Results 1 to 9 of 9
  1. #1
    Junior Member
    Join Date
    Jun 2015
    Posts
    20
    جزاك الله خيرا
    0
    11 Times جزاك الله خيرا in 7 Posts

    Lightbulb ওহে! তোমরা যারা জান ও মাল বিক্রয় করতে চাচ্ছ!

    জিহাদের ব্যাপারে ইবনুল কায়্যিম (রহ) এর ঈমানী তেজ মূলক লেখা !

    রসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সালামের গাযওয়া যুদ্ধসমূহের বিবরণ শুরু করার পূর্বে রীতিমাফিক জিহাদের হাকীকত ও তাৎপর্য এবং এর স্তর ও পর্যায় সম্পর্কে তথ্য ও তত্ত্বপূর্ণ বক্তব্যের অবতারণা করেছেন ।১ জিহাদ ফরয হওয়ার হিকমত ও তাৎপর্য বর্ণনা প্রসঙ্গে তিনি জান্নাতের অফুরন্ত নিয়ামতের তুলনায় মানুষের জান ও মাল যে কত তুচ্ছ ও নগণ্য- তাও তুলে ধরেছেন বেশ ঈমান উদ্দীপক ভাষায় । এখানে এসে তাঁর ঈমানী তেজ ও লেখনী শক্তি উভয়ের সার্থক সমন্বয় ঘটেছে বলে মনে হয় ।

    তিনি লিখেছেন :

    মানুষ তার জান-মালকে জানমালের মালিকের রাস্তায় ব্যয় করবে, এটাই হলো প্রেম ও মুহব্বত এবং জান্নাত ও তার অফুরন্ত নিয়ামতের দাবী । কেননা মুমিনের জান-মাল তিনি খরিদ করে নিয়েছেন । কোন ভীরু অপদার্থের ও শূণ্যহস্ত ফকীরের সাধ্য কি এমন পণ্যের দাম হাঁকে । আল্লাহর কসম ! এ কোন অচল পণ্য নয় যে, ভীরু, দুর্বল ও ফকীর-মিসকিন এর দরাদরি করতে পারে এবং এ পণ্যের বাজার এত মন্দা নয় যে, অভাবী নাখাস্তা লোকও তা কর্যরূপে চাওয়ার সাহস করতে পারে । এ পণ্য তো জহুরী ও সমঝদারদের বাজারে বিক্রির জন্য ছাড়া হয়েছে । জান্নাতের মালিক তো জানের চেয়ে কম মূল্যে তার পণ্য বেচতে রাযী নন । ভীরু অপদার্থের দল তো মূল্য শুনেই পিছিয়ে এসেছে । আর প্রেমিক মজনূর দল হুরোহুরি করে এগিয়ে গেছে জানের বাজি লাগাতে যে, মালিক দয়া করে তার জানটা যদি জান্নাতের মূল্যরূপে কবূল করেন । শেষ পর্যন্ত এ মহাপণ্য সেই পূণ্যাত্নাদের হাতে চলে গেল যারা মুমিন ভাইদের প্রতি ছিলেন সদয় ও বিনম্র, কিন্তু কাফিরদের বেলায় ছিলেন বজ্র কঠোর ।
    ইশক ও প্রেমের দাবীদারদের সংখ্যা যখন বেড়ে গেল তখন তাদের কাছে দাবীর সত্যতার প্রমাণ তলব করা হলো । কেননা বিনা প্রমাণে সবার দাবী স্বীকার করে নিলে আশিক মজনূ আর ভণ্ড মজনূর মাঝে পার্থক্য করার কোন উপায় থাকবে না । দাবীদাররা হর কিসিমের প্রমাণ পেশ করল কিন্তু তাদের বলা হলো বাছাই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া ছাড়া তোমাদের দাবী গৃহীত হবে না ।

    আপনি বলে দিন, আল্লাহকে সত্যই যদি তোমরা ভালবাস তাহলে আমার অনুসরণ কর । আল্লাহ তোমাদের ভালবাসবেন । আল-কুরআন ।

    এ কঠিন পরীক্ষার কথা শুনে সবাই পিছিয়ে গেল । কাজে-কর্মে, আচরণে, অভ্যাসে ও চরিত্রে তথা জীবনের সর্বক্ষেত্রে যারা রসূল (সা)-এর সত্যিকার অনুসারী ছিলেন তারাই শুধু নিজেদের দাবীতে অটল থাকলেন । অত:পর চূড়ান্ত পরীক্ষার মানদণ্ড ঘোষণা করে ইরশাদ হলো :

