Announcement

Collapse
No announcement yet.

দ্বিমুখী মানহাজ কেন ❓

Collapse
X
 
  • Filter
  • Time
  • Show
Clear All
new posts

  • দ্বিমুখী মানহাজ কেন ❓



    এক মুহতারামের বক্তব্যে শুনলাম তিনি বলছেন—

    ❝যে দেশের ৯৯ পার্সেন্ট মামুষের তাওহীদ ঠিক নেই তাদের জিহাদের কথা বলো কী ফায়দা?❞

    অথচ এই শাইখগন এটাও পাশাপাশি বলেননা যে-

    “তাওহীদ ঠিক না থাকলে শুধু জিহাদই নয় বরং কোনো ইবাদাতেই ফায়দা নেই”


    কিন্তু তারা তাওহীদে গলত উম্মাহকে সব আমলেরই নাসিহা করে জিহাদ ছাড়া। কিন্তু কেন..❓

    আমরা বলি যতটুকু ইমান হলে নামাজ,রোজা ও হজ জাকাত ফরজ হয় ঠিক ততটুকু ইমানে জিহাদও ফরজ হয়।

    কিন্তু এই শরীয়া কোথা থেকে আমদানি হলো যে, শুধুমাত্র জিহাদের কথা বললেই বলে তাওহীদ ঠিক নাই


    আর বাস্তবে যদি তাওহীদ ঠিক নাইই থাকে, আর সেই অজুহাতে যদি জিহাদের কোন ফায়দা নাই পায় তাহলে সে ব্যক্তি এই ঝামেলাওয়ালা তাওহীদ নিয়ে কী করে নামাজের ছওয়াবের আশা করে ❓

    আর উক্ত মুহতারামগন কেন এটাও বলেনি যে, নামাজেও ফায়দা নেই..❓

    এইক্ষেত্রে আসল কথা হলো
    “জিহাদ”।

    তারা মূলত এই জিহাদ শব্দটিই সহ্য করতে পারেনা। তাই এইক্ষেত্রেই শুধুমাত্র তাদের যুক্তি।

    📝 এক মুওয়াহিদ
    " হক্ব তারাই গ্রহণ করেন যাদের নফস অহংকার ও স্বেচ্ছাচারিতার উপর প্রাধান্য বিস্তার করে "
    __শহীদ ওস্তাদ আহমেদ
    ফারুক (রহঃ)

  • #2
    ভাইয়ের লেখাগুলো অনেক ভালো লাগে।

    Comment


    • #3
      likhati comotker howeche . masaallah
      হে ওলামায়ে কেরাম আমরা আপনাদের সন্তান
      AQIS

      Comment


      • #4
        এখান থেকে বুঝা যাচ্ছে তাওহীদের মধ্যে সমস্যা তৈরি হয়েছে জিহাদ থেকে উদাসীন থাকার কারণে । তাই যেই কারণে তাওহীদের মধ্যে সমস্যা তৈরি হয়েছে ঐ কারণটির প্রতিকার করলেই সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে । তা হল জিহাদ থেকে উদাসীন থাকাকে দূরভীত করা।

        Comment

        Working...
        X