কাশ্মীরে মুসলিম জনতার উপর ভারত দখলদারবাহিনীর হামলা


কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার এরিপাল গ্রামে আবারও স্বাধীনতাকামী জনতার উপর হামলা চালায় সরকারী বাহিনী।

৫ তারিখ, শনিবারে কাশ্মীরের সংবাদ পত্রিকা গ্রেটার কাশ্মীরের বরাতে জানা যায়, ভারতের দখলদার বাহিনী প্রথমে গ্রামবাসীদের ঘেরাও করে নেয়। এর পরে যখন সাহসী যোদ্ধারা সকলের নিরাপত্তার জন্য যুদ্ধ শুরু করে দেয় তখন
নির্বিচারে এলাকাবাসীর উপর পৈশাচিক হামলা চালানো শুরু করে।
সত্যকে থামাচাপা জন্য এবারো ভারত সরকার প্রচুর চেষ্টা করে। তারা সব সময়ের এহামলার পরও এলাকার ইন্টারনেট বন্ধ করে দেয়, যেন আসল ঘটনা বাইরে প্রকাশ না পেতে পারে, আর সংবাদ সম্মেলনে তারা যা বলে তাই যেন টিকে যায়।
কিন্তু তারা এবার পরিপূর্ণ সফল হতে পারে নি। কাশ্মীরের সাধারণ জনগণ এবারো ইসলামের হয়ে তাদের স্বাধীনতার পক্ষে যারা লড়ছে তাদের জন্য রাস্তায় নেমে এসেছেন। ভারত সরকার কাশ্মীরে যাদের সন্ত্রাসী বলে হত্যা করার চেষ্টা করছে তাদেরকে রক্ষা করার জন্য সারা কাশ্মীরের জনতা তাদের জীবন বাজী রেখে মাঠে অবস্থান নিয়েছেন। দখলদারদের প্রতি তীব্র ক্ষোপ প্রকাশ করেছেন।
ভারতের হিন্দুত্ববাদী উগ্রবাহিনী সাধারণ জনগণের এই প্রতিবাদকে থামানর জন্য তাদের উপর হামলা চালিয়েছে। ফলে অনেক মুসলিম গুরুতর আহত হয়েছেন।