PDA

View Full Version : ধর্মনিরপেক্ষ জাতীয়তাবাদীরা সর্বদাশাসন মানেই ধ্বংস আর বিশৃঙ্খলা।



Mohammad al bengali
09-09-2016, 02:21 PM

Mohammad al bengali
09-09-2016, 08:12 PM
ধর্মনিরপেক্ষ এবং জাতীয়তাবাদীরা সর্বদা এমন এক ন্যাকা সুরে কথা বলে যেন ইসলামের ভিত্তিতে প্রতিবাদ, প্রতিরোধ, শাসন মানেই ধ্বংস আর বিশৃঙ্খলা। এভাবে তারা 'জিহাদ', 'খিলাফাহ' এই মহান শব্দগুলো সমাজে ট্যাবু বানিয়ে ফেলেছে। তারা এমনভাবে কথা বলে যেন, তাদের ধর্মনিরপেক্ষতা, তাদের জাতীয়তাবাদ, আর গণতন্ত্র-সমাজতন্ত্র খুব মাসুম, নিরীহ গোবাচোরা আর প্রচুর মানবতাবাদী। অন্যায় রক্তপাত তো দূরের কথা, ন্যায়ভাবে তারা রক্তপাতে রাজি না।
.
লুৎফর রহমান বাবরের কথা মনে আছে? এখন তার কি হাল? সে তো বিএনপি আমলে ইসলামপন্থী বোমবাজদের বিরুদ্ধে কত কিই না করেছিল। এমন একটা ভাব তারা ধরেছিল যেন তারা প্রচুর মাসুম; বোমাবাজি, সন্ত্রাস তারা পছন্দ করে না। পরে কি দেখা গেল? একুশে আগাস্ট বোমা হামলা তারাই করিয়েছে, এবং সেটা জঙ্গীদের ঘাড়ে চাপিয়ে নিজেদের আড়াল করতে চেয়েছিল।
.
ইতিহাস ঘাটুন। সকল তথ্য-উপাত্ত একসাথ করুন। দেখবেন ইসলামের নামে যত অন্যায় হয়েছে, তার চেয়ে অনেক বেশিগুন অন্যায় কলোনিস্টদের দাস ধর্মনিরপেক্ষ, গণতান্ত্রিক এইসব জাতীয়াতাবাদীরা করেছে, এবং করছে। তারপরও কিন্তু তারা গণতন্ত্র, ধর্মনিরপক্ষতা, জাতীয়তাবাদের গায়ে এতটুকু কালিমা লেপন হতে দেয় না, কিন্তু ইসলামের ক্ষেত্রে এতটুকু সুযোগ পেলে তারা ছাড়ে না। যেমন: "জিহাদি বই উদ্ধার" এ যেন এক মস্ত বড় অন্যায়।
.
অথচ বাস্তবতা হচ্ছে, "চোরের মায়ের বড় গলা" !! বিশৃঙ্খলা, দুর্নীতি, জনগণের সম্পদ লুটপাট, প্রকাশ্যে নির্লজ্জ মিথ্যাচার, এমনকি জনসাধারণকে ক্ষমতার জন্য হত্যা, রাজনৈতিক ফায়দার জন্য জনগণকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়া, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, দূর্বলকে ধ্বংস করে ফেলা, এইসকল কিছু এইসব ধর্মনিরপেক্ষ জাতীয়তাবাদীদের মধ্যেই বেশি পাওয়া যায়। তারা যেমন জঙ্গীদের উগ্রপন্থী, চরমপন্থী বলে প্রচারণা চালায়, কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে তারাই মূলত উগ্রপন্থী এবং চরমপন্থী, এবং তাদের তুলনায় জঙ্গীদের মধ্যে উগ্রপন্থা, চরমপন্থা নিতান্তই শিশু বলা চলে।
.
এই যে যারা মানবতার কথা বলে, শৃঙ্খলার কথা বলে, কিন্তু আল্লাহর কথা বলে না, ইসলামের কথা বলে না, আপনারা কি সত্যি মনে করেন যে সে আসলেই মানবতা আর শৃঙ্খলার কথা বলে? কখনোই না! সে যার নুন খাচ্ছে তার কথা বলছে। এইসব মানবতা আর শৃঙ্খলা তো শুধু মুখের বুলি, যেন সমাজে নিজের একটা একটা অবস্থান তৈরী করতে পারে। ভালো মানুষীর মুখোশ পরা এইসব লোকেরা মদ, জুয়া, সুদ, নারী ব্যাবসা আরো যতসব অনাচার সমাজে বৈধ রেখেছে, এবং তারা নিজেরাই আড়ালে এইসব ব্যাবসার সাথে জড়িত। এবং তারা ছাড়া আর কে আছে এই ব্যাবসা করার?
.
