PDA

View Full Version : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট এবং জাতিসংঘ কর্তৃক যেই আলিমকে বিশ্বের শীর্ষ সন্ত্রাসীর তাল&



umar mukhtar
09-27-2016, 11:03 PM
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট এবং জাতিসংঘ কর্তৃক যেই প্রখ্যাত দেওবন্দী আলিমকে বিশ্বের শীর্ষ সন্ত্রাসীর তালিকাভূক্ত করা হয়েছিলো।

অপরাধঃ তালিবান,আল-কায়েদাকে সহযোগিতা করা !

#ভাই Sinan Hannad এর একটি পোস্ট...........

"...তৃতীয় কারন; যার প্রতি অনেক ভালো ভালো লোকের ও মনোযোগ নেই, যেটা হচ্ছে সবচে' বড় অপরাধ সবচে' বড় গুনাহ, তা হল জিহাদ ফি সাবিলিল্লাহ থেকে উদাসিনতা..."- মুফতিয়ে আজম রশীদ আহমদ লুধিয়ানভি রাহিমাহুল্লাহ

---
মুফতি রশিদ আহমদ লুধিয়ানভি ১৯২২ সালে জন্মগ্রহন করেন। ১৯৪১ সালে দারুল উলুম দেওবন্দ থেকে দাওরায়ে হাদীস শেষ করেন। তিনি ছিলেন শাইখুল ইসলাম হুসাইন আহমদ মাদানী রাহিমাহুল্লাহ এর অন্যতম প্রিয় ছাত্র এবং মুরীদ। তার ইন্তেকালের পর আশরাফ আলি থানভি রাহিমাহুল্লাহ এর খলীফা মাওলানা আব্দুল গনি ফুলপুরির কাছে বাইয়াত হন।

২০০২ সালে তিনি ইন্তেকাল করেন। দীর্ঘ শিক্ষকতা জীবনে তার কাছে অনেক ছাত্র জামে' বুখারি পড়েছেন। এর মধ্যে আছেন মুফতি তাকি উসমানি, রফি উসমানি প্রমুখ। বিখ্যাত ফতোয়া সঙ্কলন 'আহসানুল ফাতাওয়া' তার লেখা অন্যতম কিতাব। মুফতি শফী রহঃ এর ইন্তেকালের পর তাকে বলা হত পাকিস্তানের মুফতিয়ে আজম।

(এই প্যারাটি হাঁসতে হাঁসতে পড়ুন!-ওমর মুখতার)
আফসোসের বিষয়, দীর্ঘ ৫৫ বছরের ও বেশি সময় হাদীস পড়ালেও-ফতোয়া দিলেও দীনের সঠিক বুঝ তার মধ্যে আসেনি। আর তাই তিনি বুঝতে পারেননি, আল কায়দা যে আমেরিকার এজেন্ট। বুঝতে পারেন নি, এই আবেগি লোকগুলো উম্মাহর জন্য কত ক্ষতিকর। হিকমাহ যে কী জিনিষ তা হয়ত জানা ছিল না তার। অথচ, বাংলাদেশে তার ছাত্রের ছাত্র বয়সি যুগ সচেতন উলামারা এই বিষয় কত সহজেই উপলদ্ধি করতে পেরেছেন। হিকমাহ অবলম্বনে তারা কত অগ্রসর। (?)

তো এই ভুল বুঝের কারনে তিনি ছিলেন আল কায়দা-তালিবানের প্রকাশ্য সমর্থক। শুধু সমর্থন করেই ক্ষান্ত হননি তিনি, তার প্রতিষ্ঠিত আর-রাশীদ ট্রাস্টের মাধ্যমে সাধ্যানুযায়ি জঙ্গিদের কখনো আর্থিক ভাবে, কখনো চিকিৎসা দেয়ার মাধ্যমে সহযোগিতা করেছেন। শোনা যায়, কান্দাহার থেকে আল কায়দার শীর্ষস্থানীয় নেতাদের ও তাদের পরিবারকে সরিয়ে আনার ক্ষেত্রেও তিনি ভুমিকা পালন করেছেন। তাই যুক্তিযুক্ত কারনেই তার নাম উঠে যায় বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় জঙ্গিদের তালিকায়।

মার্কিন ট্রেজারি ডিপার্টমেন্টের সেই ঘোষণার লিংক........ https://www.treasury.gov/press-center/press-releases/Pages/po689.aspx

জাতিসংঘের লিংক.... http://www.un.org/press/en/2001/afg169.doc.htm

এছাড়া আরো দেখুন.......

