Results 1 to 2 of 2
  1. #1
    Senior Member diner pothik's Avatar
    Join Date
    Apr 2017
    Posts
    476
    جزاك الله خيرا
    89
    601 Times جزاك الله خيرا in 289 Posts

    আল-হামদুলিল্লাহ #ভয়ংকর_ষড়যন্ত্র

    #ভয়ংকর_ষড়যন্ত্র
    #বৃটেনে_ইসলাম_বিদ্বেষী_আলেম_তৈরির_অভিনব_মাদরাস া
    নবাব রাহাত সায়িদ খান ছাতরী ১৯৪০ সনে ভারতের উত্তর প্রদেশের গভর্ণর ছিলেন । বৃটিশ সরকার এতো বড় গুরুত্বপূর্ণ পদে তাকে এজন্য বসিয়েছে যে, সে উলামায়ে কেরাম ও অন্যান্য মুসলিমদের থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন থেকে ইংরেজদের পূর্ণ আনুগত্য করতো । নবাব ছাতরী সাহেব তার ডায়রীতে লিখেন, একবার তাকে সরকারী কাজে লন্ডন ডাকা হয় । তার এক ইংরেজ ঘনিষ্ঠ বন্ধু (যে ভারতে এক সময়ে কালেক্টর ছিলো ) নবাব সাহেবকে বললো, আমি তোমাকে এমন এক স্থানে ভ্রমণ করাবো যেখানে আমার ধারণা মতে কোন ভারতীয় অদ্যাবধি সেখানে যায়নি । নবাব সাহেব আনন্দিত হলেন। তার সেই বন্ধু তার নিকট পাসপোর্ট চাইলো যে, সেখানে যাওয়ার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে লিখিত অনুমতির প্রয়োজন । দুই দিন পর কালেক্টর অনুমতিপত্র নিয়ে এসে বললেন, আমার গাড়িতে আগামীকাল সকালে আমরা যাব । পরবর্তী দিন সকালে নবাব সাহেব এবং সেই ইংরেজ গন্তব্যের দিকে রওয়ানা হলেন । শহর থেকে বের হয়ে বাম দিকে একটি জঙ্গল শুরু হলো । জংগলে একটি সরু পথ ছিলো । চলতে চলতে জংগল ঘন ঘন হয়ে গেল । পথের উভয় পার্শ্বে না কোন ট্রাফিক ছিল, না কোন পথযাত্রী । নবাব সাহেব কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে এদিক সেদিক তাকাতে লাগলেন । আধাঘন্টার অধিক সময় অতিক্রম করার পর অনেক বড় গেইট পরিলক্ষিত হলো । অতঃপর দীর্ঘ সময়ের পর একটি প্রশস্ত ভবন দেখা গেল যার চতুর্দিকে কন্টক বৃক্ষ এবং গাছপালার এমন দেয়াল যা অতিক্রম করা অসম্ভব ছিলো । ভবনের চতুর্দিকে শক্তিশালী সৈন্যদের পাহারা ছিলো । ভবনের বাইরে অবস্থিত সৈন্যরা পাসপোর্ট এবং লিখিত অনুমোদনপত্র গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করার পর বললো, এই গাড়ী এখানে রেখে সামনে সেনাবাহিনীর গাড়ী রয়েছে তাতে আরোহণ করুন । নবাব সাহেব এবং তার ইংরেজ বন্ধু প্রহরীদের গাড়িতে বসলেন । পুনরায় সেই সরুপথে সফর শুরু হলো । সেই ঘন জংগল এবং উভয় দিকে জংগলী বৃক্ষের দেয়াল । নবাব সাহেব বিচলিত হলে ইংরেজ বললেন, আমরা একটু পরই আমাদের গন্তব্যস্থলে পৌঁছে যাব । সর্বশেষ আরো একটি লাল পাথরের বড় ভবন পরিলক্ষিত হলো । চালক গাড়ী থামিয়ে বললো, এখান থেকে সামনে আপনারা পায়ে হেঁটে যেতে পারবেন। পথিমধ্যে কালেক্টর সাহেব নবাব ছাতরী সাহেবকে বললেন, আমরা শুধু এখানে দেখার জন্য এসেছি । কোন কিছু প্রশ্ন করার অনুমতি নেই ।
