PDA

View Full Version : বাংলাদেশে হিন্দুদের জয়জয়কার, এক মহাদুর্যোগের পদধ্বনি আপনি শুনছেন তো?



HIND_AQSA
06-19-2017, 07:32 PM
ব্যক্তিগত প্রয়োজনে রাজশাহী গিয়েছিলাম। ফেরার পথে শ্যামলী পরিবহনের টিকেট নিলাম। ভালোই চলছিলো রাতের জার্নি, বাসের স্টাফরা পরস্পরের নাম ধরে সম্বোধন করায় বুঝতে পারছিলাম সবাই হিন্দু ধর্মের অনুসারী, এমনকি যে কাউন্টারে টিকেট করেছি তারাও হিন্দু।
সুন্দর ছিম ছাম একটি হোটেলে যাত্রা বিরতী দেয়া হলো। সবাই রাতের খাবার খাওয়ার পরে আবার গন্তব্য পথে ছুটবে গাড়ি। বিরানীর অর্ডার দিলাম, সাথে কোল্ড ড্রিংকস।খাওয়ার পরে বাসে উঠেই কেমন যেনো মাথা ঘুড়াচ্ছিলো, সাথে বমি বমি ভাব। জার্নিতে অনেকেরই এমন হয় সেটা জানি, কিন্তু প্রচুর জার্নির অভ্যাস থাকাতে আমার এই প্রব্লেমটা নেই। কেমন যেনো একটা সন্দেহ হলো।
পরের স্টপেজে গাড়ি ঢুকলো একটি পেট্রোল পাম্পে, বাস থেকে নেমে পেট্রোল পাম্প ঘুড়ে ঘুড়ে দেখলাম, পাম্পের বিভিন্ন স্থানে হিন্দুদের নানা রকমের দেব দেবীর ছবি টানানো। বুঝতে অসুবিধা হলোনা, শ্যামলী পরিবহনের মালিক কর্মচারী সবাই হিন্দু, এমনকি তারা যে রেষ্টুরেন্টে গাড়ি থামায় সেটাও হিন্দু মালিকের, যে পেট্রোল পাম্প থেকে তেল নেয় সেটাও হিন্দু। তার মানে হারাম পন্থায় জবাই করা পশুর মাংস দিয়ে রান্না করা বিড়ানী খাওয়ায় অসুস্থ বোধ করছিলাম!
পরে দেখেছি শ্যামলী পরিবহনের সুপার ভাইজারের কাছে যে যাত্রী তালিকা থাকে তার শিরোনামে লেখা থাকে, বাবা লোকনাথের নামে চলিলাম!
সেদিন ফেসবুকে কার যেনো একটা লেখা দেখেছিলাম সম্ভবত ফারিজা বিনতে বুলবুল আপার লেখা। হিন্দুদের যে ইউনিটি সেটার কথা উল্লেখ করতে গিয়ে তিনি সি.পি ফুডের কথা উল্লেখ করেছেন, এই প্রতিষ্ঠানের মালিক থেকে শুরু করে সকল কর্মচারী হিন্দু! আচ্ছা, সি.পি. ফুডের কর্মীদের হাতে জবাই করা মুরগী কি হালাল? তারা কি আল্লাহর নামে জবাই করে, নাকি ভগবানের নামে মাথা কাটা মুরগী দিয়েই সুস্বাদু সব আইটেম তৈরী করে! চট্টগ্রামের গোল পাহাড় থেকে শুরু করে আন্দরকিল্লা এবং জামাল খানে বেশ কিছু ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং ক্লিনিক রয়েছে। এর ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ থেকে শুরু করে সকল ডাক্তার এমনকি চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী পর্যন্ত সবাই হিন্দু। কি চমৎকার ঐক্য তাদের মাঝে।
ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের ব্যাপারে এতোক্ষণ কথা বললাম, এবার আসি সরকারী এবং সামাজিক প্রতিষ্ঠানের ব্যাপারে। সমগ্র বাংলাদেশের কথা জানিনা, চট্টগ্রামের স্কুল গুলোতে ব্যাপক হারে হিন্দু শিক্ষক নিয়োগ প্রদান করা হচ্ছে। একজন, দুইজন, তিনজন বাড়ছেই, প্রতি নিয়তই বাড়ছে। কি মনে হচ্ছে, হিন্দুরা অত্যান্ত মেধাবী তাই চাহিবা মাত্রই চাকরী হয়ে যাচ্ছে? সেদিন আমার রুমমেট প্রশ্ন করলো, আচ্ছা বিদ্যুৎ বিভাগ কি হিন্দু প্রতিষ্ঠানের কাছে লিজ দেয়া হয়েছে? আমি আসলে জানিনা কেনো, কিন্তু ব্যাপারটা সত্যি, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানী অব বাংলাদেশ খুলশী এড়িয়ার অধিকাংশ কর্মকর্তা-কর্মচারী হিন্দু!