    আল্লাহর পথে তারা জিহাদ করে এবং নিন্দুকের নিন্দা বা সমালোচনার মোটেই পরওয়া করে না ।

    এবার কিন্তু প্রেম ও মহব্বতের অধিকাংশ দাবীদার কেটে পড়ল । মুজাহিদরাই শুধু টিকে রইল । তখন তাদের লক্ষ্য করে বলা হলো, এখন আশিক ও প্রেমিকদের জান-মালে তাদের মালিকানা নেই । সুতরাং যে পণ্যের সওদা হয়ে গেছে তা প্রকৃত মালিককে বুঝিয়ে দাও ।

    নি:সন্দেহে আল্লাহ, মুমিনদের নিকট থেকে তাদের জান-মাল খরিদ করে নিয়েছেন এই শর্তে যে, তাদেরকে জান্নাত দেওয়া হবে । আল-কুরআন, ৯:১১১ ।

    বিক্রয় চুক্তি হয়ে যাওয়ার পর বিক্রেতা ও ক্রেতার কর্তব্য হলো পণ্য বুঝিয়ে দেওয়া এবং মূল্য পরিশোধ করা । ব্যবসায়ীরা যখন ক্রেতার মর্যাদা, দয়া, মহিমা, ক্ষমতার সর্বব্যাপকতা প্রত্যক্ষ করল এবং মূল্যরূপে প্রাপ্তব্য চিরস্থায়ী জান্নাতের অফুরন্ত নিয়ামত সম্পর্কে অবগত হলো তখন তাদের বুঝতে বাকি রইল না যে, জানমালের এ সওদাবাজিতে তারা দারুণ জেতা জিতেছে । এখন ক্ষণস্থায়ী জীবনের মোহে পড়ে এ বিক্রয় চুক্তি প্রত্যাহার করা হবে সীমাহীন বোকামী ও নির্বুদ্ধিতার পরিচায়ক । তাই তারা খরিদদারের প্রতিনিধির হাতে সানন্দে ও স্বতস্ফূর্তভাবে নিজেদের সমস্ত ইচ্ছা ও এখতিয়ার বিলুপ্ত করে বায়আতে রিদওয়ানে শরীক হলো । নবীর হাতে হাত রেখে তারা শপথ করল- এ মূল্য কখনো্ আমরা ফেরত নেব না এবং বিক্রয় চুক্তি প্রত্যাহারেরও আবেদন জানাব না । মোটকথা, ক্রয়-বিক্রয় চুক্তি পূর্ণাঙ্গ হয়ে গেছে এবং তাদের সব কিছু সোপার্দ করে দিয়েছে তখন তাদের বলা হল- তোমাদের জীবন ও সম্পদ এখন থেকে আমার হয়ে গেছে এবং এখন তা কয়েকগুণ বৃদ্ধি করে আমি তোমাদের ফিরিয়ে দিচ্ছি ।

    আল্লাহর রাস্তায় যারা নিহত হয়েছে তাদের মৃত মনে কর না । আপন প্রতিপালকের কাছে তারা জীবিত, তাদের রিযিক প্রদান করা হয় । আল-কুরআন ।

