PDA

View Full Version : মুফতি হান্নানের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ, ফাঁসি চলতি সপ্তাহেই!।। আল্লাহ্ তাকে হেফাযত করুন।।।



Abu Osama
04-09-2017, 10:10 AM
মুফতি হান্নানের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ, ফাঁসি চলতি সপ্তাহেই!
09/এপ্রিল/2017, 00:55thebengalitimes.com
ছবিটি লোড করতে ক্লিক করুন
মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জঙ্গি নেতা মুফতি হান্নানের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ। জেলকোড অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাস্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

শনিবার রাতে একাধিক গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান মন্ত্রী। এর আগে শনিবার সকালে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর আদর্শ মহিলা ডিগ্রি কলেজে নবীনবরণ অনুষ্ঠান যোগ দেন স্বরাস্ট্রমন্ত্রী। এসময় সাংবাদিকরা মুফতি হান্নানসহ তিন জঙ্গির প্রাণভিক্ষার আবেদনের ব্যাপারে মন্ত্রী কাছে জানতে চান। জবাবে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, মুফতি হান্নানের ফাঁসির বিষয়ে সর্বোচ্চ আদালতের রায় এসে গেছে। মহামান্য রাস্ট্রপতির সিদ্ধান্তও এসে গেছে। আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে আমরা এটার ব্যবস্থা নেব। সাংবাদিকরা রাস্ট্রপতির আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত জানতে চাইলে স্বরাস্ট্রীমন্ত্রী কোনো মন্তব্য করেননি।

এদিকে শনিবার রাত আটটা পর্যন্ত এ সংক্রান্ত কোন কাগজ কিংবা সরকারি নির্দেশনা পাননি বলে জানিয়েছেন কারা অধিদফতরের অতিরিক্ত আইজিপ্রিজন কর্নেল ইকবাল হাসান। তবে তাদের সব ধরণের প্রস্ততি রয়েছে বলেও জানান এই উদ্ধর্তণ কারা কর্মকর্তা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মুফতি হান্নানের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ হওয়ার আদেশ কারাগারে পৌঁছার পর তাঁকে ফাঁসি দেওয়ার সুযোগ রয়েছে। এক কারা কর্মকর্তা জানিয়েছেন, যেদিন মৃত্যুপরোয়ানা পড়ে শোনানো হয় সেদিন থেকে ২১ দিনের আগে নয়, ২৮ দিনের পরে নয়এমন হিসাব করা হয়। মুফতি হান্নানের ক্ষেত্রে এরই মধ্যে সেই দিনক্ষণ চলে এসেছে। কারা সূত্র জানায়, এ সপ্তাহের কোনো এক দিন তাঁকে ফাঁসির রশিতে ঝোলানোর আইনি সুযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিভাগের ডিআইজি প্রিজনস তৌহিদুল ইসলাম গতকাল রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, রাষ্ট্রপতির আদেশ আমরা এখনো পাইনি। হাতে পাওয়ার পর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গত ২৭ মার্চ নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদের (হুজি) শীর্ষ নেতা মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মুফতি আব্দুল হান্নান রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন করেন। ওই দিন বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তিনি কারা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে প্রাণভিক্ষার আবেদন করেন বলে কাশিমপুরের হাই সিকিউরিটি কারাগারের সিনিয়র জেলসুপার মিজানুর রহমান কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করেন। এ ছাড়া একই মামলার অপর দুই জঙ্গি দেলোয়ার হোসেন রিপন ও শরীফ শাহেদুল বিপুলও রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চান। তাঁদের ব্যাপারে কী সিদ্ধান্ত হয়েছে, তা জানা যায়নি।

আবুল ফিদা
04-09-2017, 01:41 PM
একজন মোজাহিদ, ত্বাগুতের কাছে কীভাবে প্রাণ ভিক্ষা চায়!!!!

ভাই ত্বগুত মিডিয়ার কথা বিশ্বাস করার আগে যাছাই করা উচিৎ. বর্তমানে মুজাহিদীনদের ব্যপারে সকল সংবাদের ক্সেত্রেই তাগুতরা কিছু না কিছু ফায়দা হাসিল করতে চায়. আপনি কি ভেবেছেন যে. এটাতেও তারা কোন ফায়দা হাসিল করবে না? এটা বুঝা একেবারেই স্বাভাবিক যে. এখানে তারা প্রাণবিক্ষার খবর প্রচার করে. স্বাধারণ মসলিমদেরকে মুজাহিদীনদের ব্যপারে খারাপ ধারণা সৃস্টি করছে.
আজ যদি আল্লাহ তাআলা তার মুক্তির ব্যবস্থা করে দিতেন. তাহলে হয়ত. আমরা তার ব্যপারে অতিতের মন্দ সংবাদগুলো এবং কারাগারের নির্জাতনগুলোর ব্যপারে ভালোভাবে জানতে পারতাম.
আল্লাহ তাআলা আফগান ফেরত এই পরহেযগার. মুত্তাকি মুজাহিদকে জিবনের শেষ মুহুর্ত পর্জন্ত পূর্ণ ইমান নিয়ে বেচে থাকার এবং শাহাদাতের মিত্যু নছিব করুক। আমিন!!!

