PDA

View Full Version : সৌদি আরবের সাম্প্রতিক পটপরিবর্তনের নেপথ্যের আসল কারণ! (ভিডিও)



মুরাবিত
10-02-2017, 03:14 PM
সৌদি আরবের সাম্প্রতিক পটপরিবর্তনের নেপথ্যের আসল কারণ! (ভিডিও)
ভিডিও<span style="color:#ff0000;"><font size="3">
https://www.youtube.com/watch?v=YPElo--LQ0M



http://gazwah.net/wp-content/uploads/2017/10/21617741_1980549588832081_5323543202225959030_n.jp g
গত কিছুদিনে সৌদি সরকার গ্রেফতার করেছে বেশ কয়েকজন আলিম, লেখক ও সাংবাদিকদের। সর্বশেষ গতকাল গ্রেফতার করা হয়েছে বিখ্যাত আলিম, দ্বায়ী,লেখক,গবেষক এবং IslamQA এর প্রতিষ্ঠাতা শাইখ ‘সালেহ আল-মুনাজ্জিদকে। এর পেছনে কারন কী? অনেকে বলছেন এসব কাতারকে সমর্থন করার কারনে তাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। কিন্তু এটা আংশিক সত্য। আসল সত্য আরো অনেক বেশি অবাক করা।

২০০৩ সালে অ্যামেরিকান গ্লোবাল পলিসি থিংকট্যাঙ্ক RAND Corporation একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে। ঠিক কীভাবে ও কাদের সহায়তায় অ্যামেরিকার বৈশ্বিক পলিসির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এক নতুন ইসলাম বানানো যায়, Civil Democratic Islam: Partners, Resources & Strategies নামের এই রিপোর্টে তা আলোচিত হয়। অ্যামেরিকাবান্ধব এই নতুন ‘ইসলামের’ নাম দেয়া হয় ‘মডারেট ইসলাম’ বা Civil Democratic Islam। ২০০৭ সালে “Building Moderate Muslim Networks নামে একটি বিস্তারিত ফলোআপ রিপোর্ট প্রকাশ করে RAND.
রিপোর্টগুলোতে মূলত ৩টি বিষয় আলোচিত হয়।
ক) কেন অ্যামেরিকাবান্ধব এই নতুন ‘ইসলাম’-এর প্রবর্তন ও প্রচার করা উচিৎ
খ) একজন মডারেট মুসলিমের বৈশিষ্ট্য
গ) কীভাবে মুসলিমদের মধ্যে এই ‘মডারেট ইসলাম’ –এর প্রচার ও প্রচলন করা যায়।

RAND Corporation মডারেট ইসলামের প্রসারের ক্ষেত্রে দু’টো মূল হুমকি চিহ্নিত করেছিল। একটি হল ভারতীয় উপমহাদেশের বা একই ধারার অন্যান্য মাদ্রাসাগুলো, এবং অন্যটি হল ‘ওয়াহাবি বা সালাফি’ ইসলাম। বিশেষ করে ‘ওয়াহাবি’ ইসলামকে তারা সবচেয়ে বড় আদর্শিক শত্রু হিসেবে চিহ্নিত করেছিল। তাদের বিশ্লেষন অনুযায়ী ইসলামের সকল ধারার মধ্যে এই ধারা পশ্চিমের প্রতি সবচেয়ে শত্রুতাপূর্ণ, কট্টর ও যুদ্ধংদেহী।
এই একই এজেন্ডার অংশ হিসেবে ‘ওয়াহ্*হাবি ইসলামের’ মোকাবেলার জন্য সাউদি আরবে ইসলামি শিক্ষানীতি ও পাঠ্যসূচী পরিবর্তনের প্রক্রিয়া চালু হয়েছে। অ্যামেরিকার সেক্রেটারি অফ স্টেইট রেক্স টিলারসান সম্প্রতি এক সেনেট হিয়ারিং এ ব্যাপারে কিছুটা আলোকপাত করেছে। টিলারসানের মতে ট্রাম্পের সাউদি সফর ও রিয়াদ সামিটে এ বিষয়ে সাউদি রাজপরিবারের সাথে একট সমঝোতা হয়। আর এরই অংশ হিসেবে সাউদি স্কুলগুলোর পাঠ্যসূচি থেকে ‘ওয়াহাবি’ আদর্শের বইগুলো বাদ দেওয়া এবং হচ্ছে, নতুন প্রজন্মের ইমামদের বিশেষ প্রশিক্ষন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
আর এখানেই লুকিয়ে আছে গণহারে বিভিন্ন আলিমদের গ্রেফতার করার প্রকৃত কারন। সাম্প্রতিক সময়ে সৌদি আরবে যা হচ্ছে তা RAND প্রকল্পের সাথে একই সূত্রে গাথা।


দেখুন Truthseeker – অনুসন্ধিৎসু (https://www.facebookcorewwwi.onion/TruthSeeker.Bn/?fref=mentions)

salahuddin aiubi
10-03-2017, 03:09 PM
নাউযু বিল্লাহ! মুসলমানদের জন্য আল্লাহর নিকট এই ফিৎনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করছি। এই ফেৎনার শিকার হয়ে আল্লাহ ওয়ালা আলেমগণ জেলে চলে যাবে, আর মুর্খ ও অসৎ আলেমরা অনায়াসে মানুষকে বিভ্রান্ত করবে?!!
আল্লাহর আশ্রয় প্রার্থনা করছি।

হে আল্লাহ! একনিষ্ঠ আলিমদেরকে রক্ষা করো! মুসলিমদেরকে হেফাজত করো!

MUBARIZ
10-03-2017, 09:03 PM
তাগুতদের সবচেয়ে বড় ভয় হল হক উলামায়ে কেরামদের নিয়ে। কারণ, উম্মার মাঝে তাদের যে গ্রহণযোগ্যতা আছে তা এই তাগুত সম্প্রদায় অর্জন করতে পারেনি।
তাই তারা হক উলামাদের গুম-খুন আর বন্দী-হয়রানি করে তাদের কণ্ঠকে রুদ্ধ করে দিতে চায়।

কিন্তু তারা জানেনা যে, হক উলামারা আল্লাহর জ্যোতি। তা নিভানো অসম্ভব। নিভাতে গেলে উল্টো তাদের মুখ পুড়ে ছারখার হয়ে যাবে।
আল্লাহ তায়ালা এই উম্মাহর অভিভাবকদের হেফাজত করুন...আমীন।