Results 1 to 8 of 8
  1. #1
    Senior Member
    Join Date
    Feb 2018
    Posts
    332
    جزاك الله خيرا
    0
    560 Times جزاك الله خيرا in 212 Posts

    আল্লাহু আকবার হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ) এর উপদেশাবলি।

    ১.এক ব্যক্তি হযরত ইব্রাহীম (রহ) এর নিকট বলল, হজুর!আমি বহু অন্যায় কাজ করেছি। দয়া করে আমাকে কিছু উপদেশ দিন। যাতে আমি সঠিক পথে র সন্ধ্যান পেতে পারি।তিনি বললেন,আমি তোমাকে ছয়টি উপদেশ দিতেছি তুমি সেগুলো আমল করো।
    ২.যখন তুমি পাপ কাজ করবে তখন আল্লাহর দেয়া রিজিক খাবেনা।লোকটি বলল, হুজুর! আল্লাহইতো এক মাত্র রিজিকদাতা তার দেওয়া রিজিক ত্যাগ করে অন্য কার রিজিক গ্রহন করব?ঠিকই বলেছো।তবে একথা ঠিক হবে যে তুমি তার দেওয়া রিজিক ভক্ষন করবে আর তার নাফরমানি করবে?
    ৩.যদি কোনো গুনাহ করতে চাও তাহলে আল্লাহর রাজ্য ছেড়ে অন্য কোথাও বাস করো।যেহেতু এটা কখনো ঠিক হবে না যে,তুমি তার রাজ্যে বাস করবে আর তার নাফরমানি করবে।
    লোকটি বলল হুজুর!আল্লাহর রাজ্য ছাড়া আর কোনো রাজ্য আছে কি?হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ)বললেন,যদি একথাটি বুঝে থাকো তবে যেভাবে যা করলে ভালো হয় তাই কর।
    ৪.যদি তুমি একান্তই গুনাহের কাজ ত্যাগ করতে না পার,তবে এমন স্থানে গিয়ে করো যেখানে আল্লাহ না দেখেন।লোকাটি বলল, তিনি তো সরবত্র বিরাজমান। সবকিছু জানেন ও দেখেন।
    হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ)বললেন,এখন তোমার বিবেকের কাছে জিজ্ঞাসা করো,তুমি তার রাজ্যে বাস করবে,তার প্রদত্ত রিজিক খাবে এবং তার সম্মুখে বসে তার নাফরমানি করবে। এর মত জঘন্য অপরাধ ও বিসশাস ঘাতককতা,আর কি হতে পারে?
    ৫,যখন আজ্রাইল তুমার জান কবজ করতে আসবে তখন তার কাছ থেকে তওবা করার জন্য কিছু সময় চেয়ে নিবে। সে বলল,আজ্রাইল কি সে কথায় রাজি হবে?যদি তা বুজে থাকো তবে এখনি তওবা করে নাও।
    ৬.মৃত্যুর পর যখন মুনকার নাকির কবরের মধ্যে তুমার নিকট প্রশ্ন করবে।তখন তুমি তাদের কে তারিয়ে দিও। লোকটি বলল,তা কেমন করে সম্ভব হবে?তবে তাদের প্রশ্ন এর জবাব দেওয়ার জন্য এখনি প্রস্তুত হও।
    ৭.কিয়ামতের দিন আল্লাহ যখন ফেরেশতাদের হুকুম করবেন গুনাহগারদের দোযখে নিয়ে যাও।যখন তারা তুমার নিকট হাজির হবে, তুমি বলবে, আমি যাব না। লোকটি বলল, তারা তো জোরপূর্বক আমাকে ধরে নিয়ে যাবে।হযরত ইবরাহীম আদহাম (রহ)বললেন, তবে যাবতীয় গুনাহের কাজ বন্ধ করো।
    তখন লোকটি বললেন আপনি যা কিছু বললেন তা কারো পক্ষে সম্ভব নয়।এখন আমার ওপায় কি? হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ) বললেন,তবে তুমি তওবা করে যাবতিয় গুনাহের কাজ বর্জন কর।অত:পর লোকটি বলল হুজুর আমার জন্য অন্নান্য কাজ গুলু হতে একাজটি করাই উত্তম হবে। সে তখনই তওবা করলো এবং যাবতীয় গুনাহের কাজ হতে পরহেজ করে চলতে লাগলো,পরে সে মস্ত বড় আবেদ হয়ে গেল।