পুলিশের এস.আই নিয়োগ দেয়া হবে, বিভিন্ন ইউনিভার্সিটির ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা দৌড় ঝাপ শুরু করলো। রেজাল্টের দিন দেখা গেলো দারুণ দৃশ্য। ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা কেউ চাকরী পেলো, কেউ পেলোনা! কিন্তু অমুসলীম হলের সিংহভাগ ছাত্রই চাকরী পেয়ে উল্লাসে ফেটে পড়লো। এটা আমার কথা না, ঢাকা ভার্সিটির এক ছাত্রলীগের নেতাই ক্ষোভ প্রকাশ করে ফেসবুকে স্টাটাস দিয়েছেন।
সম্প্রতি পুলিশের এ.আই.জি প্রলয় কুমারের মহা প্রলয়তো আমরা দেখলামই। কিভাবে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগ উত্থাপন করে ইনকিলাবের নির্বাহী সম্পাদককে রিমান্ডে নেয়া হলো। তিনি নাকি প্রকাশ্যেই পুলিশের মধ্যে হিন্দু পুলিশ লীগ গঠন করেছেন, এবং পুলিশ হেড কোয়ার্টারে বসে বসে ইসলাম ও মুসলিমদের বিরুদ্ধে গালা-গালি করছেন। এই প্রলয় কুমার ঘুশের টাকায় কিংবা র(raw) এর টাকায় উত্তরাতে ১২তলা ভবন নির্মান করছেন। আরো দেখলাম ঢাকাতে হিন্দু পুলিশ কর্মকর্তা কর্তৃক মসজিদে তালা দেয়ার হুমকির ঘটনা। বাংলাদেশের সবগুলো থানাতে এখন হিন্দু পুলিশ অফিসারদের জয় জয়কার। প্রচন্ড দাপটশালী এই পুলিশ কর্মকর্তারা।
কিছুদিন পূর্বে এক ভাই সম্ভবত বরিশাল শিক্ষাবোর্ড ঘুড়ে এসে ফেসবুকে লিখেছেন, তিনি অবাক হয়ে গিয়েছেন, এটা কি বাংলাদেশের শিক্ষাবোর্ড, নাকি ভুলে ভারতে ঢুকে পড়েছেন। সিরিয়ালি যতজন কর্মকর্তা বসে আছেন তাদের অধিকাংশরই রুমের সামনে নেমপ্লেটে হিন্দু নাম লেখা।
সুরঙ্গ ব্যাংক নামে পরিচিত সোনালী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে বসানো হয়েছে দুইজন হিন্দু পরিচালক। সরকারী ব্যাংকগুলোতে গণহারে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে হিন্দু কর্মকর্তা।
বিগত অবৈধ নির্বাচনের পূর্বে একটা নিউজ দেখেছিলাম, জানিনা কতটুকু সত্য সেখানে বলা হয়েছিলো ৬৪টি জেলার মধ্যে ৪০টির জেলা প্রশাসক হচ্ছেন হিন্দু।
বেশ কিছুদিন পূর্বে একটি প্রোগ্রামে গিয়েছিলাম, সেখানে একজন বক্তা বলছিলেন, সেনাবাহিনীর উর্ধতন কর্মকর্তাদের প্রমোশনের পূর্বে ভারতে গিয়ে ছয় মাসের একটি প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করার নিয়ম চালু করা হয়েছে। সেখানে প্রশিক্ষনের নামে বাংলাদেশী সেনা কর্মকর্তাদের মদ, নারী ইত্যাদি অফার করা হয়। যারা সহজেই এগুলো গ্রহণ করে তারা পজেটিভ হিসেবে বিবেচিত হন এবং তাদের প্রমোশন দেয়া হয়। আর যারা মদ, নারী এড়িয়ে চলেন তারা মৌলবাদী বলে বিবেচিত হন, সামরিক বাহিনীতে তাদেরকে ব্যাপকভাবে কোনঠাসা করে রাখা হয় এবং সুযোগ বুঝে ঠুনকো অভিযোগে বহিস্কার কিংবা বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো হয়।
সবচাইতে যেটা ভয়াবহ সেটা হচ্ছে, যেসব কর্মকর্তা সেখানে গিয়ে মদ, নারীতে আসক্ত হয়ে পড়েন তাদের গোপন মূহুর্তগুলোর প্রমাণ ধরে রাখা হয় পরবর্তীতে ব্লাক মেইল করে বিভিন্ন সুবিধা আদায় করার জ??ƨ্য।
একটা সময় ভারতীয় উপামহাদেশ ছিলো শত শত ছোট ছোট রাজ্যে বিভক্ত, জুলুম ছিলো সেসব রাজ্য শাসনের স্বাভাবিক নীতি। উচ্চ বংশের হিন্দুরা নিম্ন বংশের হিন্দুদেরকে এবং বৌদ্ধদেরকে চরম পর্যায়ে নির্যাতন চালাতো। এক পর্যায়ে ভারত বর্ষে মুসলিমদের আগমন হলো, তারা সমগ্র ভারতের রাজ্যগুলো দখল করে একটি বিশাল সাম্রাজ্য গঠন করলেন এবং সাম্য ও ন্যায় ভিত্তিক রাষ্ট্র ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করলেন। ইসলামে সৌন্দর্যে মুগ্ধ হয়ে দলে দলে হিন্দু এবং বৌদ্ধরা ইসলাম গ্রহণ করলো