    লাভের লোভে আমি তোমাদের জান-মাল দাবী করিনি । আমি শুধু আমার দান ও দয়ার প্রকাশ ঘটাতে চেয়েছি । দেখছ না, কেমন তুচ্ছ ও নগণ্য জিনিস নিয়ে কী বিরাট ও অফুরন্ত মূল্য তোমাদের হাতে তুলে দিলাম ! তদুপরি তোমাদের জান-মাল তোমাদের জন্যই আমি সঞ্চিত করে রেখেছি । এখানে হযরত জাবির (রা)-এর ঘটনা স্মরণ করুন । রসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর কাছ থেকে একটি উট খরিদ করলেন । তদুপরি বিক্রিত উট ফেরতও দিলেন । তাঁর পিতা ওহুদের যুদ্ধে শহীদ হয়েছিলৈন । আল্লাহ সুব: তাঁর পিতার সাথেও অনুরূপ মুআমালা করলেন । আল্লাহ তাকে জীবিত করে আবরণ সরিয়ে সরাসরি কালাম করলেন, হে আমার বান্দা ! কী চাওয়ার আছে তোমার, বলো । মানুষ তার ক্ষুদ্র অনুভূতি ও উপলব্ধি দ্বারা আল্লাহর দয়া ও করুণা এবং দান ও ইহসানের কতটুকুই বা অনুভব করতে পারে ? এ জান-মাল আল্লাহই তো দিয়েছেন । বিক্রয় চুক্তি সম্পাদনের তাওফীকও তিনিই দিয়েছেন । যাবতীয় দোষ ও খুঁত সত্ত্বেও দয়া করে সে মাল কবূল করেছেন এবং বান্দার হাতে কল্পনাতীত মূল্য তুলে দিয়েছেন । তদুপরি বান্দার তিনি প্রশংসা করেছেন, অথচ তাঁর দেয়া তাওফীক ছাড়া বান্দার পক্ষে এ বিরাট সওদা করা সম্ভব ছিল না । আল্লাহর পথে আহবানকারী রসূল (স) সাহসী ও আত্নসম্মানবোধসম্পন্নদের আল্লাহর ও জান্নাতের দিকে ডাকলেন । ঈমানের নকীব বিবেকসম্পন্নদের আহবান শোনালেন । ফলে জান্নাতের আশায় আল্লাহর সন্তুষ্টি অনুসন্ধানকারী যাত্রী দলের মাঝে মহাযাত্রার এক অভূতপূর্ব কোলাহল জেগে উঠল এবং আশা-প্রত্যাশার স্বর্ণতোরণ পেরিয়ে মনযিলে মকসূদে পৌছার পূর্ব পর্যন্ত কারো মনেই যেন স্বস্তি নেই । আছে শুধু ব্যাকুল প্রতিক্ষার আনন্দ-বেদনা ।২

    ১.যাদুল-মাআদ, ১ম খণ্ড, পৃ. ২৯১-২৯৪ ।
    ২. যাদুল-মাআদ, ১ম খণ্ড, পৃ. ৩১১-৩১২ ।
    সংগৃহিত : সংগ্রামী সাধকদের ইতিহাস, ২য় খণ্ড, পৃ. ৩৫২-৩৫৫ থেকে ।

  2. The Following 5 Users Say جزاك الله خيرا to Musab Umar For This Useful Post:

    কাল পতাকা (01-07-2016),jundullahibnabdullah (01-07-2016),Taalibul ilm (01-07-2016),tarreck (01-07-2016),titumir (01-07-2016)

  3. #2
    Senior Member
    Join Date
    Oct 2015
    Posts
    883
    جزاك الله خيرا
    1,171
    752 Times جزاك الله خيرا in 386 Posts
    জাযাকাল্লাহ। মানুষ তার জান-মালকে জানমালের মালিকের রাস্তায় ব্যয় করবে, এটাই হলো প্রেম ও মুহব্বত এবং জান্নাত ও তার অফুরন্ত নিয়ামতের দাবী । কেননা মুমিনের জান-মাল তিনি খরিদ করে নিয়েছেন । কোন ভীরু অপদার্থের ও শূণ্যহস্ত ফকীরের সাধ্য কি এমন পণ্যের দাম হাঁকে । আল্লাহর কসম ! এ কোন অচল পণ্য নয় যে, ভীরু, দুর্বল ও ফকীর-মিসকিন এর দরাদরি করতে পারে এবং এ পণ্যের বাজার এত মন্দা নয় যে, অভাবী নাখাস্তা লোকও তা কর্যরূপে চাওয়ার সাহস করতে পারে । এ পণ্য তো জহুরী ও সমঝদারদের বাজারে বিক্রির জন্য ছাড়া হয়েছে । জান্নাতের মালিক তো জানের চেয়ে কম মূল্যে তার পণ্য বেচতে রাযী নন । ভীরু অপদার্থের দল তো মূল্য শুনেই পিছিয়ে এসেছে । আর প্রেমিক মজনূর দল হুরোহুরি করে এগিয়ে গেছে জানের বাজি লাগাতে যে, মালিক দয়া করে তার জানটা যদি জান্নাতের মূল্যরূপে কবূল করেন । শেষ পর্যন্ত এ মহাপণ্য সেই পূণ্যাত্নাদের হাতে চলে গেল যারা মুমিন ভাইদের প্রতি ছিলেন সদয় ও বিনম্র, কিন্তু কাফিরদের বেলায় ছিলেন বজ্র কঠোর ।