  2. The Following 5 Users Say جزاك الله خيرا to tarek bin ziad For This Useful Post:


  3. #2
    Senior Member Bara ibn Malik's Avatar
    Join Date
    Sep 2018
    Location
    asia
    Posts
    2,236
    جزاك الله خيرا
    9,824
    6,442 Times جزاك الله خيرا in 2,017 Posts
    আল্লাহ আমাদের সমস্ত গোনাহ থেকে বেচে থাকার তাওফিক দান করুন,আমিন।
    ولو ارادوا الخروج لاعدواله عدةولکن کره الله انبعاثهم فثبطهم وقیل اقعدوا مع القعدین.

  4. The Following 2 Users Say جزاك الله خيرا to Bara ibn Malik For This Useful Post:

    খুররাম আশিক (11-11-2018),abu ahmad (11-11-2018)

  5. #3
    Senior Member abu ahmad's Avatar
    Join Date
    May 2018
    Posts
    3,129
    جزاك الله خيرا
    20,123
    5,642 Times جزاك الله خيرا in 2,261 Posts
    হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ) এর অমর উপদেশ:

    এক ব্যক্তি হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ) এর নিকট এসে বলল, হজুর! আমি জীবনে বহু অন্যায় কাজ করেছি। দয়া করে আমাকে কিছু উপদেশ দিন। যাতে আমি সঠিক পথের সন্ধান পেতে পারি। তিনি বললেন: আমি তোমাকে ছয়টি উপদেশ দিচ্ছি তুমি সেগুলোর উপর আমল করো।
    ১.যখন তুমি কোন পাপ কাজ করবে, তখন আল্লাহর দেয়া রিজিক খাবেনা। লোকটি বলল, হুজুর! আল্লাহ তাআলাই তো একমাত্র রিজিকদাতা। তার দেওয়া রিজিক ত্যাগ করে অন্য কার রিজিক আমি গ্রহন করব? ঠিকই বলেছো। তবে তোমার এ কাজটি কি ঠিক হবে যে, তুমি তার দেওয়া রিজিক খাবে, তারপর তাঁর আদেশ অমান্য করবে?
    ২.যদি কোন গুনাহ করতে চাও তাহলে আল্লাহর রাজ্য ছেড়ে অন্য কোথাও চলে যাও। যেহেতু এটা কখনো ঠিক হবে না যে, তুমি তার রাজ্যে থাকবে, তারপর তাঁর আদেশ অমান্য করবে।
    লোকটি বলল হুজুর! আল্লাহর রাজ্য ছাড়া আর কোন রাজ্য আছে কি? হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ)বললেন, যদি একথাটি বুঝে থাক, তবে যেভাবে যা করলে ভালো হয় তাই কর।
    ৩.যদি তুমি একান্তই গুনাহের কাজ ত্যাগ করতে না পার, তবে এমন স্থানে গিয়ে করো যেখানে আল্লাহ না দেখেন। লোকাটি বলল, তিনি তো সর্বত্র বিরাজমান। সবকিছু জানেন ও দেখেন।
    হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ)বললেন, এখন তোমার বিবেকের কাছে জিজ্ঞাসা কর, তুমি তাঁর রাজ্যে বাস করবে, তাঁর প্রদত্ত রিজিক খাবে আবার তাঁর সামনেই তাঁর হুকুম অমান্য করবে?! এর মত জঘন্য অপরাধ ও বিশ্বাসঘাতককতা আর কিছু কি হতে পারে?
    ৪.যখন আজরাঈল (আঃ) তোমার জান কবজ করতে আসবে তখন তার কাছ থেকে তওবা করার জন্য কিছু সময় চেয়ে নিবে। সে বলল: আজরাঈল (আঃ) কি সে কথায় রাজি হবে? যদি তুমি তা বুঝে থাক, তবে এখনি তওবা করে নাও।
    ৫.মৃত্যুর পর যখন মুনকার নাকির ফেরেশতা কবরের মধ্যে তোমার নিকট প্রশ্ন করবে, তখন তুমি তাদেরকে তাড়িয়ে দিও। লোকটি বলল, তা কেমন করে সম্ভব হবে? যদি সম্ভব নাই হয়, তবে তুমি তাদের প্রশ্নের জবাব দেওয়ার জন্য এখনি প্রস্তুত হও।
    ৬.কিয়ামতের দিন আল্লাহ যখন ফেরেশতাদের হুকুম করবেন গুনাহগারদেরকে দোযখে নিয়ে যাও। এরপর যখন তারা তোমার নিকট হাজির হবে, তখন তুমি বলবে যে, আমি যাব না। লোকটি বলল, তারা তো জোরপূর্বক আমাকে ধরে নিয়ে যাবে। হযরত ইবরাহীম আদহাম (রহ)বললেন, তবে এখনই যাবতীয় গুনাহের কাজ বন্ধ করে দাও।
    তখন লোকটি বলল: আপনি যা কিছু বললেন তা করা কারো পক্ষে সম্ভব নয়। এখন আমার উপায় কি? হযরত ইব্রাহীম আদহাম (রহ) বললেন, তবে তুমি এখনই তওবা করে যাবতীয় গুনাহের কাজ বর্জন কর। অত:পর লোকটি বলল: হুজুর আমার জন্য অন্যান্য কাজগুলির চাইতে একাজটি (তাওবা) করাই উত্তম হবে। তারপর সে তখনই তওবা করল এবং যাবতীয় গুনাহের কাজ হতে বিরত থাকতে প্রয়াস চালিয়ে গেল। পরবর্তী সময়ে সে মস্ত বড় আবেদে পরিণত হলেন।
    তাই আসুন! এই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে আমরাও এখনই যাবতীয় পাপ কাজ বর্জন করে খাঁটি তাওবা করে আল্লাহর পিয়ারা বান্দা হওয়ার প্রচেষ্টায় লিপ্ত হই। আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে তাওফিক দান করুন।...আল্লাহুম্মা আমীন

