PDA

View Full Version : ফিলিস্তীনীদের রক্ত পানকারী গাদ্দার পাকিস্তানী জেনারেল জিয়াউল হক ।। ভয়াল সেপ্টেম্বর



তাহরীদ মিডিয়া
06-01-2017, 10:04 PM
ফিলিস্তীনীদের রক্ত পানকারী গাদ্দার পাকিস্তানী জেনারেল জিয়াউল হক

ভয়াল সেপ্টেম্বর


পাকিস্তানের জেনারেল জিয়াউল হক ১৯৬৭ থেকে ১৯৭০ পর্যন্ত জর্ডানে মধ্যে জর্ডানী সেনাবাহিনীকে ট্রেনিং দেয়ার জন্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হিসেবে নিযুক্ত ছিল। সেই সময় জর্ডান শাহ হুসাইন ফিলিস্তিনী নিরিহ মুহাজির ক্যাম্পগুলো থেকে নিজের দেশের উপর আক্রমনের ভয় অনুভব করে। ফলে সে নিরস্ত্র মুহাজির ক্যাম্পের উপর আক্রমন করে। তখন জিয়াউল হক শাহ হুসাইনের সেনাবাহিনীর সেকেন্ড ডিভিশন কমান্ডার ছিল। এবং হাজারো ফিলিস্তিনীদের গণ হত্যা করেছে। এই গণহত্যার কারণেই ১৯৭৯ সালের সেপ্টেম্বরকে "ভয়াল সেপ্টেম্বর" নামে স্বরণ করা হয়। শাহ হুসাইন এবং জিয়াউল হকের হাতে এত পরিমাণ রক্ত প্রবাহিত হয়েছিল, যার ব্যপারে ইসরাইলের জনক পর্যায়ের খুনী মুশে দায়ান এই কথাগুলো বলেছিল:

" হুসাইন এগার দিনে এত পরিমান ফিলিস্তিনী মুসলিম হত্যা করেছে যা ইসরাইল বিশ বছরেও করে নি "

ভিবিন্ন উদ্দেশ্যে ভিবিন্ন মাধ্যমে শহীদ করা ফিলিস্তিনী মুসলিমের পরিমান ছিল আনুমানিক ২৫ হাজার।




হত্যার সময়ের একটা ছবি

http://i.imgur.com/78JAseg.jpg

bokhtiar
06-01-2017, 10:53 PM
আখি শুকরিয়া, ইতিহাস বিকৃতি করে জিয়াউল হক্বের ব্যাপারে বীরের উপাধি দেওয়া হয়!!!

ইলম ও জিহাদ
06-02-2017, 12:50 AM
জাযাকাল্লাহ!

আল্লাহর বান্দা
06-02-2017, 01:26 AM
নতুন একটা গাদ্দারের ইতিহাস জানতে পারলাম।

salahuddin aiubi
06-02-2017, 09:30 AM
ভাই! কয়েকটা বিষয় লক্ষ্য করুন:
১. আপনার লেখাটার তথ্যসূত্র দিয়েন
২. ওই গণহত্যায় জেনারেল জিয়াউল হকের স্পষ্ট কোন ভূমিকার প্রমাণ থাকলে সেটা দিন।
৩. আরেকটা বিষয় হল: জিয়াউল হক যদি জর্ডানী সেনাবাহিনীর অন্তর্ভূক্ত হওয়ার কারণে সে সময় উক্ত ঘটনার অংশীদার হনও, কিন্তু তার শেষ জীবনের ইতিহাস তো ভাল। তিনি রাশিয়ার বিরুদ্ধে আফগান মুজাহিদদেরকে সর্বাত্মক সাহায্য করেন।তিনি নিয়মিত নামায পড়তেন। তিনিই পাকিস্তানে শরয়ী আইন বাস্তবায়ন শুরু করেছিলেন। তার ব্যাপারে একটি কথা শোনা যায় যে, তার দুটি স্বপ্ন ছিল: ১. শাহাদাতের মৃত্যু বরণ করা। ২. আফগানিস্তান বিজয় করার পর আফগানিস্তানের শাহী মসজিদে জুম্মা নামায পড়া।
আফগান জিহাদে তিনি অনেক বেশি জড়িয়ে যাওয়ার কারণে আমেরিকা তার শত্রু হয়ে গিয়েছিল। ফলে আমেরিকাই ষড়যন্ত্র করে তার বিমানে বোমা ফিট করে তাকে হত্যা করে।
আর আফগান যুদ্ধে তার কোন সাম্রাজ্যবাদী চিন্তা থাকার স্পষ্ট কোন প্রমাণ তো কেউ দিতে পারে না। এছাড়া তার এমন কোন কাজও দেখা যায় না, যার দ্বারা বোঝা যায় যে, তিনি স্বার্থবাদী ছিলেন।