Roktakto_Toluar
06-19-2017, 10:13 PM
অবাক করা বিষয় এখন communist দের জঙ্গি সংঘটনদের হিরো বানিয়ে নাটকও সম্প্রচারিত হচ্ছে ।

Roktakto_Toluar
06-19-2017, 10:19 PM
এখন টিভি চ্যানেলেও কমিউনিস্ট জঙ্গি সংঘঠনদের হিরো বানিয়ে নাটক সম্প্রচার করা হচ্ছে ।

রক্ত ভেজা পথ
06-19-2017, 11:24 PM
চরম উগ্র এক হিন্দু মালুর ফেই. আইডি।
https://m.facebook.com/profile.php?id=100010042307452&refid=46&sld=eyJzZWFyY2hfc2lkIjoiOTU0NzdlN2QwNjg5MDIwYzgwMj I5ZDZjOWFkZDIyMmQiLCJxdWVyeSI6IlNoYXRhZGFsIERoYXJh Iiwic2VhcmNoX3R5cGUiOiJTZWFyY2giLCJzZXF1ZW5jZV9pZC I6MjEzNDcxNDY3MCwicGFnZV9udW1iZXIiOjEsImZpbHRlcl90 eXBlIjoiU2VhcmNoIiwiZW50X2lkIjoxMDAwMTAwNDIzMDc0NT IsInBvc2l0aW9uIjowLCJyZXN1bHRfdHlwZSI6MjA0OH0%3D&fref=search

AL-ANSAR
06-20-2017, 03:31 AM
শ্যামল নামটা হিন্দু নাম।

বিদ্রোহী আমি
06-20-2017, 06:15 AM
আমাদের মূল লড়াই কিন্তু এই মালাউনদের সাথেই হবে,
এটা সকলের জানা উচিৎ।

salahuddin aiubi
06-20-2017, 06:35 AM
খুব উদ্বেগের বিষয়! কি হচ্ছে! কি হবে! হয়ত অচিরেই সব জায়গায় হিন্দু মালুদের কাছে অসহায় হয়ে থাকতে হবে। আহ! সে যে কি ভীষণ যন্ত্রণাদায়ক হবে! আল্লাহ হেফাজত করুন!

murabit
06-20-2017, 09:44 AM
ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা কেউ চাকরী পেলো, কেউ পেলোনা! কিন্তু অমুসলীম হলের সিংহভাগ ছাত্রই চাকরী পেয়ে উল্লাসে ফেটে পড়লো। এটা আমার কথা না, ঢাকা ভার্সিটির এক ছাত্রলীগের নেতাই ক্ষোভ প্রকাশ করে ফেসবুকে স্টাটাস দিয়েছেন।
কুকুর কে মুটা করো তোমাকেই খাবে।এভাবেই শুরু হবে... । প্রস্তুতি নিতে থাকুন সব মুসলিম মিলে এদের রোখতে হবে "একটা একটা হিন্দু ধর মুসলিমদের রক্ষা করো" এই শ্লোগান সবার চেতনা হতে হবে ।
আল্লাহ হেফাযত করবেন, কিন্তু এখানে আপনার আমার দায়িত্ব রয়েছে আল্লাহর হেফাযতের মাধ্যম এবং উপকরন হিসেবে নিজেকে উজাড় করে জান মাল মেধা সময় শ্রম ব্যয় করার,যেমন করবে তেমন পাবে।

abdullah yafur
06-20-2017, 11:58 AM
এখন টিভি চ্যানেলেও কমিউনিস্ট জঙ্গি সংঘঠনদের হিরো বানিয়ে নাটক সম্প্রচার করা হচ্ছে ।

ভাই আপনার কথার মানেটা কি একটু বুঝিয়ে বলবেন?