  6. #4
    Senior Member খুররাম আশিক's Avatar
    Join Date
    Aug 2018
    Location
    hindostan
    Posts
    1,559
    جزاك الله خيرا
    6,919
    4,280 Times جزاك الله خيرا in 1,384 Posts
    আল্লাহ আপনার মেহনত কবুল করুন,আমিন।
    والیتلطف ولا یشعرن بکم احدا٠انهم ان یظهروا علیکم یرجموکم او یعیدو کم فی ملتهم ولن تفلحو اذا ابدا

  7. The Following 2 Users Say جزاك الله خيرا to খুররাম আশিক For This Useful Post:

    abu ahmad (11-11-2018),molla (11-11-2018)

  8. #5
    Senior Member যোদ্ধা হব's Avatar
    Join Date
    Nov 2018
    Location
    غزوة الهند
    Posts
    155
    جزاك الله خيرا
    85
    380 Times جزاك الله خيرا in 128 Posts
    জাযাকাল্লাহু খাইরান।
    আল্লাহ তাআলা আপনার কাজে বারাকাহ্ দান করুন, আমীন।
    যোদ্ধা হব, যুদ্ধ করব,
    ক্বিতালের জন্য দাওয়াত দিব, ইনশাআল্লাহ।

  9. The Following User Says جزاك الله خيرا to যোদ্ধা হব For This Useful Post:

    abu ahmad (11-11-2018)

  10. #6
    Senior Member abu ahmad's Avatar
    Join Date
    May 2018
    Posts
    3,129
    جزاك الله خيرا
    20,123
    5,642 Times جزاك الله خيرا in 2,261 Posts
    শুকরিয়া আখিঁ, জাঝাকাল্লাহ খাইর।

  11. #7
    Senior Member abu ahmad's Avatar
    Join Date
    May 2018
    Posts
    3,129
    جزاك الله خيرا
    20,123
    5,642 Times جزاك الله خيرا in 2,261 Posts
    আমীন ইয়া রব্ব! ওয়া ইয়্যাকা আয়দান...!

  12. #8
    Senior Member
    Join Date
    Feb 2018
    Posts
    332
    جزاك الله خيرا
    0
    560 Times جزاك الله خيرا in 212 Posts
    তাই আসুন! এই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে আমরাও এখনই যাবতীয় পাপ কাজ বর্জন করে খাঁটি তাওবা করে আল্লাহর পিয়ারা বান্দা হওয়ার প্রচেষ্টায় লিপ্ত হই। আল্লাহ তা‘আলা আমাদেরকে তাওফিক দান করুন আমিন

Posting Permissions

  • You may not post new threads
  • You may not post replies
  • You may not post attachments
  • You may not edit your posts
  •