banglar omor
06-02-2017, 10:31 AM
মুজাহিদে আযম শহীদ আব্দুল্লাহ আযযাম (রঃ) এর সাথে জিয়াউল হক্বের গভীর সম্পর্ক ছিল।আর শহীদ আব্দুল্লাহ আযযাম ছিলেন ফিলিস্তিনি।
আমার বুঝে আসেনা কিভাবে ফিলিস্তিনিদের রক্ত পানকারীর সাথে শহীদ আব্দুল্লাহ আযযামের(রহঃ) সম্পর্ক হতে পারে!
অথচ তিনি কোন ইতিহাস ভুলা মুজাহিদ নন।তিনি ইতিহাসের ক্ষেত্রে ছিলেন খুবই সচেতন,যা উনার লেখা পড়লেই বুঝা যায়। তিনি ছিলেন বড় মাপের এক মুজাহিদ ঐতিহাসিক।
তাফসীরে সূরা তাওবা যারা পড়েছেন তারা অবশ্যই জানেন জিয়াউল হক্ব কেমন মানুষ ছিলেন। তাফসীরে সূরা তাওবায় বিভিন্ন জায়গায় উনার ভূয়সী প্রশংসা করা হয়েছে।
তাহরীদ মিডিয়া ভাইদের কাছে অনুরোধ আপনারা উক্ত কথার স্বপক্ষে স্পষ্ট এবং নির্ভরযোগ্য দলীল পেশ করুন।কুফফারদের থেকে দেওয়া দলীল গ্রহনযোগ্য নয়।
আর আমরা জানিনা জিয়াউল হক্ব প্রথম জীবনে কেমন ছিলেন কিন্তু আমরা জানি শেষ জীবনে তিনি মুজাহিদ এবং জিহাদের সাহায্যকারী ছিলেন।
তিনি অস্ত্র দিয়ে অর্থ দিয়ে মুজাহিদদের সাহয্য করেছিলেন। এমনকি পাকিস্তানের সেনা কেম্পগুলো তিনি মুজাহিদ ট্রেনিংয়ের জন্য উন্মক্ত করে দিয়েছিলেন।তিনি জনসম্মখে জিহাদী বক্তৃতা দিতেন।শহীদ আব্দুল্লাহ আযযামের সাথে উনার সরাসরি সম্পর্ক ছিল।
সুতরাং যে ভাইয়েরা আবেগের বসে জিয়াউল হক কে গাদ্দার বললেন তাদের প্রতি অনুরোধ আপনারা আপনাদের লেখাকে সংশোধন করুন।

khalid bin walid
06-02-2017, 02:42 PM
ভাই ইতিহাস টা ভালো করে যাচাই করে নেন।
আফগানিস্তানে আমি আল্লাহকে দেখেছে নামের বইয়ে জিয়াউল হকে শহিদ বলা হয়েছে।
রাশিয়া ও আফগান যুদ্ধে জিয়াউল হক মুজাহিদের ব্যাপক সাহায্য করেছে।

umar mukhtar
06-02-2017, 03:22 PM
সম্মানিত ভায়েরা! মুলত এই আর্টিকেল টা প্রো aqis টেলিগ্রাম চ্যানেল "শুব্বানে শরিয়ত" এ প্রকাশিত হয়েছিল, সেখান থেকেই হয়তো তাহরিদ মিডিয়ার ভাইয়েরা অনুবাদ করেছেন। । যারা নাওয়ায়ে আফগান জিহাদ ম্যাগাজিন প্রকাশ করে থাকেন। আসলে উপমহাদেশের বিশেষ করে সেনাবাহিনী ও শাসকদের গাদ্দারির ইতিহাস অনেক পুরনো। জনসাধারণ এই ইতিহাস সম্পর্কে তেমন অবগত নয়।

bokhtiar
06-02-2017, 03:23 PM
মিডিয়ার পক্ষ থেকে পোস্ট এলে আমরা সাধারণত ফরক করা ছাড়াই পড়ে ফেলি। তাই মিডিয়া ভাইয়েরা খুব তাহকিক করে পোস্ট দিবেন।