    ভবনের শুরুতে একটি দালান ছিলো, তার পিছনে একাধিক কক্ষ ছিলো । দালানে প্রবেশ করা মাত্রই এক শশ্রুমণ্ডিত যুবক আরবীয় পোশাক পরিহিত, মাথায় আরবীয় রুমাল পেঁচিয়ে একটি কক্ষ থেকে বের হল । অপর আরেকটি কক্ষ থেকেও এমন দুইজন যুবক বের হলো । প্রথমজন আরবী বর্ণনাভঙ্গিতে আস সালামু আলাইকুম বলল, অপরজন বললো, ওয়া আলাইকুমুস সালাম । কেমন আছেন ?
    নবাব সাহেব এ দৃশ্য দেখে হতবাক হলেন । কিছু বলার ইচ্ছে করলে ইংরেজ বন্ধুটি ইশারায় নিষেধ করে দিলেন। চলতে চলতে এক কক্ষের দরজার গিয়ে দেখলেন, মসজিদের মতো কার্পেট বিছানো । আরবীয় পোশাক পরিহিত কয়েকজন ছাত্র কার্পেটে বসা । তাদের সামনে উস্তাদ অবিকল ওইভাবে বসে সবক পড়াচ্ছেন, যেভাবে মাদরাসা সমূহে পড়ানো হয় । ছাত্ররা কখনো আরবী কখনো ইংরেজীতে উস্তাদের নিকট প্রশ্নও করছে । নবাব সাহেব আরও দেখলেন, কোথাও কুরআনের দরস, কোথাও বুখারী-মুসলিমের দরস দেয়া হচ্ছে । এক কক্ষে মুসলমান ও খ্রীস্টানদের মাঝে বিতর্ক অনুষ্ঠান বা বাহাস চলছিলো । এক কক্ষে ফেকহী মাসআলা সম্পর্কে আলোচনা হচ্ছিল । সবচেয়ে বড় কক্ষে কুরআন শরীফের অনুবাদ বিভিন্ন ভাষায় শিখানো হচ্ছিল । তিনি নোট করলেন প্রত্যেক স্থানে সূক্ষ্ম-সূক্ষ্ম মাসআলার প্রতি জোর দেয়া হচ্ছে । যেমনঃ অজু, নামায, রোযা, উত্তরাধিকারি সম্পদ বন্টন, দুধপান করার বিষয়ে বিতর্ক, পোশাক এবং দাঁড়ির সুরত, চাঁদ দেখা, গোসলখানার আদব, হজ্বের বিধি-বিধান, বকরী, দুম্বা কেমন হবে, ছুরি কেমন হবে, দুম্বা হালাল না হারাম । হজ্বে বদল ও কাযা নামাযের বাহাস, ঈদের দিন কীভাবে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে এবং কীভাবে হজ্ব করতে হবে ? প্যান্ট পরিধান করা বৈধ না অবৈধ ? মহিলাদের পবিত্রতার বিষয়, ইমামের পিছনে সুরায়ে ফাতিহা পড়া যাবে কী না ? তারাবীহ আট রাকাত না বিশ রাকাত ? ইত্যাদি একজন উস্তাদ প্রথমে আরবী, অতঃপর ইংরেজী, সর্বশেষ অত্যন্ত সাধারণ উর্দূতে প্রশ্ন করেন আপনারা বলুন, জাদু, বদ নজর, তাবীজ-গন্ডা, ভূত-প্রেতের ছায়া ঠিক কী না ? পয়ত্রিশ থেকে চল্লিশ সংখ্যা বিশিষ্ট ক্লাসের ছাত্ররা সম্মিলিত কন্ঠে বললো, ট্রু ট্রু । অতঃপর আরবীতে একই উত্তর দিলো, এমনকি উর্দূতেও । এক ছাত্র দাঁড়িয়ে বললো, উস্তাদ ! কুরআন বলে, প্রত্যেক ব্যক্তি নিজ নিজ আমলের যিম্মাদার । উস্তাদ বলল, কুরআনের কথা বলো না । বর্ণনা ও ওজিফার মধ্যে মুসলমানদের ঈমান দৃঢ় কর । জ্যোতিষী ও তাকদীরের মধ্যে ব্যাপৃত করে দাও ।
