PDA

View Full Version : আসামকে আরেক আরাকান বানানোর চেষ্টা



Shirajoddola
01-01-2018, 10:22 AM
আসামকে আরেক আরাকান বানানোর চেষ্টা
আসাম প্রসঙ্গ :: কট্টর হিন্দুত্ববাদীদের আরেক আরাকান বানানো চেষ্টা

“NRC খসড়া বাহির হওয়ার পর যদি মুসলমানরা বাংলাদেশে না যায় তাহলে আমরা রাস্তায় রাস্তায়, গ্ৰামে গ্ৰামে , ঘরে ঘরে গিয়ে প্রাণে মারব”।
--গতকালকে প্রেস ব্রিফিংয়ে এমন মন্তব্য করলেন রাষ্ট্রিয় মালু নেতা জে ডি কিরন । এমনভাবে মারবে যা গণহত্যা হবে বলে প্রকাশ্য ঘোষণা দিলেন এই মালু নেতা।

একটু ভাবুন মুসলিম ভাইবোনরা যদি NRC খসড়া প্রকাশ হওয়ার আগে এইরকম হুমকি তাহলে 31 ডিসেম্বর পরে কী হবে মুসলমানদের??

(সম্মানিত ভাইগন ভিডিওটি দেখুন)
ডাউনলোড লিংক:

https://www.s09.saveitoffline.com/get/?i=Aqpp7JzJukpcM6REiIwGtk2KyjAaw7CQ&u=FVJRyL9Vm04PI6iACiiAZVytPpHvrHY6

---------------------------------------------------
হে আল্লাহর বান্দাগণ! এখনই জাগ্রত হওয়ার সময়। আমাকে তোমাকে সকল মুসলিম উম্মাহকে সফলতার পানে, ডাকছে হাতছানি দিয়ে। গাজাওয়াতুল হিন্দের গৌরবময় সৈনিক হতে। যে গাজাওয়াতে অংশগ্রহণের ইচ্ছা পোষণ করেছেন সাহাবগন। তাই আর বসে থাকা নয়। এখনই সময় জেগে উঠার। এখনি সময় ইসলামকে বিজয়ী করার। এখনি সময় শপথ নেবার, হয়তো শাহাদাত, নয়তো শরীয়াত।
আল্লাহ তায়ালা আমাদের জন্য সহজ করুন। আমিন।