তাহরীদ মিডিয়া
06-02-2017, 05:57 PM
অনুবাদকৃত লেখাটি পাকিস্তানী ভাইদের কয়েকটা মিডিয়া থেকে এক সাথে প্রকাশিত হয়ছে। এটা মূল তাহরীকে তালেবান কতৃক প্রকশিত হিত্তিন ম্যাগাজিনের একটি লেখা, যা পরে হিত্তিন মিডিয়া থেকে আলাদা ভাবে রিসালা প্রকাশিত হয়েছে। (ডাউনলোড লিংক নিচে দেয়া)। রিসালাটির নাম یہ کس کی فوج ہے؟ ||| Whose army is this? তারা কাদের আর্মি ? লিখকঃ মুহতারাম কারী আব্দুল হাদী। যিনি সেখানে পাকিস্তানী আর্মির প্রকৃত ইতিহাস তুলে ধরেছেন। বৃটেন ও আমেরিকানদের হাতে গড়া জেনারেল জিয়ার ব্যপারে কথাগুলো হুবহু তুলে দিচ্ছিঃ


جنرل ضیاء الحق ، جو 1976ء سے 1988ء تک اس ملک کے سیاہ و سپید کامالک رہا، بھی براہِ راست برطانوی افسروں سے تربیت یافتہ تھا۔ضیاء نے ابتدائی فوجی تربیت دہرہ دون سے حاصل کی اور دوسری جنگِ عظیم کے اواخر میں جنوب مشرقی ایشیاء میں برطانوی کمان تلے اپنی صلاحیتوں کاجوہر دکھایا۔اس کے بعد اعلیٰ تربیت کے لئے اس نے "امریکی کمانڈ اینڈ جنرل اسٹاف کالج فورٹ لیون ورتھ،کینسس"[1] (/#_ftn1)(امریکہ) کا رخ کیا۔60ء کی دہائی کے اواخر میں ضیاء کو اردنی فوج کی تربیت پر مامور کیا گیا۔1970ء میں جب اردنی فوج نے اردن میں پناہ لینے والے فلسطینی مہاجرین کے خلاف فوجی آپریشن کا آغاز کیا تو یہی ضیاء الحق تھا جس نے بطور برگیڈ یئر اردن کی'دوسری فوجی ڈویژن'کی کمان سنبھالی اور ہزار ہا فلسطینی مسلمانوں کا قتلِ عام کیا۔فلسطینی ذرائع کے مطابق اس کاروائی کے دوران 25،000 کے قریب بےگناہ فلسطینی مسلمان شہید کیے گئے

[1] (/#_ftnref1) (US Army Command & General Staff College Fort Leaven worth, Kansas)








বিস্তারিত জানতে নিচের লিংক থেকে মূল রিসালাটি পড়ুনঃ

https://archive.org/details/kis_ki_fauj

সবুজ পাখী
06-02-2017, 08:37 PM
আমার দৃড় বিশ্বাস এখানে জিয়াউল হক্বের ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে।

এত স্পষ্ট ত্বাগুতকে যার ভাল বলছেন, মহাব্বতের ঢেকি উজাড় করে দিচ্ছেন। সত্যিই তাদের আকীদার বুঝ নিয়ে সন্দেহ হচ্ছে। কেহ যদি জিয়ার কুফুরীর ব্যপারে সন্দেহ করে তো তার কথা নিশ্চিত ভুল।

Mullah Murhib
06-03-2017, 04:48 AM
এত স্পষ্ট ত্বাগুতকে যার ভাল বলছেন, মহাব্বতের ঢেকি উজাড় করে দিচ্ছেন। সত্যিই তাদের আকীদার বুঝ নিয়ে সন্দেহ হচ্ছে। কেহ যদি জিয়ার কুফুরীর ব্যপারে সন্দেহ করে তো তার কথা নিশ্চিত ভুল।

Vai! ekhane Ziar proti muhabbat'er ki holo? Vaiera to news'er refference jante cheyechilen... R etei aqidar bujher sondeho!!!

সবুজ পাখী
06-03-2017, 05:55 AM
Vai! ekhane Ziar proti muhabbat'er ki holo? Vaiera to news'er refference jante cheyechilen... R etei aqidar bujher sondeho!!!

