Page 2 of 2 FirstFirst 12
Results 11 to 15 of 15
  1. #11
    Media Al-Firdaws News's Avatar
    Join Date
    Sep 2018
    Posts
    3,164
    جزاك الله خيرا
    30
    10,068 Times جزاك الله خيرا in 3,150 Posts
    বইমেলায় ইসকনের স্টল বরাদ্দ বাতিল করতে বললেন বাবুনগরী



    একুশে বইমেলায় আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ তথা ইসকনকে স্টল বরাদ্দ দেয়ার ঘটনাকে বাংলা একাডেমির উস্কানিমূলক পদক্ষেপ উল্লেখ করে অবিলম্বে এই বরাদ্দ বাতিলের দাবি জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও হাটহাজারী মাদরাসার সহযোগী পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

    বুধবার এক বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ইসকন উগ্র ও ফ্যাসিবাদী হিন্দুত্ববাদের মতাদশের প্রচার প্রসারে জড়িত একটি বিতর্কিত আন্তর্জাতিক সংগঠন।

    তিনি আরো বলেন, বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের উন্নয়ন ও প্রসারের লক্ষ্যে প্রতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমি এই বইমেলার আয়োজন করা হয়। বাংলা একাডেমি হওয়ার কথা বাঙালি মুসলমানের মননের প্রতীক। বাংলা একাডেমির মূল কাজ বাঙালি মুসলমানের সাহিত্য, জীবনবোধ ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে সমৃদ্ধ করা। ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর মতো একজন বুজুর্গ এই প্রতিষ্ঠান গড়ায় মুখ্য ভূমিকা রেখেছেন। আজ সেখানে আমরা দেখছি উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের স্টল। এটা বাংলা একাডেমির প্রতিষ্ঠাতাদের চিন্তার সম্পূর্ণ বিপরীত।

    হেফাজত মহাসচিব বলেন, বাংলা একাডেমি গড়ে উঠেছে এবং পরিচালিত হচ্ছে দেশের জনগণের অর্থে। এরকম প্রতিষ্ঠানের কাজে দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের সংস্কৃতি, জীবনবোধ ও সাহিত্য ঐতিহ্যের প্রতিফলন থাকার দায় রয়েছে। এরকম একটি প্রতিষ্ঠান কোনভাবেই সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের ধর্ম ও মূল্যবোধের সাথে সাংঘর্ষিক কোনো সংস্থাকে তার দর্শন প্রচারের জন্য জায়গা করে দিতে পারে না। এটা জনগণের অর্থে জনগণের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের প্রতি আক্রমণ বৈ কিছু নয়।

    তিনি বলেন, সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ইসকনের সাম্প্রদায়িক কার্যক্রমের বিরুদ্ধে তৌহিদী জনতার প্রতিবাদ ও অসন্তোষ দেখেছি আমরা। এখন বিস্ময়ের সঙ্গে আমাদের দেখতে হচ্ছে- বাংলা একাডেমির মতো সাহিত্য-সংস্কৃতির কেন্দ্রীয় একটি প্রতিষ্ঠানের ভিতরে ইসলামের প্রতি ঘৃণা-বিদ্বেষ লালনকারী ইসকনের আদর্শের প্রতি সহানুভূতিশীল মানুষ বসে আছে।

    আল্লামা বাবুনগরী আরো বলেন, মেলায় কেবল ইসকনের স্টল বাতিলই নয়, বাংলা একাডেমিকে অবিলম্বে ব্যাখ্যা দিতে হবে, ঠিক কী কারণে তারা হিন্দুত্ববাদ প্রচারকারী একটা সংস্থাকে স্টল দিয়েছে। কাদের তরফ থেকে এবং কাদের দ্বারা এই ঘটনা ঘটেছে।

    হেফাজত মহাসচিব ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আজ দক্ষিণ এশিয়া জুড়ে যখন হিন্দুত্ববাদের বিরুদ্ধে তরুণ-তরুণীদের বিক্ষোভ হচ্ছে, খোদ সারা ভারতে যখন সাম্প্রদায়িক নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে হিন্দুত্ববাদী আদর্শের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ও সামাজিক আন্দোলন চলছে, তখন ইসকনকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে বাংলাদেশ বিশ্বকে কী বার্তা দিতে চাচ্ছে?