    এসব দৃশ্য দেখে আসার পর নবাব ছাতরী ইংরেজ কালেক্টরের নিকট জিজ্ঞেস করল, এত বড় দ্বীনি মাদরাসা আপনারা লুকিয়ে রেখেছেন কেন ? ইংরেজ বললো, এদের মধ্যে কেউ মুসলমান নয়, সকলেই খ্রীস্টান । শিক্ষা সমাপনের পর তাদেরকে মুসলিম দেশে বিশেষত মধ্যপ্রাচ্য, তুর্কী, ইরান ও ভারতে প্রেরণ করা হয় । সেখানে পৌঁছে কোন বড় মসজিদে নামাজ পড়ার পর নামাজীদেরকে বলে, সে ইউরোপীয় মুসলমান । মিশরের জামেয়াতুল আযহারে পড়াশুনা করেছে । সে পূর্ণাঙ্গ আলেম । ইউরোপে এতো ইসলামী প্রতিষ্ঠান নেই যে, সেখানে খেদমত করবে । সে কোন বেতন ভাতা চায় না, শুধু খানা এবং থাকার স্থান প্রয়োজন । সে মুয়াজ্জিন, ইমামতি, শিশুদের কুরআন শরীফ পড়ানোর খেদমত আঞ্জাম দেয় । শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হলে সেখানে উস্তাদ হয়ে যায় । এমনকি জুমআর খুত্*বা পর্যন্ত প্রদান করে থাকে। নবাব সাহেবের ইংরেজ বন্ধু তাকে একথা বলে হতবাক করে দিয়েছে যে, এই বিশাল মাদরাসায় বুনিয়াদী উদ্দেশ্য হলো-
    ১.মুসলমানদেরকে দু'আ-অজিফা ও বুদ্ধিবৃত্তিক বিষয়ে ব্যাপৃত করে কুরআন থেকে দুরে রাখা ।
    ২.নবীজী সাঃ এর মর্যাদাকে হেয় করা ।
    সেই ইংরেজ এটাও তুলে ধরেছে যে, ১৯২০ সনে "তাওহীনে রেসালাত" গ্রন্থ লিখানোর ক্ষেত্রেও এই প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা ছিলো । এমনিভাবে এর কয়েক বছর পূর্বে মির্জা গোলাম আহমদ কাদিয়ানীকে মিথ্যা নবী হিসেবে দাঁড় করানোর ব্যাপারে এই প্রতিষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতা ছিলো । তার গ্রন্থসমূহের মূল উপাদান ওই ভবন থেকে তৈরি করা হতো । এ বিষয়েও তথ্য রয়েছে যে, সালমান-রুশদীর "স্যাটানিক ভার্সেস" বই লেখানোর ব্যাপারেও এই প্রতিষ্ঠানের হাত রয়েছে ।
    (তথ্যসূত্রঃ সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী দাঃবাঃ রচিত বই "আনদর কী বাতেঁ")

  2. #2
    Senior Member bokhtiar's Avatar
    Join Date
    Oct 2016
    Location
    asia
    Posts
    1,513
    جزاك الله خيرا
    4,669
    3,095 Times جزاك الله خيرا in 1,283 Posts
    জাযাকাল্লাহ আখিঁ। এর দ্বারা বুঝা যাচ্ছে কুফফাররা বসে নেই যদিও মুসলিমরা হাত গুটিয়ে নিয়েছে!!!

Similar Threads

  1. Replies: 6
    Last Post: 05-29-2019, 05:47 PM
  2. মসজিদ ভিত্তিক ষড়যন্ত্র
    By affansadi in forum উম্মাহ সংবাদ
    Replies: 2
    Last Post: 08-21-2017, 10:12 PM
  3. Replies: 11
    Last Post: 11-07-2016, 03:03 PM

Posting Permissions

  • You may not post new threads
  • You may not post replies
  • You may not post attachments
  • You may not edit your posts
  •