নিচের কথাগুলো কি মহাব্বতের বহির্প্রকাশ নয় ভাই ?!


তিনি রাশিয়ার বিরুদ্ধে আফগান মুজাহিদদেরকে সর্বাত্মক সাহায্য করেন।তিনি নিয়মিত নামায পড়তেন। তিনিই পাকিস্তানে শরয়ী আইন বাস্তবায়ন শুরু করেছিলেন।


যে ভাইয়েরা আবেগের বসে জিয়াউল হক কে গাদ্দার বললেন তাদের প্রতি অনুরোধ আপনারা আপনাদের লেখাকে সংশোধন করুন।

উমার আব্দুর রহমা
06-03-2017, 11:20 AM
অনুবাদকৃত লেখাটি পাকিস্তানী ভাইদের কয়েকটা মিডিয়া থেকে এক সাথে প্রকাশিত হয়ছে। এটা মূল তাহরীকে তালেবান কতৃক প্রকশিত হিত্তিন ম্যাগাজিনের একটি লেখা, যা পরে হিত্তিন মিডিয়া থেকে আলাদা ভাবে রিসালা প্রকাশিত হয়েছে। (ডাউনলোড লিংক নিচে দেয়া)। রিসালাটির নাম یہ کس کی فوج ہے؟ ||| Whose army is this? তারা কাদের আর্মি ? লিখকঃ মুহতারাম কারী আব্দুল হাদী। যিনি সেখানে পাকিস্তানী আর্মির প্রকৃত ইতিহাস তুলে ধরেছেন। বৃটেন ও আমেরিকানদের হাতে গড়া জেনারেল জিয়ার ব্যপারে কথাগুলো হুবহু তুলে দিচ্ছিঃ


جنرل ضیاء الحق ، جو 1976ء سے 1988ء تک اس ملک کے سیاہ و سپید کامالک رہا، بھی براہِ راست برطانوی افسروں سے تربیت یافتہ تھا۔ضیاء نے ابتدائی فوجی تربیت دہرہ دون سے حاصل کی اور دوسری جنگِ عظیم کے اواخر میں جنوب مشرقی ایشیاء میں برطانوی کمان تلے اپنی صلاحیتوں کاجوہر دکھایا۔اس کے بعد اعلیٰ تربیت کے لئے اس نے "امریکی کمانڈ اینڈ جنرل اسٹاف کالج فورٹ لیون ورتھ،کینسس"[1] (/#_ftn1)(امریکہ) کا رخ کیا۔60ء کی دہائی کے اواخر میں ضیاء کو اردنی فوج کی تربیت پر مامور کیا گیا۔1970ء میں جب اردنی فوج نے اردن میں پناہ لینے والے فلسطینی مہاجرین کے خلاف فوجی آپریشن کا آغاز کیا تو یہی ضیاء الحق تھا جس نے بطور برگیڈ یئر اردن کی'دوسری فوجی ڈویژن'کی کمان سنبھالی اور ہزار ہا فلسطینی مسلمانوں کا قتلِ عام کیا۔فلسطینی ذرائع کے مطابق اس کاروائی کے دوران 25،000 کے قریب بےگناہ فلسطینی مسلمان شہید کیے گئے

[1] (/#_ftnref1) (US Army Command & General Staff College Fort Leaven worth, Kansas)








বিস্তারিত জানতে নিচের লিংক থেকে মূল রিসালাটি পড়ুনঃ

https://archive.org/details/kis_ki_fauj



জাঝাকুমুল্লাহ

Taalibul ilm
06-03-2017, 08:38 PM
ভাই, উল্লেখিত পাকিস্তানী জিহাদী মিডিয়ার ভাইরা কি কোন ঐতিহাসিক রেফারেন্স দিয়েছেন? এটা একটু জানাতে পারেন ইনশাআল্লাহ।
অর্থাৎ, আমাদের রেফারেন্স কি শুধু হিত্তিন মিডিয়া, নাকি অন্য কোন সোর্সও আছে? হিত্তিন মিডিয়ার তথ্যসুত্র কি?