  4. The Following User Says جزاك الله خيرا to Ahmad Faruq M For This Useful Post:

    titumir (01-07-2016)

  5. #3
    Member
    Join Date
    Jan 2016
    Posts
    32
    جزاك الله خيرا
    25
    17 Times جزاك الله خيرا in 10 Posts
    আল্লাহ সুবহানাহু তায়ালা যেন আমাদের সকল কে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দৃঢ় থাকার তৌফিক দান করেন

  6. The Following User Says جزاك الله خيرا to jundullahibnabdullah For This Useful Post:

    Taalibul ilm (01-07-2016)

  7. #4
    Senior Member
    Join Date
    Jul 2015
    Location
    طاعون خوارج
    Posts
    749
    جزاك الله خيرا
    611
    437 Times جزاك الله خيرا in 256 Posts
    আল্লাহ তায়ালার সাথে জান-মাল জিহাদের মাধ্যমে বিক্রয়ের এটাই তো তাকাজা হবে যে, জিহাদের সামনে দীন-দুনিয়ার কোন ধরনে কাজকে তার সামনে দাড় করাব না। সাধারনত যে গুলো দেয়া হয়ঃ সামনে পড়া বা পরিক্ষা আছে, মাদ্রাসা বা বাড়ী থেকে চাপ এবং এই কাজ ছিল বা ঐ কাজ ছিল, এগুলো যদি দেই তাহলে বিক্রয় হল কি ভাবে।

  8. The Following User Says جزاك الله خيرا to কাল পতাকা For This Useful Post:

    Taalibul ilm (01-07-2016)

  9. #5
    Member
    Join Date
    Apr 2015
    Posts
    28
    جزاك الله خيرا
    0
    10 Times جزاك الله خيرا in 6 Posts
    জাযাকাল্লাহ

  10. #6
    Senior Member titumir's Avatar
    Join Date
    Apr 2015
    Location
    Hindustan
    Posts
    300
    جزاك الله خيرا
    323
    223 Times جزاك الله خيرا in 107 Posts
    এবার কিন্তু প্রেম ও মহব্বতের অধিকাংশ দাবীদার কেটে পড়ল । মুজাহিদরাই শুধু টিকে রইল । তখন তাদের লক্ষ্য করে বলা হলো, এখন আশিক ও প্রেমিকদের জান-মালে তাদের মালিকানা নেই । সুতরাং যে পণ্যের সওদা হয়ে গেছে তা প্রকৃত মালিককে বুঝিয়ে দাও ।

    অাল্লাহু অাকবার!!!
    কাফেলা এগিয়ে চলছে আর কুকুরেরা ঘেঊ ঘেঊ করে চলছে...

  11. The Following User Says جزاك الله خيرا to titumir For This Useful Post:

    Taalibul ilm (01-07-2016)

  12. #7
    Senior Member
    Join Date
    Oct 2015
    Posts
    883
    جزاك الله خيرا
    1,171
    752 Times جزاك الله خيرا in 386 Posts
    আল্লাহ তায়ালার সাথে জান-মাল জিহাদের মাধ্যমে বিক্রয়ের এটাই তো তাকাজা হবে যে, জিহাদের সামনে দীন-দুনিয়ার কোন ধরনে কাজকে তার সামনে দাড় করাব না। সাধারনত যে গুলো দেয়া হয়ঃ সামনে পড়া বা পরিক্ষা আছে, মাদ্রাসা বা বাড়ী থেকে চাপ এবং এই কাজ ছিল বা ঐ কাজ ছিল, এগুলো যদি দেই তাহলে বিক্রয় হল কিভাবে!
    ভাই আপনি একধম বাস্তব কথা বলেছেন। আজকাল কতিপয় কলেজ / মাদ্রাসার ছাত্র ভাইদেরকে এসব ওজর পেশ করতে দেখা যায়! তাদের জন্য সূরা তাওবাহ এর ২৪ নং আয়াতটি স্মরনীয়।


