Results 1 to 4 of 4
  1. #1
    Senior Member khalid-hindustani's Avatar
    Join Date
    Jul 2015
    Posts
    468
    جزاك الله خيرا
    1
    968 Times جزاك الله خيرا in 330 Posts

    আরকানে বন্ধ হয়ে গেছে আজান-নামাজ, জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে ২০০ মসজিদ ও ৫০ মাদরাসা

    আরাকানে মিয়ানমার সেনা-পুলিশ ও মগ দস্যুদের চলমান গণহত্যায় রেহায় দেয়ায় হয়নি আরাকানি মুসলমানদের ধর্মীয় ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা গুলো। পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে বিস্তীর্ণ আরাকানের মসজিদ-মাদরাসা ও খানাকা সমূহ।

    প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা মুসলমান ও ওপারের বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে, সেনা-পুলিশ ও মগ দস্যুরা জ্বালিয়ে দিয়েছে ৫০টি মাদরাসা ও দুই শতাধিক মসজিদ। ২৪ আগস্টের পর থেকে এখন আরাকানের মসজিদ সমূহে বন্ধ রয়েছে আজান-নামাজ।

    Source: https://www.dailyinqilab.com/article/95317/

  2. The Following User Says جزاك الله خيرا to khalid-hindustani For This Useful Post:

    ফুরসান৪৭ (09-11-2017)

  3. #2
    Senior Member মুরাবিত's Avatar
    Join Date
    Aug 2017
    Posts
    208
    جزاك الله خيرا
    3
    271 Times جزاك الله خيرا in 114 Posts
    জাজাকাল্লাহ।

  4. #3
    Senior Member salahuddin aiubi's Avatar
    Join Date
    Oct 2015
    Posts
    714
    جزاك الله خيرا
    0
    1,164 Times جزاك الله خيرا in 465 Posts
    Quote Originally Posted by khalid-hindustani View Post
    আরাকানে মিয়ানমার সেনা-পুলিশ ও মগ দস্যুদের চলমান গণহত্যায় রেহায় দেয়ায় হয়নি আরাকানি মুসলমানদের ধর্মীয় ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা গুলো। পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে বিস্তীর্ণ আরাকানের মসজিদ-মাদরাসা ও খানাকা সমূহ।

    প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা মুসলমান ও ওপারের বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে, সেনা-পুলিশ ও মগ দস্যুরা জ্বালিয়ে দিয়েছে ৫০টি মাদরাসা ও দুই শতাধিক মসজিদ। ২৪ আগস্টের পর থেকে এখন আরাকানের মসজিদ সমূহে বন্ধ রয়েছে আজান-নামাজ।

    Source: https://www.dailyinqilab.com/article/95317/
    এর কথাই আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তাআলা পবিত্র কুরআনে বলে দিয়েছেন বহু আগে-
    وَلَوْلَا دَفْعُ اللَّهِ النَّاسَ بَعْضَهُمْ بِبَعْضٍ لَهُدِّمَتْ صَوَامِعُ وَبِيَعٌ وَصَلَوَاتٌ وَمَسَاجِدُ يُذْكَرُ فِيهَا اسْمُ اللَّهِ كَثِيرًا

    “যদি আল্লাহ মানুষের একদলকে আরেক দল দ্বারা প্রতিহত না করতেন, তাহলে সমস্ত ইবাদতখানা, নামায ও মসজিদসমূহ ধ্বংসপ্রাপ্ত হত, যেখানে বেশি বেশি আল্লাহর যিকর করা হয়।”


    কিন্তু যাদেরকে আল্লাহ ধ্বংস করতে চান, তাদের ধ্বংস কে ঠেকাতে পারে!!?
    আমরা মুসলিম জাতি। এগুলো আমাদেরই হাতের কামাই।
    Last edited by salahuddin aiubi; 09-12-2017 at 12:16 PM.

  5. #4
    Junior Member
    Join Date
    Sep 2017
    Posts
    1
    جزاك الله خيرا
    0
    0 Times جزاك الله خيرا in 0 Posts
    বাংলাদেশের মুফতি মাওলানারা কেন জীহাদের ডাক দিচ্ছে না?? অনেক খুজার পর টর ব্রাউজার থেকে এই সাইটটি পেলাম।

Tags for this Thread

Posting Permissions

  • You may not post new threads
  • You may not post replies
  • You may not post attachments
  • You may not edit your posts
  •