    বাংলা একাডেমির এই উস্কানিমূলক পদক্ষেপের জন্য জনগণের যেকোনো ক্ষোভের প্রকাশ ঘটলে তার দায়ভার বাংলা একাডেমির উপরই বর্তাবে উল্লেখ করে, বাংলাদেশের শান্তি-শৃঙ্খলা, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য অনতিবিলম্বে ইসকনের স্টল বরাদ্দ বাতিলের দাবি জানান হেফাজত মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

    সূত্রঃ নয়া দিগন্ত


    সূত্র: https://alfirdaws.org/2020/02/06/32621/
    আপনাদের নেক দোয়ায় আমাদের ভুলবেন না। ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট: alfirdaws.org

  2. The Following 2 Users Say جزاك الله خيرا to Al-Firdaws News For This Useful Post:

    abu mosa (1 Week Ago),Munshi Abdur Rahman (1 Week Ago)

  3. #12
    Media Al-Firdaws News's Avatar
    Join Date
    Sep 2018
    Posts
    3,164
    جزاك الله خيرا
    30
    10,068 Times جزاك الله خيرا in 3,150 Posts
    বই মেলায় ইসকনকে স্টল বরাদ্দ দেওয়া বাংলা একাডেমির উস্কানিমূলক পদক্ষেপ: আল্লামা বাবুনগরী



    একুশে বই মেলায় আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ তথা ইসকনকে স্টল বরাদ্দ দেওয়ার ঘটনাকে বাংলা একাডেমির উস্কানিমূলক পদক্ষেপ উল্লেখ করে অবিলম্বে এই বরাদ্দ বাতিলের দাবি জানিয়েছেন হাটহাজারী মাদরাসার সহযোগী পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

    গতকাল (৪ ফেব্রুয়ারি) বুধবার সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ইসকন উগ্র ও ফ্যাসিবাদি হিন্দু মতাদর্শের প্রচার প্রসারে জড়িত একটি বিতির্কত আন্তর্জাতিক সংগঠন।

    তিনি আরো বলেন,বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের উন্নয়ন ও প্রসারের লক্ষ্যে প্রতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমি এই বই মেলার আয়োজন করে। বাংলা একাডেমি হওয়ার কথা বাঙ্গালি মুসলমানের মননের প্রতীক। বাংলা একাডেমির মূল কাজ বাঙ্গালি মুসলমানের সাহিত্য, জীবনবোধ ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে সমৃদ্ধ করা। ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর মতো একজন বুযূর্গ এই প্রতিষ্ঠান গড়ায় মুখ্য ভূমিকা রেখেছেন। আজ সেখানে আমরা দেখছি উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের স্টল। এটা বাংলা একাডেমির প্রতিষ্ঠাতাদের চিন্তার সম্পূর্ণ বিপরীত। বাংলা একাডেমি গড়ে উঠেছে এবং পরিচালিত হচ্ছে দেশের জনগণের অর্থে। এরকম প্রতিষ্ঠানের কাজে দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের সংস্কৃতি, জীবনবোধ ও সাহিত্য ঐতিহ্যের প্রতিফলন থাকার দায় রয়েছে। এরকম একটি প্রতিষ্ঠান কোনভাবেই সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের ধর্ম ও মূল্যবোধের সঙ্গে সাংঘর্ষিক কোন সংস্থাকে তার দর্শন প্রচারের জন্য জায়গা করে দিতে পারে না। এটা জনগণের অর্থে জনগণের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের প্রতি আক্রমণ বৈ কিছু নয়।


    সূত্র: https://alfirdaws.org/2020/02/06/32605/
    আপনাদের নেক দোয়ায় আমাদের ভুলবেন না। ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট: alfirdaws.org

  4. The Following 2 Users Say جزاك الله خيرا to Al-Firdaws News For This Useful Post:

    abu mosa (1 Week Ago),Munshi Abdur Rahman (1 Week Ago)

  5. #13
    Media Al-Firdaws News's Avatar
    Join Date
    Sep 2018
    Posts
    3,164
    جزاك الله خيرا
    30
    10,068 Times جزاك الله خيرا in 3,150 Posts
    ৫ নৈশপ্রহরীকে বেঁধে ৮ দোকানে ডাকাতি, গ্রেফতার হয়নি কেউ



    গাজীপুরের কালীগঞ্জে আবার বাজারে গণডাকাতি হয়েছে। এবার ডাকাত দল উপজেলার মোক্তারপুর ইউনিয়নের সাওরাইদ বাজারে হানা দিয়ে ৫ নৈশপ্রহরীকে বেঁধে স্বর্ণকারের দোকানসহ ৮ দোকানে ডাকাতি করেছে। ডাকাতরা নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারসহ ৬ লাখ টাকার মালা মালামাল লুট করে নেয়।

    এর আগে গত ১০ ডিসেম্বর উপজেলার উলুখোলা বাজারে হানা দিয়ে ৫টি স্বর্ণালংকারের দোকান থেকে ৫৫ ভরি সোনা, ৩৪০ ভরি রূপা ও নগদ টাকাসহ ৩৫-৩৬ লাখ টাকার মালামাল লুট করেছিল।