    قُلْ إِن كَانَ آبَاؤُكُمْ وَأَبْنَآؤُكُمْ وَإِخْوَانُكُمْ وَأَزْوَاجُكُمْ وَعَشِيرَتُكُمْ وَأَمْوَالٌ اقْتَرَفْتُمُوهَا وَتِجَارَةٌ تَخْشَوْنَ كَسَادَهَا وَمَسَاكِنُ تَرْضَوْنَهَا أَحَبَّ إِلَيْكُم مِّنَ اللّهِ وَرَسُولِهِ وَجِهَادٍ فِي سَبِيلِهِ فَتَرَبَّصُواْ حَتَّى يَأْتِيَ اللّهُ بِأَمْرِهِ وَاللّهُ لاَ يَهْدِي الْقَوْمَ الْفَاسِقِينَ

    বল, তোমাদের নিকট যদি তোমাদের পিতা তোমাদের সন্তান, তোমাদের ভাই তোমাদের পত্নী, তোমাদের গোত্র তোমাদের অর্জিত ধন-সম্পদ, তোমাদের ব্যবসা যা বন্ধ হয়ে যাওয়ার ভয় কর এবং তোমাদের বাসস্থান-যাকে তোমরা পছন্দ কর-আল্লাহ, তাঁর রসূল ও তাঁর রাহে জেহাদ করা থেকে অধিক প্রিয় হয়, তবে অপেক্ষা কর, আল্লাহর বিধান আসা পর্যন্ত, আর আল্লাহ ফাসেক সম্প্রদায়কে হেদায়েত করেন না।

  13. The Following User Says جزاك الله خيرا to Ahmad Faruq M For This Useful Post:

    Taalibul ilm (01-07-2016)

  14. #8
    Junior Member
    Join Date
    Jun 2015
    Posts
    20
    جزاك الله خيرا
    0
    11 Times جزاك الله خيرا in 7 Posts
    জান্নাতের আশায় আল্লাহর সন্তুষ্টি অনুসন্ধানকারী যাত্রী দলের মাঝে মহাযাত্রার এক অভূতপূর্ব কোলাহল জেগে উঠল(এদেশের যাত্রী দল তথা আমাদের ভাইদের মাঝেও মহাযাত্রার সে কোলাহল বিরাজ করছে) এবং আশা-প্রত্যাশার স্বর্ণতোরণ পেরিয়ে মনযিলে মকসূদে পৌছার পূর্ব পর্যন্ত কারো মনেই যেন স্বস্তি নেই(বিশ্বাস করি আমাদের ভায়েরাও স্বস্তিতে নেই মনযিলে মকসূদে না পৌছানো পর্যন্ত)। এখন আমাদের ভাইদের সামনে আছে শুধু ব্যাকুল প্রতিক্ষার আনন্দ-বেদনা ।

    ***হে আল্লাহ ! আপনি আমাকে সহ আমাদের সকল ভাইদেরকে নিজেদের তুচ্ছ জান-মালের বিনিময়ে অফুরন্ত নিয়ামত জান্নাত লাভের যাত্রী দলের অন্তর্ভুক্ত করিয়া নিন ।***

  15. #9
    Senior Member
    Join Date
    Oct 2015
    Posts
    883
    جزاك الله خيرا
    1,171
    752 Times جزاك الله خيرا in 386 Posts
    ***হে আল্লাহ ! আপনি আমাকে সহ আমাদের সকল ভাইদেরকে নিজেদের তুচ্ছ জান-মালের বিনিময়ে অফুরন্ত নিয়ামত জান্নাত লাভের যাত্রী দলের অন্তর্ভুক্ত করিয়া নিন ।***
    আমীন, ইয়া রাব্বাল আলামীন।

Similar Threads

  1. ভাইদের সহযোগীতা চাচ্ছি...
    By shinai in forum তথ্য প্রযুক্তি
    Replies: 2
    Last Post: 12-19-2015, 08:18 PM
  2. নতুন অডিও লেকচার "হে নওজোয়ান..."
    By TawhidMedia in forum অডিও ও ভিডিও
    Replies: 6
    Last Post: 09-17-2015, 12:51 PM
  3. Replies: 1
    Last Post: 07-02-2015, 10:24 PM

Posting Permissions

  • You may not post new threads
  • You may not post replies
  • You may not post attachments
  • You may not edit your posts
  •