এই বিষয়গুলো তাহকীক করলে আশা করি বিষয়গুলো অনেকটাই পরিষ্কার হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।



অনুবাদকৃত লেখাটি পাকিস্তানী ভাইদের কয়েকটা মিডিয়া থেকে এক সাথে প্রকাশিত হয়ছে। এটা মূল তাহরীকে তালেবান কতৃক প্রকশিত হিত্তিন ম্যাগাজিনের একটি লেখা, যা পরে হিত্তিন মিডিয়া থেকে আলাদা ভাবে রিসালা প্রকাশিত হয়েছে। (ডাউনলোড লিংক নিচে দেয়া)। রিসালাটির নাম یہ کس کی فوج ہے؟ ||| Whose army is this? তারা কাদের আর্মি ? লিখকঃ মুহতারাম কারী আব্দুল হাদী। যিনি সেখানে পাকিস্তানী আর্মির প্রকৃত ইতিহাস তুলে ধরেছেন। বৃটেন ও আমেরিকানদের হাতে গড়া জেনারেল জিয়ার ব্যপারে কথাগুলো হুবহু তুলে দিচ্ছিঃ


جنرل ضیاء الحق ، جو 1976ء سے 1988ء تک اس ملک کے سیاہ و سپید کامالک رہا، بھی براہِ راست برطانوی افسروں سے تربیت یافتہ تھا۔ضیاء نے ابتدائی فوجی تربیت دہرہ دون سے حاصل کی اور دوسری جنگِ عظیم کے اواخر میں جنوب مشرقی ایشیاء میں برطانوی کمان تلے اپنی صلاحیتوں کاجوہر دکھایا۔اس کے بعد اعلیٰ تربیت کے لئے اس نے "امریکی کمانڈ اینڈ جنرل اسٹاف کالج فورٹ لیون ورتھ،کینسس"[1] (/#_ftn1)(امریکہ) کا رخ کیا۔60ء کی دہائی کے اواخر میں ضیاء کو اردنی فوج کی تربیت پر مامور کیا گیا۔1970ء میں جب اردنی فوج نے اردن میں پناہ لینے والے فلسطینی مہاجرین کے خلاف فوجی آپریشن کا آغاز کیا تو یہی ضیاء الحق تھا جس نے بطور برگیڈ یئر اردن کی'دوسری فوجی ڈویژن'کی کمان سنبھالی اور ہزار ہا فلسطینی مسلمانوں کا قتلِ عام کیا۔فلسطینی ذرائع کے مطابق اس کاروائی کے دوران 25،000 کے قریب بےگناہ فلسطینی مسلمان شہید کیے گئے

[1] (/#_ftnref1) (US Army Command & General Staff College Fort Leaven worth, Kansas)








বিস্তারিত জানতে নিচের লিংক থেকে মূল রিসালাটি পড়ুনঃ

https://archive.org/details/kis_ki_fauj

আস সাইফুল মাসলুল
06-03-2017, 11:09 PM
কিভাবে একজন মুজাহিদের আকিদাহ এমন হতে পারে!!!
একজন লোক নামায রোজা রাখলেই কি মুমিন হয়ে যায়???
যদি সে রাশিয়ার বিরুদ্ধে আফগানের কিছু লোক কে সাহায্য করলেই মুমিন হয়ে যেত তাহলে সবচেয়ে বড় মুমিন আমেরিকা। কারন তারাও আফগানের কিছু লোককে সাহায্য করেছিল।
মুজাহিদ ভাইদেরকে বলব যারা তাকে মুমিন ভাবেন তারা কি জিয়াউল হক্বের হাকিমিয়ার বিষয়টা জানেন। সে কি আল্লাহর বিধান দ্বারা বিচার ফয়সালা করেছিল??? তারপর তার মাঝে ওয়ালা বারা কতটুকু ছিল?? সে কি আমেরিকার সাথে ওয়ালা বারার নীতিতে চলেছিল????