ইলিয়াস গুম্মান
04-09-2017, 02:04 PM
ভাই ত্বগুত মিডিয়ার কথা বিশ্বাস করার আগে যাছাই করা উচিৎ. বর্তমানে মুজাহিদীনদের ব্যপারে সকল সংবাদের ক্সেত্রেই তাগুতরা কিছু না কিছু ফায়দা হাসিল করতে চায়. আপনি কি ভেবেছেন যে. এটাতেও তারা কোন ফায়দা হাসিল করবে না? এটা বুঝা একেবারেই স্বাভাবিক যে. এখানে তারা প্রাণবিক্ষার খবর প্রচার করে. স্বাধারণ মসলিমদেরকে মুজাহিদীনদের ব্যপারে খারাপ ধারণা সৃস্টি করছে.
আজ যদি আল্লাহ তা‘আলা তার মুক্তির ব্যবস্থা করে দিতেন. তাহলে হয়ত. আমরা তার ব্যপারে অতিতের মন্দ সংবাদগুলো এবং কারাগারের নির্জাতনগুলোর ব্যপারে ভালোভাবে জানতে পারতাম.
আল্লাহ তা‘আলা আফগান ফেরত এই পরহেযগার. মুত্তাকি মুজাহিদকে জিবনের শেষ মুহুর্ত পর্জন্ত পূর্ণ ইমান নিয়ে বেচে থাকার এবং শাহাদাতের মিত্যু নছিব করুক। আমিন!!!

জাযাকাল্লাহ! আল্লাহ (সুব.) তা’আলা এই মর্দে মুজাহিদকে উত্তম শহীদ হিসেবে কবুল করুন। আমিন! আল্লাহুম্মা আমিন!

Abu fatema
04-09-2017, 03:14 PM
হায় আফসোস আমি নিজের উপর অনেক যুলুম করছি

আল্লাহ ভাইকে কবুল করুন-- তাকে শহীদ হিসেবে কবুল করুন--- তাঁর হত্যার বদলার জন্য আমাকেও কবুল করুন--আমিন

khalid-hindustani
04-09-2017, 05:29 PM
ameen. Summa Ameen

ASEM UMOR
04-09-2017, 08:38 PM
আমি শুনেছি
ওনাকে যখন কাঠগড়ায় দাড়করানো হতো, তিনি নির্ভয়ে,দৃপ্তকণ্ঠে তাগুতের বিরুদ্ধে তাওহীদের পক্ষে বলে যেতেন৷ বিস্মত হতেন জর্জ, ব্যরিষ্টার এবং উপস্থিত তাগুতের লোকেরা৷ বলতেন, মৃত্যু সুনিশ্চিত জেনেও কিভাবে এতোটা সাহসীকতার সাথে উচ্চ কণ্ঠে কথা বলে!!!!

ঘোড় সাওয়ার
04-09-2017, 11:54 PM
সবই নাটক। মানুষকে ধোঁকা দেয়ার জন্যই এ নাটক। যেন মানুষ মুজাহিদদের ব্যাপারে যে ধারণা রাখত তা নষ্ট হয়ে যায়। কিন্তু আল্লাহ তায়ালা সকল বাইকে হেফাজত করেন। আমীন।
একজন মানুষ যখন গ্রেপ্তার হয়েছে তখন থেকেই জানেন তার ফাঁসি অবধারিত। এত ধীর্ঘসময় জেলে থাকলেন কোন দিন প্রাণ ভিক্ষার নাম নাই আর এখন তিনি প্রাণভিক্ষা চাইবেন!!!!!!!!

mujahid
04-10-2017, 08:10 AM
আমি মুফতি হান্নান সাহেবকে(হাফি:)যে তিনি হাসছেন!
তিনি মৃত্যুর দিগে তাকিয়ে হাসে আর তাগুতরা বলে তিনি ক্ষমা চেয়েছে
নাউযুবিল্লাহ

salahuddin aiubi
04-10-2017, 08:25 AM
আল্লাহ শায়খ মুফতি হান্নানকে উত্তম শহীদ হিসাবে কবুল করুন!
আর আল্লাহ চাইলে এখনো কোন মুক্তির ব্যবস্থা করে দিতে পারেন। তাই আল্লাহর নিকট শেষ পর্যন্ত দু’আ করি, আল্লাহ প্রিয় শায়খকে মুক্ত করে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দিন!
হে আল্লাহ! আমাদের দু’আ কবুল করুন!