Announcement

Collapse
No announcement yet.

বাংলার আকাশে দূর্ভিক্ষের ঘনঘটা ও আমাদের সতর্কতা,

Collapse
X
 
  • Filter
  • Time
  • Show
Clear All
new posts

  • বাংলার আকাশে দূর্ভিক্ষের ঘনঘটা ও আমাদের সতর্কতা,

    ধেয়ে আসছে ভয়ানক মহা আতঙ্কের দু:সময় ।৪৩,৪৯,৫৬সালের ভয়াবহতা স্মরন হলে এখনো চোখে আসে অশ্রুজল ,৭১ যুদ্ধপরবর্তী৭৪র সময় লাশের মিছিল ভাসে দিব্যি চোখে।"জিবনের খেলাঘরে ,"নিজ আত্মজীবনীতে মুহীউদ্দীন খাঁন সাহেব ৪৩-৫৬এর দূর্ভিক্ষের যে বিবরন তুলে ধরেছেন পড়লে অন্তরাত্মা যায় শুকিয়ে । চোখে ভাসে মানবতার করুণ কান্না,না খেয়ে পথের ধারে পড়ে থাকা লাশ,খাদ্যাভাবে কোলের মানিক বিক্রির মতো নির্মম ঘটনা, হাঁ মিথ্যে নয় এখনই সন্তান বিক্রির খবর পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। তাহলে কী হবে সে দুঃসময় ? হাঁ অবস্থা আরো ভয়ানক হয়ে পুনরাবৃত্তি হতে যাচ্ছে অদক্ষতা,দুর্নীতি,ঋন, বিশাল বিশাল প্রজেক্টে বেহাত খরচ এর কারণ ,আবারো ত্বাগুত সরকারের দূর্নীতি দুঃশাসনের বলি হতে যাচ্ছে আপামর জনগণ।দেশে সর্বত্র স্পষ্ট থেকে স্পষ্টতর হচ্ছে দূর্ভিক্ষের আলামত।হু হু করে বাড়ছে নিত্যপণ্য‌ থেকে নিয়ে যাতায়াত খরচ। অসহ্য গরমেও চলছে লোডশেডিং । ত্বাগুত হাসিনার কথা অনুযায়ী সিডিউল করে হচ্ছে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন লোডশেডিং। উন্নতির ঢোল পিটিয়ে ঘুম পাড়িয়ে রাখা হয়েছে জাতিকে , সামনের ভয়াবহতা সম্পর্কে বেখবর রাখতে শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করছে ত্বাগুত এমপি মন্ত্রী। সুতরাং হে প্রিয় উম্মাহ!বসে না থেকে ৫৬,৭১পরবর্তী অবস্হা পড়ুন জানুন শিক্ষা নিন। ইতিহাসের একটা সাধারণ রীতি হচ্ছে পুনরাবৃত্তি। মনে রাখবেন দূঃসময়ে কাউকে কাছে পাবেন না,কারন পূজিবাদের গলায় আটকে আছে মানবতা। দুনিয়ার তুচ্ছ লাভের হিসাব মানুষ এমনভাবে রপ্ত করেছে ফলে সাহায্য সহযোগিতা,দায়ীত্ববোধের ক্ষেত্রগুলো আজ চরমভাবে বিধ্বস্ত ।তাই প্রস্তুতি গ্রহণ করুন।খাদ্য মজুদ করুন।আপনার ঘরে যেন সব সময় একবছরের খাদ্য মজুদ থাকে।যাতে পেটের ফিকিরে ঐসময় দ্বীনের ফিকির বাঁধাগ্রস্ত না হয়। এজন্য সচেতন আলেমগণ এমন পরামর্শ দিচ্ছেন। হে আল্লাহ সহজ করো যত কঠিন, মোদের প্রতি হও প্রভু রহমদিল!
    যে খাবারগুলো মজুদ রাখতে পারেন!
    ১: 🍚 ধান।
    ২:গম ,ভুট্টা,(গমের ব্যপারে গতদিন এক ত্বাগুত মন্ত্রী বলেছে,,আটার রুটির বদলে চালের রুটি খেতে,, বুঝতেই পারছেন গম সংকটের সুস্পষ্ট ইঙ্গিত।)
    ৩: দীর্ঘদিন থাকে এমন সবজি।
    যেমন:আলু(সকল প্রজাতির),মুকি, মিষ্টি কুমড়া ইত্যাদি
    ৪:ডাল,শিম বিচি,ইত্যাদি
    তাছাড়া এধরনের দীর্ঘদিন থাকবে এজাতীয় খাদ্য সংরক্ষণ করা যায়।
    আল্লাহু মুসতাআন!
    Last edited by Munshi Abdur Rahman; 1 week ago.

  • #2
    সুতরাং আমরা যারা আওয়ামী লীগ্ বা বিএনফি করি তারা এর থেকে এই শিক্ষা গ্রহন করতে পারি যে আমরা মূলত যেই অর্থের জন্য কিংবা ক্ষমতার জন্য বা পদ মর্যাদার জন্য আওয়ামী লীগ বা বিএনপি করে থাকি তাদের সকল অর্থ বা পদমর্যাদা এবং ক্ষমতা একসময় এই ভাবে শেষ হয়ে যাবে । তাই আমরা এসব দল ছেড়ে আল্লাহর দলে যোগ দেই কারণ আল্লাহর ধনসম্পদ কখনো ফুরিয়ে যাবে না । তার মর্যাদা কখনো লোপ পাবে না।
    পৃথিবীর রঙ্গে রঙ্গিন না হয়ে পৃথিবীকে আখেরাতের রঙ্গে রাঙ্গাই।

    Comment

    Working...
    X