Announcement

Collapse
No announcement yet.

উম্মাহ নিউজ# | ১০ই জামাদিউস সানী, ১৪৪৩ হিজরি।। ১৪ই জানুয়ারী, ২০২২

Collapse
X
 
  • Filter
  • Time
  • Show
Clear All
new posts

  • উম্মাহ নিউজ# | ১০ই জামাদিউস সানী, ১৪৪৩ হিজরি।। ১৪ই জানুয়ারী, ২০২২

    তেলেঙ্গানায় আসামের মুখ্যমন্ত্রীর ইতিহাস থেকে মুসলিমদের মুছে ফেলার আহ্বান


    আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা ইসলাম ও মুসলিম বিদ্বেষী বিভিন্ন মন্তব্য করে সমালোচিত হয়েছে বহুবার। তবে তার এবারের ঘোষণা আগের যেকোন বারের চেয়ে একটু বেশিই উগ্র। সে বলেছে, শিগগিরই নিজাম ও ওয়াইসির নাম মুছে ফেলা হবে।

    তেলেঙ্গানার ওয়ারাঙ্গালে এক সমাবেশে ভাষণে উগ্র হিন্দু নেতা হেমন্ত বলেছে, “আমাদের একটি নতুন ভারত গড়তে হবে, যেখানে কোনও ওয়াইসি, আওরঙ্গজেব, বাবরের জন্য কোনও স্থান থাকবে না এবং যেখানে কেউ নিজামের ইতিহাস পড়বে না এবং যদি কেউ ইতিহাস পড়ে তবে সে সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের ইতিহাস পড়বে।”

    মুসলিমদের ইতিহাস মুছে নতুন ভারত গড়ার আহ্বান জানিয়ে সে মুলত মুসলিম গণহত্যার আগুনে ঘি ঢালছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

    এছাড়া সে উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণ এবং ভারত-দখলকৃত কাশ্মীরের বিশেষ প্রশাসনিক মর্যাদা বাতিলেরও প্রশংসা করেছে। এ

    মুসলিমদের গাফলতের সুযোগ নিয়ে হিন্দুত্ববাদীরা ভারতের মুসলিদের অবদান সম্পূর্ণরূপে মুছে ফেলার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। যেন পরর্বতী প্রজম্ম জানতেই না পারে যে, এই ভারতে এক সময় মুসলিমদের রাজত্ব্য ছিল। ইসলামি শাসন ব্যবস্থাই এই অন্ধকারাচ্ছন্ন ভারতকে সভ্যতা ও ন্যায়নীতির শিক্ষা দিয়েছিল।

    আর হিন্দুত্ববাদীরা এমন এক ভারতের স্বপ্ন দেখছে যেখানে কোন মুসলিম থাকবে না। মুসলিমদের অবদান মুছে ফেলতে ইসলামিক নাম পরিবর্তন করে হিন্দুয়ানী নামকরণ করা হচ্ছে। শিক্ষা সিলেবাসে মুসলিম ব্যক্তিদের লুটেরা, সন্ত্রাস হিসেবে তুলে ধরা হচ্ছে। ভারত হবে তাদের কল্পিত হিন্দু রাষ্ট্র, যার কথা তারা প্রকাশ্যেই ঘোষণা করছে।

    তবে হিন্দুত্ববাদীরা যাই বলুক বা করুক, বিজয়ের শেষ হাসি মুসলিমরাই হাসবেন বলে মনে করেন ইসলামি চিন্তাবিদগণ। কিন্তু এর জন্যে নববী মানহাজের অনুসরণ করে হিন্দুত্ববাদী আগ্রাসন মোকাবেলায় প্রস্তুতির কোন বিকল্প নেই বলে মনে করেন তাঁরা।

    তথ্যসূত্র:
    —–
    ১। Names of Nizam and Owaisi will be eliminated: Assam CM Himanta Biswa’s hate speech in Telangana
    https://tinyurl.com/2xh7ncnu
    https://tinyurl.com/yysp7erh
    আপনাদের নেক দোয়ায় আমাদের ভুলবেন না। ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট: alfirdaws.org

