন)

http://anonym.to/?http://justpaste.it/mpn8

titumir
08-02-2015, 02:11 AM
সারসংক্ষেপ:
জেনে রাখুন - আপনাদের উপর মহান আল্লাহ’তায়ালার রহমত বর্ষিত হোক। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যে সব কাজ করতে আদেশ করেছেন, যে সব কাজ করতে নিষেধ করেছেন, যে সব কাজ সুন্নাহ হিসেবে পালন করতে বলেছেন এবং আচার-আচরণ, নৈতিকতা, সুনীতি সম্পর্কিত যেসব কাজ করতে তিনি উৎসাহিত করেছেন, তার সবকিছু রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর উপদেশে উপস্থাপিত হয়েছে। যখন সাহাবা (রা:) গণদের নিকট রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর উপদেশ সম্পর্কে বলা হত, তারা বলতঃ “ আল্লাহর কিতাবের উপর পরিপূর্ণ আনুগত্য রাখতে তিনি আমাদের আদেশ দিতেন। ”

এই ক্ষেত্রে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর উপদেশে এর অর্থ পরিপূর্ণভাবে বুঝার জন্য, আমরা সহিহ হাদিস বর্ণনা করব। যার মাধ্যমে মহান আল্লাহর পথে মুজাহিদগণ তাদের দৈনন্দিন জীবনে উপকৃত হতে পারবে এবং এগুলো অনুসরণ করার মাধ্যমে তারা শরিয়াহ অনুযায়ী কাজ করতে পারবে এবং যা করতে ইসলাম নিষেধ করেছে তা তারা বর্জন করতে পারবে। এবং ইসলামের নৈতিক বৈশিষ্ট্য সমূহ তার ব্যক্তিগত জীবনে প্রয়োগ এর মাধ্যমে সে একজন অনুকরণীয় আদর্শ হয়ে উঠবে এবং তার উত্তম ব্যবহার ও আচার-আচরণ এর ব্যাপারে মুসলিম জনসাধারণ সাক্ষ্য দিবে। তিনি মুসলিম জনসাধারণকে শরিয়াহ অনুযায়ী পরিচালিত করবেন।

যেসব ব্যক্তিবর্গ, নেতাগণ ও মুজাহিদীন দল ইসলামের বার্তা এবং ইসলামের শরিয়াহ আইন বহন করে। তাদেরকে সাধারণ জনসাধারণ ও সাধারণ মানুষ জীবন্ত উদাহরণ হিসাবে দেখে থাকে। এই কারণে আমাদের একটি নির্দিষ্ট পর্যায়ে অবশ্যই পৌছাতে হবে এবং এই যুগে মহান আল্লাহ্* তায়ালা আমাদের যে স্তরের সম্মান দিয়ে ভূষিত করেছেন তা আমাদের অনুধাবন করতে হবে। এবং ল্লাহর কালিমাকে বুলন্দ করার জন্য, একজন আল্লাহর রাস্তায় জিহাদ করার মাধ্যমে যে দায়িত্ব কাঁধে নেয় তার গুরুত্ব অপরিসীম।

নবীদের সর্দার এবং মানবজাতির জন্য দয়ালু মোহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে অনুসরণ, তার দেখানো উদাহরণ, তার উত্তম ব্যবহার ও আচার-আচরণ আমাদের ব্যক্তি জীবনে ও আমাদের পারিবারিক জীবনে অর্জন না করা পর্যন্ত আমরা জিহাদ এর মাধ্যমে আল্লাহর পথে লড়াই, দাওয়াহ(প্রচারণা/বিস্তার), নৈতিকতা, শিক্ষা দান করা এবং উত্তম ব্যবহার করে যাব।