Shirajoddola
01-01-2018, 10:35 AM
আসামে ‘বাংলাদেশী’ বিতাড়ণে তালিকা প্রকাশ আগামীকাল
আসামজুড়ে উত্তেজনা : ৬০ হাজার সেনা মোতায়েন
| প্রকাশের সময় : ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ভারতের আসামে আগামী রোববার মধ্যরাতে জাতীয় নাগরিকপঞ্জির তালিকা প্রকাশ করা হবে। এই তালিকা প্রকাশকে ঘিয়ে আসামজুড়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। এই তালিকা প্রকাশকে ঘিরে রাজ্যে সাপ্রদায়িক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশংকা করছে রাজ্য সরকার। তাই নিরাপত্তা রক্ষায় সেখানে প্রায় ৬০ হাজার পুলিশ ও প্যারামিলিটারী মোতায়েন করা হয়েছে।
নাগরিক নিবন্ধনের দায়িত্বে থাকা আসামের আসামের অর্থ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী হেমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেন, ‘আসামে বসবাসরত অবৈধ বাংলাদেশীদের চিহ্নিত করতেই এনআরসি করা হয়েছে। এতে যাদের নাম থাকবে না, তাদের ফেরত পাঠানো হবে। এখানে আমরা কোনো সুযোগ নিচ্ছি না এবং সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থাই নেয়া হয়েছে।’
তবে যেসব হিন্দু বাংলাদেশী আসামে চলে গিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারের নীতি অনুসারে, তাদের আসামে আশ্রয় দেয়া হবে বলেও মন্তব্য করেন বিশ্ব শর্মা।
ধারণা করা হয়, আসামে বিশ লাখেরও বেশি মুসলিম আছেন যাদের শেকড় বাংলাদেশে রয়েছে। জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি তৈরিতে ১৯৫১ সালের পর প্রথমবারের মতো আসামে আদমশুমারি করা হয়। গত বছর প্রথমবারের মতো আসামের ক্ষমতায় বসে হিন্দু জাতীয়তাবাদী দল বিজেপি। নির্বাচনি প্রচারণার সময় দলটি অবৈধ মুসলিমদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ার অঙ্গীকার করেছিল। মুসলিমদের জন্য স্থানীয় হিন্দুরা চাকরি থেকে বঞ্চিত হন বলে অভিযোগ হিন্দুদের।
আসামের মুসলমান নেতারা বলছেন, মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের মতো তাদেরও রাষ্ট্রহীন করতে এনআরসিকে ব্যবহার করা হচ্ছে। ক্ষমতাসীন বিজেপি আসম থেকে শুধু মুসলিমদের তাড়াতেই এই ষড়যন্ত্র করছে বলে তাদের অভিযোগ।
১৯৮৫ সালের আসাম চুক্তি অনুযায়ী, যারা ১৯৭১ সালের ২৪ মার্চ মধ্য রাত পর্যন্ত রাজ্যটিতে প্রবেশ করেছে, তারাই ভারতীয় নাগরিক হিসেবে চিহ্নিত হবে। দশকের পর দশক ধরে আসামে অবৈধ অভিবাসী ইস্যুতে যে গোলযোগ চলছে, এনআরসি তা অবসানে সহায়ক হবে বলে আশা করা হচ্ছে।
রাজ্যটির মুসলিম সপ্রদায়ের (তারা রাজ্যের এক তৃতীয়াংশ) ৯০ ভাগ বাংলা ভাষাভাষী। তাদেরকে এখন বাংলাদেশি বা ‘মিয়া’ হিসেবে যে গাল দেয়া হয়, এর অবসানও ঘটাতে পারে এনআরসি।
প্রসঙ্গত, একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় হাজার হাজার মানুষ ভারতে আশ্রয় নিয়েছিলেন। তাদের বেশিরভাগই আসামে বসতি গড়েছিলেন বলে অভিযোগ করে আসছেন আসামের জাতীয়তাবাদীরা।

সূত্র: https://www.dailyinqilab.com/article/110492/%E0%A6%86%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%87-%E2%80%98%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%82%E0%A6%B2%E0%A 6%BE%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B6%E0%A7%80%E2%80%99-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A 6%A3%E0%A7%87-%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A 6%BE-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A 6%B6-%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%80%E0%A 6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B2

রক্ত ভেজা পথ
01-01-2018, 01:24 PM
ইয়া আল্লাহ! তুমি মুসলিমদের হেফাযত কর। আর মুজাহিদদের শক্তিকে বাড়িয়ে দাও।

sawtul_hind
01-03-2018, 09:54 PM
জেগে ওঠো ও মুসলমান
আর থেকো না ঘুমে,
দিক-দিগন্তে ঐ শোনা যায়
ডাকছে মুয়াজ্জিনে।

bokhtiar
01-04-2018, 06:52 AM
জাযাকাল্লাহ।
আমাদের কি করণীয়? এমূহুর্তে আমাদের করণীয় নিজেদের প্রস্তুত করে তুলা। শারীরিক ও মানসিকভাবে নিজেকে জিহাদের জন্য প্রস্তুত করা। সাদাকার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়া। মাসিক সাদাকার প্রতি খেয়াল করা। ইমারাতকে নিজের পরিবারের একজন মনে করা। এরকম যেনো না হয়, একবার সাদাকা দিয়ে আর খবর নাই।

কালো পতাকা
01-04-2018, 08:21 AM
যত জুলুম করা হবে ততই ইসলাম এর বিজয় নিকটে চলে আসে
জাযাকাল্লাাহ

Diner pothe
01-04-2018, 10:37 PM
allah amader ke tawfik dan koren. ameen.