Announcement

Collapse
No announcement yet.

কাফেররা আল্লাহর নূরকে মুখের ফুঁৎকারে নিভিয়ে দিতে চায়!!!

Collapse
X
 
  • Filter
  • Time
  • Show
Clear All
new posts

  • কাফেররা আল্লাহর নূরকে মুখের ফুঁৎকারে নিভিয়ে দিতে চায়!!!

    الحمد لله الذي خلق جنة و النار و خلق الشمس و القمر و جعلنا من المسلمين.
    و صلى الله على نبيه المصطفى و على اله و اصحابه اجمعين اما بعد فاعوذ بالله من اشيطان الرجم بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ
    يُرِيدُونَ أَن يُطْفِئُوا نُورَ اللَّهِ بِأَفْوَاهِهِمْ وَيَأْبَى اللَّهُ إِلَّا أَن يُتِمَّ نُورَهُ وَلَوْ كَرِهَ الْكَافِرُونَ

    আলহামদুলিল্লাহ! সকল প্রসংশা আল্লাহ তা'আলার জন্য। যিনি আসমান ও যমীন সমূহের মালিক। এবং দূরুদ ও সালাম প্রিয় হাবীব মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর উপর ও তার পরিবার পরিজনের উপর।
    প্রিয় ভাই ! আজ উম্মাহর হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে । মনে হচ্ছে এ যেন কিছুতে থামবার নয়। শাইখের শাহাদাতের সংবাদ আমাদের হৃদয়ে আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে। জানা নেই এ সংবাদ সত্য নাকি মিথ্যা। তবে এ সংবাদ হৃদয়ে যে আঘাত হেনেছে তা সহ্য করা খুবই কষ্টের । আল্লাহ এ সংবাদকে মিথ্যায় রুপান্তরিত করুন।
    এ সংবাদে আমরা ব্যথিত তবে বিচলিত নই। কারণ আল্লাহর দ্বীন কোন ব্যক্তির উপর নির্ভরশীল নয় যে, তিনি না থাকলে দ্বীন প্রতিষ্ঠা সম্ভব হবে না। তবে আল্লাহ যাকে চান শহীদ হিসেবে কবুল করেন।
    আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো: আমরা মিথ্যাবাদী মার্কিনীদের ও তাদের দালাল মিডিয়ার প্রচারিত সংবাদকে কখনোই বিশ্বাস করি না। যতক্ষণ না একিউ সম্পৃক্ত নির্ভরযোগ্য কোন মিডিয়া থেকে সঠিক সংবাদ পাই। সুতরাং তাদের প্রোপাগান্ডা ও প্রচারণায় বিভ্রান্ত না হয়ে সঠিক সংবাদ পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করাই কাম্য।
    যদি এ সংবাদ সত্য হয় তাহলে তিনি জান্নাতের সবুজ পাখিদের একজন ইনশা আল্লাহ।
    কাফেররা মনে করে কোন এক ব্যক্তিকে শহীদ করে দেওয়ার মাধ্যমে দ্বীনকে মিটিয়ে দিবে। অথচ তারা জানে না এ দ্বীনের হেফাজতের দায়িত্ব নিয়েছেন স্বয়ং আল্লাহ । যিনি সব কিছুর উপর ক্ষমতাবান।
    আল্লাহ তা'আলা বলেন يُرِيدُونَ أَن يُطْفِئُوا نُورَ اللَّهِ بِأَفْوَاهِهِمْ وَيَأْبَى اللَّهُ إِلَّا أَن يُتِمَّ نُورَهُ وَلَوْ كَرِهَ الْكَافِرُونَ
    তারা তাদের মুখের ফুৎকারে আল্লাহর নূরকে নির্বাপিত করতে চায়। কিন্তু আল্লাহ অবশ্যই তাঁর নূরের পূর্ণতা বিধান করবেন, যদিও কাফেররা তা অপ্রীতিকর মনে করে।
    Last edited by Munshi Abdur Rahman; 1 week ago.
    এসো জিহাদের পথে! এসো তাওহীদের ছায়াতলে!

  • #2
    এতে পেরেশানির কি আছে আমাদের শায়খ আল্লাহর ইচ্ছায় হয়ত দুনিয়া থেকে জান্নাতে আরামে রেস্ট নেওয়ার জন্য গিয়েছে ।এটা আমাদের জন্য আনন্দের বিষয়।
    পৃথিবীর রঙ্গে রঙ্গিন না হয়ে পৃথিবীকে আখেরাতের রঙ্গে রাঙ্গাই।

    Comment

    Working...
    X