    স্থানীয়ভাবে জানা গেছে, মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ১৪-১৫ জনের একদল ডাকাত পিকআপ নিয়ে সাওরাইদ বাজারে হানা দেয়। তারা ৫ নৈশপ্রহরীকে বেঁধে ১২টি দোকানের তালা ভেঙে আওলাদ হোসেন ও আজিমউদ্দীনের মোবাইল ফোনের দোকান, সুভাষ ও কৃষ্ণ বণিকের স্বর্ণালংকারের দোকান, আরিফ হোসেনের হার্ডওয়্যারের দোকান, কাউছার হোসেন ও মাসুদল ইসলামের মুদি দোকন এবং শরীফ হোসেনের ওয়ালটন শো রুম থেকে নগদ প্রায় দুই লাখ টাকা, সাড়ে তিন ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও মালামাল মিলিয়ে ৬ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

    বারবার এমন ডাকাতি হলেও এমন ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কাউকেই গ্রেফতার করেনি আওয়ামী দালাল পুলিশ বাহিনী।


    সূত্র: https://alfirdaws.org/2020/02/06/32624/
    আপনাদের নেক দোয়ায় আমাদের ভুলবেন না। ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট: alfirdaws.org

  6. The Following 2 Users Say جزاك الله خيرا to Al-Firdaws News For This Useful Post:

    abu mosa (1 Week Ago),Munshi Abdur Rahman (1 Week Ago)

  7. #14
    Media Al-Firdaws News's Avatar
    Join Date
    Sep 2018
    Posts
    3,164
    جزاك الله خيرا
    30
    10,068 Times جزاك الله خيرا in 3,150 Posts
    নিজেদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধেই ঝাড়ু মিছিল সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের



    খাগড়াছড়ি জেলা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সভাপতি টিকো চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন ফিরোজের বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল করেছে জেলা উপজেলা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ঝাড়ু মিছিল করে এ বিক্ষোভ করে তারা।

    খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিভিন্ন উপজেলা কমিটিতে ছাত্রদলের লোকজন দিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে কমিটি ঘোষণা, দায়িত্ব পালনে অনিয়ম-দুর্নীতি এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ জেলা কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু মিছিল করা হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সন্ত্রাসীদের গডফাদার আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এই সন্ত্রাসী নেতাকর্মীরা।

    সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, মেয়াদ উত্তীর্ণ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদক লাগাতার সেচ্ছাচারিতা,অনিয়ম-দুর্নীতি ও অর্থ আদায়ের মাধ্যমে ছাত্রদল নেতৃবৃন্দকে মাটিরাঙ্গা,পানছড়ি উপজেলা,পানছড়ি সরকারি কলেজ,রামগড় সরকারি কলেজে কমিটি ঘোষণা করে আওয়ামী লীগের রাজনীতি ধ্বংসের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে।

    সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সহসভাপতি খোকন চাকমা। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিল, জেলা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সহসভাপতি উবিক মোহন ত্রিপুরা, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাপ্পী চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক কিশোর ময় ত্রিপুরা, পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শ্রীকান্ত দেব মানিক ও খাগড়াছড়ি পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল করিম।

    এর আগে গত রোববার পানছড়ি উপজেলায় জেলা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করেছিল সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

    উল্লেখ্য সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সদস্যরা নিজেদের মধ্যে রেষারেষি ও ব্যক্তি স্বার্থের কারনে প্রায়ই নিজেরাই নিজেদের বিরুদ্ধে এমন কর্মকান্ড করে থাকে।

    সূত্রঃ আমাদের সময়


    সূত্র: https://alfirdaws.org/2020/02/06/32612/
    আপনাদের নেক দোয়ায় আমাদের ভুলবেন না। ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট: alfirdaws.org

  8. The Following 2 Users Say جزاك الله خيرا to Al-Firdaws News For This Useful Post:

    abu mosa (1 Week Ago),Munshi Abdur Rahman (1 Week Ago)

  9. #15
    Senior Member abu mosa's Avatar
    Join Date
    May 2018
    Posts
    1,153
    جزاك الله خيرا
    7,070
    1,723 Times جزاك الله خيرا in 825 Posts
    হে আল্লাহ আপনি মুসলমানদেরকে হেফাজত করুন,আমিন।
    হয়তো শরিয়াহ, নয়তো শাহাদাহ,,

Posting Permissions

  • You may not post new threads
  • You may not post replies
  • You may not post attachments
  • You may not edit your posts
  •