Umar Faruq
06-03-2017, 11:42 PM
জিয়া আফগান মুজাহিদীনদের সহযোগী ছিলেন । শায়খ আবদুল্লাহ আযযাম যদি জিয়ার প্রশংসা করে থাকেন তাহলে তাকে খারাপ বলতে হলে সুস্পষ্ট প্রমাণ দরকার । কোনভাই যদি তথ্যসুত্র উল্লেখ্য ছাড়া কোন আর্টিকেল লিখেন চাই তা যেকন ভাষায়ই হোক না কেন এটা দলিল হিসেবে উপস্থাপনের উপযুক্ত নয় ।

সংগ্রামী যুবক
06-04-2017, 12:24 AM
এত স্পষ্ট ত্বাগুতকে যার ভাল বলছেন, মহাব্বতের ঢেকি উজাড় করে দিচ্ছেন। সত্যিই তাদের আকীদার বুঝ নিয়ে সন্দেহ হচ্ছে

প্রিয় ভাই ,দয়া করে এভাবে বলবেন না , আমাদের কথায় আরও সংযত হওয়া উচিৎ , বাংলার ওমর ভাই কি অন্যায় কিছু বলেছেন !! ভাই রেফারেন্স জানতে চেয়েছেন তার কুফুরির ব্যাপারে । আর এটা তিনি চাইতেই পারেন । অথচ এর বিপরীতে "" সত্যিই তাদের আকীদার বুঝ নিয়ে সন্দেহ হচ্ছে"" এ কথা বলা কতটা যুক্তিসঙ্গত ভাই ??

Nasir
06-04-2017, 08:26 AM
Zajakallah

সবুজ পাখী
06-04-2017, 10:18 AM
জিয়া আফগান মুজাহিদীনদের সহযোগী ছিলেন ।

এটা তার কুফুরী বিধান প্রনয়ন করে ত্বাগুত হয়ার পথে কোন বাধা সৃষ্টি করে না।


শায়খ আবদুল্লাহ আযযাম যদি জিয়ার প্রশংসা করে থাকেন তাহলে তাকে খারাপ বলতে হলে সুস্পষ্ট প্রমাণ দরকার ।

ভাই !!! শাইখ পূজা কি এখন আমাদের ভাইদের মধ্যে শুরু হয়ে গেল ??? বর্তমানের সমস্ত আলেমরা একমত যে, উনার প্রশংশা ছিল কৌশলগত কারণে।

ভাই! আব্দুল্লাহ আজ্জামের প্রশংশা কি কোরআন ও হাদীসের স্পষ্ট কুফুরীকে যায়েজ বানিয়ে দিতে পারে ??? এটা আমাদের অজুবুল ই'তিসামের বুঝ ??!!


কোনভাই যদি তথ্যসুত্র উল্লেখ্য ছাড়া কোন আর্টিকেল লিখেন চাই তা যেকন ভাষায়ই হোক না কেন এটা দলিল হিসেবে উপস্থাপনের উপযুক্ত নয় ।

মোহতারাম আখী! আপনি মনে হয় খেয়াল করেন নি, উপরে সূত্র দেয়া আছে।

banglar omor
06-04-2017, 12:01 PM
উস্কানী মূলক কমেন্ট আমাদের ভ্রাতৃত্ব এবং একতার জন্য ক্ষতিকর ।আমরা চাই ফোরামের পরিবেশটা সুন্দর থাকুক।দাওয়াহ ইলাল্লাহ ফোরামে আমরা ইলম,ইতিহাস এবং জিহাদের বিভিন্ন দিক নিয়ে চর্চা করে থাকি।এখানে প্রত্যেকেই তার অভিমত ব্যক্ত করতে পারবে।যদি কেউ ভুল করে তাহলে ভুল ধরার যোগ্যতা সম্পন্ন ব্যক্তি এবং ভুল ধরার আদব যাদের জানা আছে তারা তা সংশোধন করে দিবে।
শুরুতেই এমন কোন কথা বলা যাবেনা যে কথা তাকে কষ্ট দিবে।
রাসূলুল্লাহ (সাঃ)বলেছেনঃপ্রকৃত মুমিন সে যার জবান এবং হাত থেকে অন্য মুমিন নিরাপদ থাকে।
জিয়াউল হক্ব যদি তাগুত হয়ে থাকেন তাহলে এর ফল তিনি আল্লাহর কাছে পাবেন।এখানে তাকে তাগুত বলে সাক্ষ্য দেওয়া কারো জন্য জরুরী নয়।
কিন্তু তিনি যদি সত্যিই তাগুত না হয়ে থাকেন এবং তাওবা করে থাকেন তাহলে যারা তাকে তাগুত বলবে তারা কি রহমানের জবাবদিহিতা থেকে বাঁচতে পারবেন?
আল্লাহই ভালো জানেন জিয়াউল হক্ব কেমন ছিলেন।যেহেতু তার বিষয়টি অস্পষ্ট তাই আমাদের উচিত হবে এ বিষয়ে নিরব থাকা।
আসুন আমরা ছোট খাটো বিষয়ে বিবাদে না জড়িয়ে উম্মাহর গুরুত্বপূর্ন বিষয়গুলো নিয়ে ভাবি।