এখনো কি তাহলে সময় আসে নি, এইসব তাসের মসনদকে ধ্বংস করার? মু'মিনদের নিঃশ্বাসেই তো এদের মাকড়শার জাল ছিন্নভিন্ন হয়ে যাওয়ার কথা ছিল। তাহলে হয় আমাদের মধ্যে আর মু'মিন নেই, নতুবা মু'মিনের নিঃশ্বাস ফেলতে ভুলে গেছে, তারা আজ মৃত। যারা আছে সকলেই তাদের পায়ুপথ চাটতে ব্যস্ত। যখন তাদের আল্লাহর কথা শোনানো হয়,
.
۞ يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا لَا تَتَّخِذُوا الْيَهُودَ وَالنَّصَارَىٰ أَوْلِيَاءَ ۘ بَعْضُهُمْ أَوْلِيَاءُ بَعْضٍ ۚ وَمَن يَتَوَلَّهُم مِّنكُمْ فَإِنَّهُ مِنْهُمْ ۗ إِنَّ اللَّهَ لَا يَهْدِي الْقَوْمَ الظَّالِمِينَ [٥:٥١]
হে মুমিণগণ! তোমরা ইহুদী ও খ্রীষ্টানদেরকে ওয়ালী হিসাবে গ্রহণ করো না। তারা একে অপরের ওয়ালী। যারা তা করবে, তারা তাদেরই অন্তর্ভুক্ত। আল্লাহ যালিমদের পথ প্রদর্শন করেন না।
﴿٥١﴾
فَتَرَى الَّذِينَ فِي قُلُوبِهِم مَّرَضٌ يُسَارِعُونَ فِيهِمْ يَقُولُونَ نَخْشَىٰ أَن تُصِيبَنَا دَائِرَةٌ ۚ فَعَسَى اللَّهُ أَن يَأْتِيَ بِالْفَتْحِ أَوْ أَمْرٍ مِّنْ عِندِهِ فَيُصْبِحُوا عَلَىٰ مَا أَسَرُّوا فِي أَنفُسِهِمْ نَادِمِينَ [٥:٥٢]
বস্তুতঃ যাদের অন্তরে রোগ রয়েছে, তাদেরকে আপনি দেখবেন, দৌড়ে গিয়ে তাদেরই মধ্যে প্রবেশ করে। তারা বলে, "আমরা আশঙ্কা করি, পাছে না আমরা কোন দুর্ঘটনায় পতিত হই।" অতএব, সেদিন দূরে নয়, যেদিন আল্লাহ তাআলা বিজয় প্রকাশ করবেন অথবা নিজের পক্ষ থেকে কোন নির্দেশ দেবেন-ফলে তারা স্বীয় গোপন মনোভাবের জন্যে অনুতপ্ত হবে।
﴿٥٢﴾
.
তখন তারা কি বলে সেটা আল্লাহ আমাদের আগেই বলে দিয়েছেন। তিনি কী তা দেন নি? তিনি কি পথপদর্শন করেন নি? তিনি কি সত্য আর মিথ্যা স্পষ্ট করে দেন নি? তাহলে আমরা তার কোন অনুগ্রহকে অস্বীকার করব? পরকালে কিভাবে তাকে বলবে যে আমার সামনে সত্য আর মিথ্যা স্পষ্ট ছিল না? আমরা নিজেরাই নিজেদেরই জিজ্ঞেস করি!
অন্যের কথাই কান না দিয়ে সত্য জানার চেষ্টা করুন।
কোরআন পড়ুন, বুঝে পড়ুন। কোরআনে তো আল্লাহ সব সমস্যার সঠিক সমাধান দিয়ে দিয়েছেন, তাই নাহ!! তাহলে আর চিন্তা কিসের?
কোরআনে আল্লাহ কি বলেছেন তা উপলব্ধি করার চেষ্টা করুন, ইসলাম সম্পর্কে সঠিক ভাবে জানার চেষ্টা করুন এবং আল্লাহর কাছে সাহায্য চান...মন থেকে দুয়া করুন।

tipo soltan
09-10-2016, 02:22 AM
বড় বড় নির্বোধ ছিল এবং এখনো আছে এ দেশে, এরা বলে আমরা বি এন পি’র সাথে মিলেছি কারণ এরা ইসলামি মূল্যবোধ রাথে । ঐ কাপুরুষদেরকে কেউ কেউ আবার বাংলার বীর আখ্যায়িত করে । গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে যারা জড়িত তারা সবাই জিহাদের বিরুধীতার ক্ষেত্রে সমান। কেউ কারো চেয়ে কম না।

Musab Umar
09-10-2016, 03:26 PM
বেঙ্গলী ভাই এর লেখার উপর ভিত্তি করে জনসচেতনা মূলক ভিডিও ডকুমেন্টরীর প্রয়োজন আছে বর্তমান সময়ে, মিডিয়ার ভাইদের কাছে আবেদন রইল ।

Mohammad al bengali
09-29-2016, 11:59 PM
musad umar vai সাথে একমত।