Roktakto_Toluar
06-21-2017, 01:54 AM
মুসলিম জঙ্গি বিরোধী এমন সব নাটক নিয়মিত প্রচারিত হয় যা দেখে আশ পাশের মানুষদের দেখা যাচ্ছে যে তারা এমন ভাবে মোটিভেটেড হচ্ছে যে পারলে মা তার ছেলেকে ধড়িয়ে দিয়ে নিজেকে গর্বিত জননী মনে করবে । যেন তারা এমন সন্ত্রাসী, মানুষ মারাই যাদের কাজ তাছাড়া তাদের আর কোন কাজ নাই।
অপরদিকে কমিউনিস্টদের জঙ্গি সংঘঠন সর্বহারা , গণবাহীনী ইত্যাদি দলের চিন্তা চেতনাকে ও কারয পদ্ধতি যেমনটা বাপ দাদাদের কাছে আমরা শুনে থাকি ধনী (তথাকথিত যে কেউ বড় কোন কাজ বা দায়িত্ত্বে নিয়োযিত ব্যাক্তি তাদের শিকার হতে পারে) থেকে চাদা নিয়ে গরীবদের দিবে বলে ডাকাতি করা , আর না দিলে নানা শাস্তি এমিনকি মেরেও ফেলে , এসবকে খুব মহান কাজ করছে বলে দেখানো হয়েছে বা হয়ত হচ্ছে ।
এখানে টিভি প্রোগ্রাম উদ্দেশ্য না হঠাতই আমার এ বিষয়টা নজরে পড়ে আর কৌতূহল মেটাতে তাহাক্কিক করি ।
শুধু তাই নয় এমন আরোও অনেক উদাহরণ দেখানো যাবে যার মাধ্যমে এটা বোঝা যাচ্ছে যে তারা আবার বেড়ে উঠার চেষ্টা করছে ।
আমরা মুসলিমরা স্বাধীনভাবে রাজনীতিক ভিউ প্রকাশ করতে পারি না । আর তারা প্রকাশ্যে নিজেদের পলিটিকাল ভিউ সর্বহারা বলে যাচ্ছে । আমরা গণত্রন্ত্র কুফুরী প্রকাশ্যে শুধু এইটুকু বলতে পারি না আর তারা গেরিলা বসন্ত বিপ্লব ইত্যাদি কথা বলে এদেশে রাশিয়ার মত রেড আর্মি মত সর্বহারা দল ও লাল বিপ্লব নামে এদেশে কমুনিসম কায়েম করার পায়তারা করছে ।

বিদ্রোহী আমি
06-21-2017, 06:48 AM
জেগে উঠ মুসলিম,
হাতে যে আর সময় নেই

কালো পতাকা
06-21-2017, 11:17 AM
সে দিন বেশী দূরে নয় যে দিন পাকিস্তান,/আফগানিস্তান/ কাম্মির/বাংলাদেশ যৌথ ভাবে সমগ্র বিশ্বের মুজাহিদ এক্ সাথে ভারত দখল করে কালিমার পতাকা (কালো পতাকা) উড়াবে সে দিন এই মালুদের ( হিন্দুদের) বলা হবে ইসলাম গ্রহন কর নতুবা জিজিয়া দে নতুবা জবাই করা হবে ( হত্যা করা হবে) সেই সময় সামনে আসছে তবে এর মুহুর্তে( ঈমাম মাহদী আগমনের পূর্বে) মুসলিমের প্রতিটা ঘর-বাড়ী যুলুমের শিকার হবে হে আল্লাহ তোমি সমস্ত বিশ্বের মুসলিম দের হেফাজত কর অামিন
যাজাকুমুল্লাহ খায়রান ভাই

tawsif ahmad
06-21-2017, 12:09 PM
vai amader ke allah hefazat korun ............. ameen.........

কালো পতাকা
08-09-2018, 11:23 AM
আল্লাহ তায়ালা আমদের হেফাজত করুন আমিন