Fatima
06-04-2017, 05:02 PM
উস্কানী মূলক কমেন্ট আমাদের ভ্রাতৃত্ব এবং একতার জন্য ক্ষতিকর ।আমরা চাই ফোরামের পরিবেশটা সুন্দর থাকুক।দাওয়াহ ইলাল্লাহ ফোরামে আমরা ইলম,ইতিহাস এবং জিহাদের বিভিন্ন দিক নিয়ে চর্চা করে থাকি।এখানে প্রত্যেকেই তার অভিমত ব্যক্ত করতে পারবে।যদি কেউ ভুল করে তাহলে ভুল ধরার যোগ্যতা সম্পন্ন ব্যক্তি এবং ভুল ধরার আদব যাদের জানা আছে তারা তা সংশোধন করে দিবে।
শুরুতেই এমন কোন কথা বলা যাবেনা যে কথা তাকে কষ্ট দিবে।
রাসূলুল্লাহ (সাঃ)বলেছেনঃপ্রকৃত মুমিন সে যার জবান এবং হাত থেকে অন্য মুমিন নিরাপদ থাকে।
জিয়াউল হক্ব যদি তাগুত হয়ে থাকেন তাহলে এর ফল তিনি আল্লাহর কাছে পাবেন।এখানে তাকে তাগুত বলে সাক্ষ্য দেওয়া কারো জন্য জরুরী নয়।
কিন্তু তিনি যদি সত্যিই তাগুত না হয়ে থাকেন এবং তাওবা করে থাকেন তাহলে যারা তাকে তাগুত বলবে তারা কি রহমানের জবাবদিহিতা থেকে বাঁচতে পারবেন?
আল্লাহই ভালো জানেন জিয়াউল হক্ব কেমন ছিলেন।যেহেতু তার বিষয়টি অস্পষ্ট তাই আমাদের উচিত হবে এ বিষয়ে নিরব থাকা।
আসুন আমরা ছোট খাটো বিষয়ে বিবাদে না জড়িয়ে উম্মাহর গুরুত্বপূর্ন বিষয়গুলো নিয়ে ভাবি।

জাঝাকাল্লাহ ভাই।।

karimul islam
06-05-2017, 09:33 AM
জিয়াউল হক্বের বিষয়টি অপষ্ট বলে মনে হয়না।কারন
তিনি একজন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রপতি ছিলেন ও গণতন্ত্র ছাড়া অন্য
পদ্ধতিতে ইসলাম প্রতিষ্ঠার চেষ্টা ও করেননি।এখন গণতান্ত্রিক
আক্বীদায় বিশ্বাসী হলে তাগুত বলে গণ্য হবে আর গণতান্ত্রিক আক্বীদায়
বিশ্বাসী না হয়ে গণতন্ত্রে জড়িয়ে পড়লেও আমাদের মানহাজ
অনুযায়ী তিনি পথভ্রষ্ট হবেন অবশ্যই।
আর গণতন্ত্র করে কেউ অলা-বারার মাসয়ালা ঠিক রাখতে পারেনি।
সুতরাং সে আফগান জিহাদে অংশগ্রহণ করলে এ জিহাদ তার কোন কাজে আসবেনা
যদি স্পষ্ট কুফরী সাব্যস্ত হয় যেমন বর্তমানে এরগোদানের অবস্থা।
সে নির্যাতিত মুসলিমদের প্রতি সদয় হওয়া সত্তেও তাগুত।
আর স্পষ্ট কুফরী প্রমানিত না হলে গনতান্ত্রিক হওয়ার কারনে পথভ্রষ্ট
যেমন মুরসি তিনি গনতন্ত্রের আক্বীদায় বিশ্বাসী নয় তাই
তাগুত নয় তবে গনতন্ত্রে জড়ানোর কারনে পথভ্রষ্ট।
এখন পাকিস্তানি মিডিয়ার ভাইয়েরা যদি তার ব্যাপারে এরুপ
প্রমান দেন যে,তার থেকে স্পষ্ট কুফরী প্রকাশিত হয়
তাহলে তাকে মুর্তাদই ভাবতে হবে।