এছাড়া আরো দেখুন.......

https://www.theguardian.com/…/oct/13/afghanistan.terrorism16

http://www.satp.org/…/…/terroristoutfits/Al-Rashid_Trust.htm
https://www.facebook.com/permalink.php?story_fbid=300347410348752&id=100011204868334

Anower AL Hind
09-27-2016, 11:15 PM
আল-কায়েদা, তালিবান আমিরিকার এজেন্ট!!!!!!!!!!!

arman
09-28-2016, 01:49 AM
জাযাকাল্লাহ

Mullah Murhib
09-28-2016, 08:18 AM
আল-কায়েদা, তালিবান আমিরিকার এজেন্ট!!!!!!!!!!!


এমন লোকও প্রচুর পরিমাণ রয়েছে, যারা তালিবানকে সমর্থন করে, মোল্লা ওমর রহ. কে বুজুর্গ বলে সম্বোধন করে; অথচ আল কায়েদা এবং শায়খ উসামা রহ. কে আমিরিকার এজেন্ট বলে। এরা এতটুকু খবর রাখেনা যে, শায়খ উসামা রহ. মোল্লা ওমর রহ. এর হাতে বাইয়াত দিয়েই তালিবান-আল কায়েদা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমিরিকার বিরুদ্ধে লড়াই করেছে। এবং আজও উভয়ের অনুসারীগণ ময়দানে একসাথেই আমিরিকা ও তার মিত্রদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। আজও আল কায়েদার প্রত্যেক সদস্যের বাইয়াত তালিবানের নতুন আমিরের হাতে। যারা এমন বিভ্রান্তিতে নিপতিত তাদের বলছি... এক উসামার জন্যই হাজার হাজার তালিবান শাহাদাতের পথ বেছে নিয়েছে;তবুও তাঁকে আমেরিকার নাপাক হাতে উঠিয়ে দেয়নি। তারা তো দীপ্ত কণ্ঠে বলেছিল; পুরো আফগান ধ্বংস হয়ে যেতে পারে; তবুও উসামাকে আমেরিকার হাতে তুলে দেবো না। এবং তাই হয়েছে; আরও জেনে নিন, শায়খ উসামা রহ.কে কারা শাহীদ করেছে।

Anower AL Hind
09-28-2016, 10:37 AM
এমন লোকও প্রচুর পরিমাণ রয়েছে, যারা তালিবানকে সমর্থন করে, মোল্লা ওমর রহ. কে বুজুর্গ বলে সম্বোধন করে; অথচ আল কায়েদা এবং শায়খ উসামা রহ. কে আমিরিকার এজেন্ট বলে। এরা এতটুকু খবর রাখেনা যে, শায়খ উসামা রহ. মোল্লা ওমর রহ. এর হাতে বাইয়াত দিয়েই তালিবান-আল কায়েদা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমিরিকার বিরুদ্ধে লড়াই করেছে। এবং আজও উভয়ের অনুসারীগণ ময়দানে একসাথেই আমিরিকা ও তার মিত্রদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। আজও আল কায়েদার প্রত্যেক সদস্যের বাইয়াত তালিবানের নতুন আমিরের হাতে। যারা এমন বিভ্রান্তিতে নিপতিত তাদের বলছি... এক উসামার জন্যই হাজার হাজার তালিবান শাহাদাতের পথ বেছে নিয়েছে;তবুও তাঁকে আমেরিকার নাপাক হাতে উঠিয়ে দেয়নি। তারা তো দীপ্ত কণ্ঠে বলেছিল; পুরো আফগান ধ্বংস হয়ে যেতে পারে; তবুও উসামাকে আমেরিকার হাতে তুলে দেবো না। এবং তাই হয়েছে; আরও জেনে নিন, শায়খ উসামা রহ.কে কারা শাহীদ করেছে।

ওমার মূকতার ভাইয়ের পোষ্টটির মিডল প্যাঁরা পরলে যে কেউ ধারনা করবে উনি আল কায়েদা তালিবান কে আমিরিকার এজেন্ট বলেছেন...

এখন অবশ্য ভাই পোষ্টটি এডিট করে "এই প্যারাটি হাঁসতে হাঁসতে পড়ুন" লিখেছেন।

জাযাকাল্লাহ # মুল্লাহ মুরহিব #ওমার মূকতার ভাই...