  • #2
    ভারতে আর এক ধাপ পরেই শুরু হবে মুসলিম গণহত্যা: অধ্যাপক স্ট্যান্টন

    ভারতে হিন্দুত্ববাদীরা রাম রাজ্য প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে পরিকল্পিতভাবে ধীরে ধীরে মুসলিম গণহত্যার দিকে যাচ্ছে। যার ঘোষণা এখন হিন্দুত্ববাদী উগ্র নেতারা প্রকাশ্যভাবেই দিচ্ছে। মুসলিমদের জাতিগত নির্মূল প্রক্রিয়ার পূর্ব ধাপগুলো সম্পন্ন করে মূল নিধন পর্বে প্রবেশের প্রস্তুতি নিচ্ছে হিন্দুত্ববাদীরা।

    এ ব্যাপারে প্রফেসর গ্রেগরি এইচ স্ট্যান্টন গত সোমবার (১০/০১/২২) টুইটারে ভারতে মুসলিমদের উপর গণহত্যা শুরু হওয়ার ব্যাপারে জরুরী সতর্ক বার্তা দিয়েছেন।

    জেনোসাইড ওয়াচের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক স্ট্যান্টন বলেছেন, ভারত মুসলিম সম্প্রদায়ের উপর গণহত্যা চালানোর ৮ম ধাপে আছে। আর এক ধাপ পরেই শুরু হবে মুসলিম গণহত্যা।
    প্রফেসর স্ট্যান্টন হলো “গণহত্যার ১০ ধাপ” তত্ত্বের স্থপতি এবং অলাভজনক সংস্থা জেনোসাইড ওয়াচের প্রতিষ্ঠাতা। এই সংগঠন গণহত্যার পূর্বাভাস জানায় এবং গণহত্যা-সহ অন্যান্য সব উপায়ে মানুষ হত্যা প্রতিরোধে কাজ করে৷

    জাস্টিস ফর অল অর্গানাইজেশনের আয়োজিত একটি ভার্চুয়াল ইভেন্টে প্রফেসর স্ট্যান্টন বলেছেন, ভারত গণহত্যা, নিপীড়নের ৮ম পর্যায়ে রয়েছে; নির্মূল করা থেকে মাত্র এক ধাপ দূরে। তিনি আরও বলেছেন, দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি “এটি (গণহত্যা) করতে পারলে খুব খুশি হবে”।

    হিন্দু চরমপন্থী গোষ্ঠী, রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) এর সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত থাকার জন্যও মোদীর সমালোচনা করেছেন অধ্যাপক স্ট্যান্টন। তিনি আরএসএসকে হিটলারের প্রতিষ্ঠিত নাৎসি সংগঠনের সাথে তুলনা করেছেন। এই নাৎসি বাহিনী অগণিত মানুষকে হত্যা করেছিল।

    উল্লেখ্য, ইতোমধ্যেই হিন্দুত্ববাদী উগ্র সন্ত্রাসীরা মুসলিমদের গণহারে হত্যা করার প্রকাশ্য আহ্বান জানাচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় মুসলিমদের হত্যা করে ভারতকে হিন্দু রাষ্ট্রে পরিণত করার শপথ নিচ্ছে। বিভিন্ন বয়সের হিন্দুদের প্রকাশ্যে মুসলিম হত্যার জন্য প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। মুসলিমদের উপর হামলা চালানো হচ্ছে। মুসলিমদের বয়কটের শপথ নেওয়া হচ্ছে। সব মিলিয়ে মুসলিমদের অনাগত দিনগুলো আরো ভয়াবহ আকার করছে।

    তাই ইসলামি বিশ্লেষকগণ মতামত ব্যক্ত করেছেন যে, মুসলিমদের এখন চিন্তা করা উচিৎ তাদের খুন করতে হিন্দুত্ববাদীরা তরবারি ধার দিয়ে দিচ্ছে, অস্ত্রের প্রশিক্ষণ নিচ্ছে। সুতরাং তারা কি এখন হিন্দুত্ববাদী আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াবে নাকি খুন হওয়ার জন্য প্রহর গুণবে?

    তথ্যসূত্র:
    —–
    India is in 8th stage of genocide, just one step away from extermination: Genocide Watch founder Prof Stanton
    https://tinyurl.com/2p8ja52t
    আপনাদের নেক দোয়ায় আমাদের ভুলবেন না। ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট: alfirdaws.org

    Comment

    Working...
    X