অধ্যায়: ইসলামের কোন গুণটি সর্বোত্তম ?
অধ্যায়ঃ নিশ্চয়ই দীন সহজ
অধ্যায়ঃ শুভ সংবাদ দাও এবং দীনের ক্ষেত্রে কোন বিরাগ সৃষ্টি করো না
অধ্যায়ঃ ইসলামিক ভ্রাতৃত্ব এবং এর দাবী
অধ্যায়ঃ ঈমানের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হল, একজন মুসলিম তার নিজের জন্য যা ভালোবাসবে, সে তা তার অন্য মুসলিম ভাই এর জন্যও ভালোবাসবে।
অধ্যায়ঃ শ্রেণীবিভাজন ও হিযবিইয়াহ (বিভক্তি) এবং আসাবিইয়াহ (একটি দলের প্রতি আনুগত্য) হারাম
অধ্যায়ঃ মুসলিমকে তাচ্ছ্বিল্য করা বা তাকে ত্যাগ করা হারাম
অধ্যায়ঃ একে অন্যকে ঘৃণা ও হিংসা করা হারাম।
অধ্যায়ঃ সন্দেহ পোষণ করা, গুপ্তচর-বৃত্তি, পরস্পর প্রতিদ্বন্দিতা, অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, বিদ্বেষপোষণ করা হারাম
অধ্যায়ঃ গীবত করা এবং গুজব ছড়ানো হারাম ।
অধ্যায়ঃ মন্দ এবং গর্হিত কথা বলা হারাম
অধ্যায়ঃ একজন মুসলিমকে কটূক্তি করা হারাম
অধ্যায়ঃ আলাদুল খিসাম (ঝগড়া পছন্দকারী ব্যক্তি) এর প্রতি ধমক
অধ্যায়: অসৎ কাজ/ধোঁকা দেয়া হারাম
অধ্যায়: বিশ্বাসঘাতকতা করা হারাম
অধ্যায়: অঙ্গীকার পূর্ণ করা।
অধ্যায়ঃ উত্তম শিষ্টাচার এবং সৎসঙ্গ
অধ্যায়ঃ কারো সাথে সাক্ষাতের সময় হাসি মুখে থাকা
অধ্যায়ঃ মানুষের মধ্যে সবচেয়ে উত্তম ব্যক্তি হল সে, যার হৃদয় পবিত্র এবং যে তার কথার ব্যাপারে সরল
অধ্যায়ঃ ক্ষমা এবং নম্রতা
অধ্যায়ঃ জ্ঞানী ও গুরুজনদের সম্মান করা
অধ্যায়ঃ লোক দেখানো কাজ করা এবং স্বীকৃতি ও মর্যাদা কামনা করা নিষিদ্ধ
অধ্যায়ঃ অত্যাচার করা নিষিদ্ধ
অধ্যায়ঃ অত্যাচারিত ব্যক্তির প্রার্থনাকে ভয় করা।
অধ্যায়ঃ চলার পথের হক
অধ্যায়ঃ রাস্তা থেকে কষ্টদায়ক বস্তু সরিয়ে ফেলা
অধ্যায়ঃ মুসলিমদের সন্মান, সম্পদ এবং রক্তের পবিত্রতা ।
অধ্যায়ঃ মুজাহিদ এবং মুসলমানদের সন্মানের পবিত্রতা রক্ষা করা
অধ্যায়ঃ আল্লাহ্* তায়ালার কথা সবোচ্চ পর্যায়ে নেয়ার জন্য জিহাদ করা।
অধ্যায়ঃ আল্লাহ্*র পথে রিবাতের গুরুত্ব
অধ্যায়ঃ আল্লাহ্*র পথে পাহারা দেয়ার গুরুত্ব
অধ্যায়ঃ শত্রুর ব্যূহ ভেদ করে শত্রুর ভিতরে প্রবেশ করার গুরুত্ব
অধ্যায়ঃ শত্রুর সঙ্গে মিলিত হওয়ার সময় ধৈয ধারণের গুরুত্ব
অধ্যায়ঃ লড়াই এর গুরুত্ব
অধ্যায়ঃ আল্লাহ্*র পথে লক্ষ্যভেদ/নিশানাভেদ করার গুরুত্ব
অধ্যায়ঃ আল্লাহ্*র পথে শহীদ হওয়ার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান
অধ্যায়ঃযুদ্ধের ময়দান হতে পলায়ন করা নিষিদ্ধ
অধ্যায়ঃ আল্লাহ্*র পথে গাজওয়া (লড়াইয়ে অবতীর্ণ হওয়া)
অধ্যায়ঃ যুদ্ধ ক্ষেত্রে খাদ্য ভাগাভাগি করে খাওয়া
অধ্যায়ঃ শোনা এবং মানা
অধ্যায়ঃ নেতৃত্ব (তোমরা সবাই অভিভাবক এবং তোমাদের অধীনে যারা রয়েছে তাদের ব্যাপারে তোমরা দায়বদ্ধ)
অধায়ঃ নেতৃত্ব চেয়ে নিলে জিজ্ঞাসিত হতে হবে (আল্লাহর সাহায্য পাবে না)


পরিশেষঃ হে আল্লাহ! পরিস্থিতি মুজাহিদদের অনুকুলে করে দিন, তাদের আখলাক সমুন্নত করে দিন এবং তাদের কে আপনার শত্রু তথা তাদের শত্রুদের বিরুদ্ধে সাহায্য করুন।

সমস্ত প্রসংসা আল্লাহর যিনি সারা জাহানের মালিক।

শিক্ষা: আমাদের আরও নিষেধ করা হয়েছে পরস্পরকে হিংসা না করতে, অশুভ কামনা না করতে এবং পরস্পরের মধ্যে লড়াই না করতে। মুসলিম ভ্রাতৃত্ব মানুষের জন্য সৌভাগ্যের বিষয়। কিন্তু এই মিথ্যা দুনিয়ার মিথ্যা আশায় এবং মিথ্যা সন্দেহের কারণে যদি এই ভ্রাতৃত্বের মধ্যে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয় তবে তার ফলে মুসলমানদের শক্তিমত্তায় দুর্বলতা সৃষ্টি হবে, মুসলমানরা শাসন ক্ষমতা থেকে দূরে সরে যাবে এবং মুসলমানদের শত্রুরা মুসলমানদের শাসন করবে।

power
08-02-2015, 03:21 AM
আল্লাহ্* যেন আমাদের সকল দ্বীনি ভাইদেরকে সকল প্রকার ফিতনাহ আর তাগুতের বাহিনী থেকে হেফাজত করেন।
Ameen.